মাদরাসার শিক্ষকরাও ইএফটিতে বেতন পাবেন - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

মাদরাসার শিক্ষকরাও ইএফটিতে বেতন পাবেন

নিজস্ব প্রতিবেদক |

এমপিওভুক্ত মাদরাসার শিক্ষক-কর্মচারীরাও ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফারের (ইএফটি) মাধ্যমে প্রতিমাসে বেতনভাতা পাবেন। প্রতিমাসে সরকারি কোষাগার থেকে শিক্ষক-কর্মচারীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অটোমেটিক বেতন চলে আসবে। সরকার এ সিদ্ধান্তে পৌঁছালেও তা বাস্তবায়নে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। মাদরাসা শিক্ষকদের এমপিও সার্ভার মেমিস এখনো প্রস্তুত হয়নি। তাই, শিক্ষা প্রশাসনের কর্মকর্তারা কেউ বলতে পারছেন না মাদরাসার শিক্ষক-কর্মচারীরা কবে নাগাদ ইএফটিতে বেতন পাবেন। 

এদিকে এমপিওভুক্ত স্কুল কলেজ শিক্ষকদের ইএফটিতে বেতন দিতে তথ্য সংশোধন চলছে। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষক কমচারী তথ্য অন্তুর্ভুক্ত করা হবে। এ পরিস্থিতে মাদরাসা শিক্ষকরা দেশের শিক্ষা বিষয়ক একমাত্র ডিজিটাল পত্রিকা দৈনিক শিক্ষাডটকমের কাছে তাদের বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্ত জানতে চাচ্ছেন। এ পরিস্থিতে মাদরাসা শিক্ষকদের ইএফটির বিষয়ে অধিদপ্তর সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এসব তথ্য জানিয়েছে।  

অধিদপ্তর জানায়, মাদরাসার শিক্ষক-কর্মচারীদের ইএফটিতে বেতন ভাতা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে, তথ্য অন্তর্ভুক্তির জন্য মেমিস সার্ভার এখনো প্রস্তুত হয়নি। কবে নাগাদ তা হবে সে বিষয়েও কেউ জানেন না। 

জানা গেছে, একটি প্রকল্পের মাধ্যমে মেমিস সফটওয়্যারটির রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়। সে প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। তাই, শিক্ষকদের তথ্য অন্তর্ভুক্তির জন্য সফটওয়্যার প্রস্তুত করা হয়নি। অধিদপ্তর থেকে মেমিসে প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ানোর প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। সে প্রস্তাব অনুমোদন পেলে মেমিস সফটওয়্যার প্রস্তুত করা যাবে। তবে, কবে নাগাদ মেমিসের প্রকল্প অনুমোদন বা সফটওয়্যার প্রস্তুত হবে সে বিষয়ে সুস্পষ্ট কোন ধারণা দিতে পারেননি।

এদিকে সারাদেশের এমপিওভুক্ত মাদরাসার শিক্ষক-কর্মচারীরা দ্রুততম সময়ে ভোগান্তিহীনভাবে তথ্য অন্তর্ভুক্তি শুরু করার দাবি জানিয়েছেন। 

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

উন্নয়নশীল দেশের কাতারে বাংলাদেশ - dainik shiksha উন্নয়নশীল দেশের কাতারে বাংলাদেশ স্কুল-কলেজ খোলা এখনও ঝুঁকিপূর্ণ, মত আওয়ামী লীগ নেতাদের - dainik shiksha স্কুল-কলেজ খোলা এখনও ঝুঁকিপূর্ণ, মত আওয়ামী লীগ নেতাদের লেখক মুশতাকের মৃত্যু, তদন্ত কমিটি গঠন - dainik shiksha লেখক মুশতাকের মৃত্যু, তদন্ত কমিটি গঠন ডিজিটাল আইনকে কবরে দেয়ার সময় এসেছে : ডা. জাফরুল্লাহ - dainik shiksha ডিজিটাল আইনকে কবরে দেয়ার সময় এসেছে : ডা. জাফরুল্লাহ প্রাথমিকের ৯ মাসের সিলেবাস প্রকাশ - dainik shiksha প্রাথমিকের ৯ মাসের সিলেবাস প্রকাশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত পরীক্ষার সূচি প্রকাশ - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত পরীক্ষার সূচি প্রকাশ পরীক্ষার দাবিতে তিন দিনের আল্টিমেটাম জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের - dainik shiksha পরীক্ষার দাবিতে তিন দিনের আল্টিমেটাম জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মেডিকেলের প্রশ্নফাঁসের গুজব ছড়ালে আইনি ব্যবস্থা, অধিদপ্তরের সতর্কবার্তা - dainik shiksha মেডিকেলের প্রশ্নফাঁসের গুজব ছড়ালে আইনি ব্যবস্থা, অধিদপ্তরের সতর্কবার্তা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রধান শিক্ষকের করা মামলায় সুপার গ্রেফতার - dainik shiksha ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রধান শিক্ষকের করা মামলায় সুপার গ্রেফতার please click here to view dainikshiksha website