ভ্যাকসিন নেয়া ‘নৈতিক দায়িত্ব’ : পোপ ফ্রান্সিস - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

ভ্যাকসিন নেয়া ‘নৈতিক দায়িত্ব’ : পোপ ফ্রান্সিস

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

ভ্যাটিকান সিটিতে আগামী সপ্তাহ থেকেই করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হবে। পোপ ফ্রান্সিস এই ভ্যাকসিন নেয়ার অপেক্ষায় বলে জানিয়েছেন। খবর সিএনএন’র।

ইতালির এক টেলিভিশন চ্যানেলে দেয়া সাক্ষাৎকারে ক্যাথলিক চার্চের প্রধান বলেন, ‘ভ্যাকসিন নেয়া একটি নৈতিক দায়িত্ব। এখানে আমরা আগামী সপ্তাহ থেকে ভ্যাকসিন দেয়া শুরু করব, আমিও নেয়ার অপেক্ষায় আছি।‘ রোববার স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৪০ মিনিটে পোপের পুরো সাক্ষাৎকারটি প্রচার হওয়ার কথা রয়েছে।

গত ডিসেম্বরে পোপ বলেছিলেন, ভ্যাকসিন নেয়া নৈতিকভাবে গ্রহণযোগ্য। গর্ভপাতবিরোধী কিছু গোষ্ঠী ভ্যাকসিনের উৎপাদন নিয়ে প্রশ্ন তোলার প্রেক্ষিতে তিনি এ কথা বলেন। এসব গোষ্ঠী দাবি করেছিল, ভ্যাকসিন তৈরিতে ভ্রূণের কোষ ব্যবহার করা হয়।

পোপ বলেন, ‘গর্ভপাতের ভ্রূণ থেকে নেয়া কোষ দিয়ে গবেষণা ও উৎপাদিত কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নেয়া নৈতিকভাবে গ্রহণযোগ্য।‘

প্রকৃতপক্ষে গবেষণাগারে যুগ যুগ ধরে টিস্যু থেকে প্রকৌশলে কোষ তৈরি ও বৃদ্ধি করা হয়। সরাসরি গর্ভপাতের ভ্রুণ থেকে এগুলো তৈরি করা হয় না।

সম্প্রতি বড়দিনের বার্তায় সবার জন্য ভ্যাকসিনের প্রাপ্যতা নিশ্চিতের আহ্বান জানান পোপ ফ্রান্সিস। মহামারি থেকে পরিত্রাণের জন্য দেশগুলোকে সহযোগিতার সঙ্গে কাজ করার অনুরোধ করেন তিনি।

ইতালির টেলিভিশনে দেয়া সাক্ষাৎকারে পোপ যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল ভবনের হামলার নিন্দা জানান। তিনি বলেন, ‘আমি অবাক হয়েছি, কারণ মার্কিন জনগণ গণতন্ত্রের ব্যাপারে খুবই শৃঙ্খলাপূর্ণ। কিন্তু এটাই বাস্তবতা, এমনকি সবচেয়ে পরিণত বাস্তবতার মধ্যেও কিছু সমস্যা থাকে।‘

পোপ আরও বলেন, ‘আমি সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ জানাই যে এটি ঘটেছে এবং আমরা তা ভালোভাবে দেখতে পেরেছি। কারণ এটি মনে রাখা যাবে, তাই না?‘

‘ফেব্রুয়ারির প্রথম বা দ্বিতীয় সপ্তাহে স্কুল খোলার পরিকল্পনা’ - dainik shiksha ‘ফেব্রুয়ারির প্রথম বা দ্বিতীয় সপ্তাহে স্কুল খোলার পরিকল্পনা’ সাংবাদিক মিজানুর রহমান খান রাষ্ট্রের সম্পদ ছিলেন : স্মরণসভায় বক্তারা - dainik shiksha সাংবাদিক মিজানুর রহমান খান রাষ্ট্রের সম্পদ ছিলেন : স্মরণসভায় বক্তারা সব মাদরাসা খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে, গাইড লাইন প্রকাশ - dainik shiksha সব মাদরাসা খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে, গাইড লাইন প্রকাশ শিক্ষকদের বেতন ইএফটি করতে ৪ লাখ টাকা ‘ঘুষ’ - dainik shiksha শিক্ষকদের বেতন ইএফটি করতে ৪ লাখ টাকা ‘ঘুষ’ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা পেলে এইচএসসির ফল যেকোন মুহূর্তে - dainik shiksha মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা পেলে এইচএসসির ফল যেকোন মুহূর্তে দ্রুততম সময়ে অনলাইনে শিক্ষকদের বদলি শুরু করতে চাচ্ছি : গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha দ্রুততম সময়ে অনলাইনে শিক্ষকদের বদলি শুরু করতে চাচ্ছি : গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী প্রতি সপ্তাহে আয়রন ট্যাবলেট খাওয়ানো হবে সব ছাত্রীকে - dainik shiksha প্রতি সপ্তাহে আয়রন ট্যাবলেট খাওয়ানো হবে সব ছাত্রীকে শিক্ষক- কর্মকর্তাদের টিকা দেয়া হবে - dainik shiksha শিক্ষক- কর্মকর্তাদের টিকা দেয়া হবে please click here to view dainikshiksha website