মাদরাসায় শিক্ষক পদে আবেদন করতে পারছেন না সনাতন ধর্মাবলম্বীরা - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

মাদরাসায় শিক্ষক পদে আবেদন করতে পারছেন না সনাতন ধর্মাবলম্বীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

সারাদেশে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫৪ হাজারের বেশি শিক্ষক পদে নিয়োগে আবেদন শুরু হয়েছে। কিন্তু সনাতন ধর্মাবলম্বী প্রার্থীরা এমপিওভুক্ত মাদরাসার জেনারেল বিষয়ের শিক্ষক পদে আবেদন করতে পারছেন না বলে অভিযোগ করেছেন। সারাদেশের সনাতন ধর্মাবলম্বী নিবন্ধিত প্রার্থীরা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, মাদরাসার জেনারেল পদগুলোর শিক্ষক হতে ধর্মের কোন বাধ্যবাধকতা নেই। বহুবছর ধরে সরকার নিয়ন্ত্রিত আলিয়া মাদরাসার সাধারণ বিষয়ের শিক্ষক পদে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা কর্মরত। কিন্তু এবারই প্রথম তারা আলিয়া মাদরাসার শিক্ষক পদে আবেদন করতে পারছেন না।

এ বিষয়ে দৈনিক শিক্ষার প্রশ্নের এক জবাবে এনটিআরসিএর কর্মকর্তারা বলছেন, এমনটি হওয়ার কথা নয়। তাই, আবেদন প্রক্রিয়ার দায়িত্বে থাকা প্রতিষ্ঠান টেলিটকের কর্মকর্তাদের সাথে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু করেছেন তারা।  

গত ৩০ মার্চ বিভিন্ন বেসরকারি স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানে ৫৪ হাজারের বেশি শিক্ষক পদে নিয়োগ সুপারিশ করতে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। ৪ এপ্রিল থেকে অনলাইনে আবেদন গ্রহণ শুরু হয়েছে। তবে, সনাতন ধর্মাবলম্বী প্রার্থীরা বিভিন্ন মাদরাসার জেনারেল শিক্ষক পদে আবেদন করতে পারছেন না।  

দৈনিক শিক্ষায় প্রার্থীদের পাঠানো স্ক্রিনশট পর্যালোচনা করে দেখে গেছে, প্রার্থীরা আবেদন করলে সার্ভার আবেদন নিচ্ছে না। সার্ভারের দেখানো হচ্ছে, ‘শুধু মুসলিম প্রার্থীরা এসব পদে আবেদন করতে পারবেন।’

প্রার্থীদের কেউ কেউ অভিযোগ করে দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, নীতিমালায় বাধ্যবাধকতা নেই জেনারেল শিক্ষক পদে আবেদনে। আমরা নিবন্ধিতও হয়েছি। তবে কেন আবেদন করতে পারছি না। প্রার্থীদের কেউ কেউ অভিযোগ করেন, বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেও অনেকে হেনস্তার শিকার হচ্ছেন। প্রার্থীদের পোস্টগুলোতে আক্রমণাত্মক বিভিন্ন কমেন্ট আসছে। তারা সন্দেহ করছেন সফটওয়্যার তৈরি ও আবেদন গ্রহণ প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত কেউ সরকারকে বিব্রত করতে এমনটা করেছেন। 

বিষয়টি নিয়ে এনটিআরসিএর কর্মকর্তাদের কাছে জানতে চাইলে তারাও বিষ্ময় প্রকাশ করেছেন। মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) দুপুরে এনটিআরসিএর সচিব এ টি এম মাহবুব-উল-করিম দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, এমনটিতো হওয়ার কথা না। আমরা বিষয়টি নিয়ে টেলিটকের সাথে আলোচনা করবো। যতদ্রুত সম্ভব এ সমস্যা সমাধানের নির্দেশনা দেয়া হবে। তারা সার্ভারে বিষয়টি ঠিক করে দেবেন।   

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষা পেছাচ্ছে - dainik shiksha ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষা পেছাচ্ছে মামুনুলের বিরুদ্ধে ১৭ মামলা - dainik shiksha মামুনুলের বিরুদ্ধে ১৭ মামলা পেছাতে পারে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা - dainik shiksha পেছাতে পারে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা ‘আমি মেডিকেলে চান্স পেয়েছি তাই ডাক্তার, তুই পাসনি তাই পুলিশ’ - dainik shiksha ‘আমি মেডিকেলে চান্স পেয়েছি তাই ডাক্তার, তুই পাসনি তাই পুলিশ’ লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়তে পারে - dainik shiksha লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়তে পারে উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু তুখোড় গণিত শিক্ষক আব্দুল গাফ্ফারের দিন কাটে পথে পথে - dainik shiksha তুখোড় গণিত শিক্ষক আব্দুল গাফ্ফারের দিন কাটে পথে পথে ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ব্যাংকে - dainik shiksha ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ব্যাংকে সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে please click here to view dainikshiksha website