মাধ্যমিক শিক্ষার আলাদা অধিদপ্তরে সমন্বয়হীনতার শঙ্কা মন্ত্রীর - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

মাধ্যমিক শিক্ষার আলাদা অধিদপ্তরে সমন্বয়হীনতার শঙ্কা মন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক |

মাধ্যমিকের ও উচ্চ শিক্ষা আলাদা করে স্বতন্ত্র মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর গঠন করা হলে সমন্বয়হীন পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এক ডিসির করা আলাদা মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর গঠনের প্রস্তাবের বিষয়ে তিনি বলেছেন, এ বিষয়টা নিয়ে আরও অনেক ভেবে-চিন্তে দেখার বিষয় রয়েছে।

তিন দিনে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের প্রথম দিন মঙ্গলবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে শিক্ষা বিষয়ক কার্য অধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা জানান।

ডিসিরা মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষার জন্য আলাদা অধিদপ্তর করা প্রস্তাবের বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আপনারাই (সাংবাদিক) কিন্তু বার বার সমন্বয়ের কথা বলছেন, প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের মধ্যে সমন্বয়ের কথা বলছেন। আমার মনে হয় অনেক বেশি ভাগ করলে সেই সমন্বয়টা আরও বরং কমতে পারে। কাজেই এ বিষয়টা নিয়ে আমাদের আরও অনেক ভেবে-চিন্তে দেখার বিষয় রয়েছে।

জানা গেছে, স্বতন্ত্র মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব করেছিলেন নওগাঁর জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের কাজের চাপ বেশি হওয়ায় তা বাস্তবায়নে সমস্য হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের জন্য আলাদা অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব করেছেন। তিনি মনে করছেন, পৃথক অধিদপ্তর হলে সেবা দেয়া ও মাঠ পার্যায়ের কার্যক্রম মনিটরিং সহজ হবে।

জাতীয় শিক্ষা নীতিতেও স্বতন্ত্র মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কথা বলা আছে। সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের শিক্ষকরা একাধিকবার মাধ্যমিক পর্যায়ে স্বতন্ত্র মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের দাবি জানিয়েছেন। কিন্তু বিভিন্ন সরকারি কলেজগুলোকে কর্মরত বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তারা এর বিরোধিতা করেছেন। তারা অধিদপ্তরের অখণ্ডতা রক্ষার দাবি জানিয়েছেন। শিক্ষা ক্যাডারদের মতে, অধিদপ্তর বিভক্ত হলে সেখানে শিক্ষা ক্যাডারদের পদ কমিয়ে দেয়া হয়। ফলে প্রশাসন ক্যাডারদের হাতে ক্ষমতা চলে যায়। এতে শিক্ষা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়ে। 

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

দৈনিক শিক্ষাডটকম-এর যুগপূর্তির ম্যাগাজিনে লেখা আহ্বান - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষাডটকম-এর যুগপূর্তির ম্যাগাজিনে লেখা আহ্বান ৫০ প্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করেনি - dainik shiksha ৫০ প্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করেনি ১ হাজার ৩৩০ প্রতিষ্ঠানে সবাই পাস - dainik shiksha ১ হাজার ৩৩০ প্রতিষ্ঠানে সবাই পাস পৌনে দুই লাখ জিপিএ-৫ - dainik shiksha পৌনে দুই লাখ জিপিএ-৫ এইচএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে - dainik shiksha এইচএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে এইচএসসি বিএম-ভোকেশনালে পাসের হার ৯৪ শতাংশের বেশি, ৭ হাজার ১০৪ জিপিএ-৫ - dainik shiksha এইচএসসি বিএম-ভোকেশনালে পাসের হার ৯৪ শতাংশের বেশি, ৭ হাজার ১০৪ জিপিএ-৫ আলিমে পাসের হার ৯২ শতাংশের বেশি, সাড়ে ৯ হাজার জিপিএ-৫ - dainik shiksha আলিমে পাসের হার ৯২ শতাংশের বেশি, সাড়ে ৯ হাজার জিপিএ-৫ শুধু এইচএসসিতে পাসের হার ৮৪ দশমিক ৩১ শতাংশ - dainik shiksha শুধু এইচএসসিতে পাসের হার ৮৪ দশমিক ৩১ শতাংশ please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0030930042266846