মিরপুর সাইন্স কলেজে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান - দৈনিকশিক্ষা

মিরপুর সাইন্স কলেজে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান

দৈনিক শিক্ষাডটকম প্রতিবেদক |

রাজধানীর মিরপুর সাইন্স কলেজের ২০২২-২৩ সেশনের শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন রিপনের সভাপতিত্বে পল্লবীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠান হয়। 

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কলেজের উপদেষ্টা এবং অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. জাহাঙ্গীর আলম। বিশেষ অতিথি কলেজের নির্বাহী কমিটির সভাপতি বাবলু সরকার, উপদেষ্টা খলিলুর রহমান, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য শিপন আলী এবং একাডেমিক উপদেষ্টা এইচএম বেলাল নীল।

অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী আফসানা আফরোজ মীম, রাবেয়া রহমান আভা, শাহরিয়ার কবির সামির ও রাহাত হোসেন।

প্রধান অতিথি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, কলেজের শুরু থেকেই তিনি এই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সম্পৃক্ত আছেন। শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার বিষয়ে সিরিয়াস হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এইচএসসি লেভেল জীবনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়। এখান থেকেই মানুষের ভবিষ্যৎ জীবনে কে কী হবেন তা চূড়ান্ত হয়ে যায়।

তিনি বিদায়ী শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত মোবাইল ফোন ব্যবহার থেকে বিরত থাকারও পরামর্শ দেন।

অভিভাবকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা সবসময় সন্তানদের সঙ্গে বন্ধুসুলভ আচরণ করবেন। যারা দুর্বল তাদের প্রতি বিশেষ খেয়াল ও যত্ন নেবেন। বিদায়ী শিক্ষার্থীদের জন্য শুভ কামনাও জানান তিনি।   

  

কলেজ অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন রিপন বলেন, এইচএসসি পরীক্ষা একজন শিক্ষার্থীর জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ সময়। পরীক্ষার বাকী মাত্র কয়েকদিন। এই দিনগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ তাই এই সময়কে কাজে লাগাতে হবে।  

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন সভাপতি, প্রতিষ্ঠাতা ও বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকেরা। পরে ১৬১ জন বিদায়ী শিক্ষার্থীকে ক্রেস্ট দেয়া হয়।

ছাত্রদলের ২৬০ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা - dainik shiksha ছাত্রদলের ২৬০ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ছাত্রলীগের মাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রী কওমি মাদরাসার ঐতিহ্য নষ্ট করতে চান - dainik shiksha ছাত্রলীগের মাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রী কওমি মাদরাসার ঐতিহ্য নষ্ট করতে চান ঈদে চার বিভাগে বেশি বৃষ্টিপাত হতে পারে - dainik shiksha ঈদে চার বিভাগে বেশি বৃষ্টিপাত হতে পারে সব সময় গাছ লাগানো আমাদের নীতি ছিলো: প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha সব সময় গাছ লাগানো আমাদের নীতি ছিলো: প্রধানমন্ত্রী কখনো বিদ্যালয়ে যায়নি তিন কোটি মানুষ - dainik shiksha কখনো বিদ্যালয়ে যায়নি তিন কোটি মানুষ বিসিএস ছেড়ে নন-ক্যাডারে যোগ দিলেন কর্মকর্তা - dainik shiksha বিসিএস ছেড়ে নন-ক্যাডারে যোগ দিলেন কর্মকর্তা ১৯ জন শিক্ষক বেতন পান না ৭ মাস ধরে - dainik shiksha ১৯ জন শিক্ষক বেতন পান না ৭ মাস ধরে দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে - dainik shiksha কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা কলেজগুলোর নাম এক নজরে - dainik shiksha র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা কলেজগুলোর নাম এক নজরে please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0052309036254883