ভর্তি শেষে ইবির ৮৩ শতাংশ আসন খালি, ১৯ জানুয়ারি দ্বিতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ - ভর্তি - দৈনিকশিক্ষা

ভর্তি শেষে ইবির ৮৩ শতাংশ আসন খালি, ১৯ জানুয়ারি দ্বিতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ

ইবি প্রতিনিধি |

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তিতে প্রথম মেধাতালিকায় থাকা শিক্ষার্থীদের ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। এতে মেধাতালিকায় থাকা ২ হাজার ৯৫ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৩৫০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি সম্পন্ন করেছে বলে নিশ্চিত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় আইসিটি সেল। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮৩ দশমিক ২৯ শতাংশ আসন এখনো খালি রয়েছে। খালি আসনগুলোতে ভর্তির জন্য আগামী ১৯ জানুয়ারি দ্বিতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করবে কর্তৃপক্ষ। 

জানা যায়, গত ৪ ও ৫ জানুয়ারি দুই দিন প্রথম মেধাতালিকায় থাকা শিক্ষার্থীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিষয় বরাদ্দ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে ৪০৭ জন ভর্তীচ্ছু অংশ নেয়। যা মোট আসনের ১৯ দশমিক ৪৩ শতাংশ। মেধাতালিকায় থাকা ভর্তিচ্ছুদের বড় অংশ সাক্ষাৎকারে অংশ না নেয়ায় পরবর্তী সময়ে আবারও সাক্ষাৎকার নেয়া হয়। ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত চলে তাদের ভর্তি প্রক্রিয়া।
 
এতে বিজ্ঞানভিত্তিক ‘এ’ ইউনিটে ৫৫০টি আসনের মধ্যে ৪৬ জন, কলা, সামাজিক বিজ্ঞান ও আইন অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটে ১ হাজার ৯৫টি আসনের মধ্যে ২১৮ জন ও ব্যবসা প্রশাসন অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটে ৪৫০টি আসনের মধ্যে ৮৬ জন ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন।

খালি আসনগুলোতে ভর্তির জন্য আগামী ১৯ জানুয়ারি দ্বিতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করবে কর্তৃপক্ষ। এই তালিকায় স্থানপ্রাপ্তদের ২৫ জানুয়ারির মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম শেষ করতে হবে। এরপরও আসন খালি থাকলে ২ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করবে কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ে শূন্য আসন, ভর্তি ও এ সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (iu.ac.bd) থেকে জানা যাবে।

ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস - dainik shiksha মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের please click here to view dainikshiksha website