ভোটের লড়াইয়ে এগিয়ে তৃণমূল, টক্কর দিচ্ছে বিজেপি - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

ভোটের লড়াইয়ে এগিয়ে তৃণমূল, টক্কর দিচ্ছে বিজেপি

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে দীর্ঘ এক মাস ধরে চলমান বহুল আলোচিত বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা। আগামী চার বছরের জন্য রাজ্যের ক্ষমতায় কে আসছেন তা নিয়ে সর্বত্ত আলোচনা চলছে। কেউ বলছেন টানা তৃতীয়বারের মতো আবারও ক্ষমতা আসতে চলেছে বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস, আবার অনেকের ধারণা এবার দিদির রাজ্য দখলে নিচ্ছে কেন্দ্রের ক্ষমতাসীন বিজেপি। যদিও পূর্ণাঙ্গ ফলাফল পেতে আরো কয়েকঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে।

আরও পড়ুন : দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন

এদিকে, সর্বশেষ তথ্যমতে সবচেয়ে আলোচিত কেন্দ্র নন্দীগ্রামে এগিয়ে আছেন তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারী। এবার সবার চোখ এই কেন্দ্রটিতে। কারণ, এখানে তার বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বর্তমান রাজ্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। একসময় মমতার সহকর্মী ও ঘনিষ্টজন বলে পরিচিত শুভেন্দু অধিকারী।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, নন্দীগ্রামে প্রথম রাউন্ডের ভোটগ্রহণ শেষে শুভেন্দুর থেকেও ৩ হাজার ভোটে পিছিয়ে পরেছেন মমতা বন্দোপাধ্যায়।

এনডিটিভি জানিয়েছে, মোট ২৯৪ আসনের মধ্যে ইতিমধ্যে ১৬৮টিতে এগিয়ে রয়েছে তৃণমূল ও ১০৯টিতে বিজেপি।

দৈনিক শিক্ষা পরিবারের নতুন সদস্য ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’

বুথফেরত জরিপগুলো বলছে, এই মুহূর্তে প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী দল তৃণমূল ও বিজেপি সেয়ানে সেয়ানে টক্কর দিচ্ছে। কিছু কেন্দ্রে এগিয়ে আছে তৃণমূল, আবার কয়েকটিতে বিজেপি। শেষ পর্যন্ত কে জিতবে, তার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ও স্টাডি সেন্টার বিদ্যমান আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক - dainik shiksha বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ও স্টাডি সেন্টার বিদ্যমান আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক করোনার প্রভাবে শিক্ষক এখন কচু ব্যবসায়ী - dainik shiksha করোনার প্রভাবে শিক্ষক এখন কচু ব্যবসায়ী অনলাইন পরীক্ষা সুফল বয়ে আনবে না : উপাচার্য - dainik shiksha অনলাইন পরীক্ষা সুফল বয়ে আনবে না : উপাচার্য মিতু হত্যা : সাবেক এসপি বাবুল আক্তারকে প্রধান আসামি করে মামলা - dainik shiksha মিতু হত্যা : সাবেক এসপি বাবুল আক্তারকে প্রধান আসামি করে মামলা ঈদের আগে জামা-জুতার টাকা পেল না শিক্ষার্থীরা, উপবৃত্তি ৫০০ টাকায় উন্নীত করার সুপারিশ - dainik shiksha ঈদের আগে জামা-জুতার টাকা পেল না শিক্ষার্থীরা, উপবৃত্তি ৫০০ টাকায় উন্নীত করার সুপারিশ এমপিও কমিটির ভার্চুয়াল সভা ১৭ মে - dainik shiksha এমপিও কমিটির ভার্চুয়াল সভা ১৭ মে শিক্ষক পাবেন পাঁচ হাজার, কর্মচারী আড়াই হাজার টাকা করে - dainik shiksha শিক্ষক পাবেন পাঁচ হাজার, কর্মচারী আড়াই হাজার টাকা করে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত শিক্ষার্থীর পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গেছে - dainik shiksha ২৫ শতাংশ পর্যন্ত শিক্ষার্থীর পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গেছে সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে ‘কওমি মাদরাসায় জাতীয় চেতনা ও সংস্কৃতিবোধ উপেক্ষিত’ - dainik shiksha ‘কওমি মাদরাসায় জাতীয় চেতনা ও সংস্কৃতিবোধ উপেক্ষিত’ please click here to view dainikshiksha website