মুখে মাস্ক ছাড়াই প্রধান শিক্ষকের কাণ্ড! - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

মুখে মাস্ক ছাড়াই প্রধান শিক্ষকের কাণ্ড!

নোয়াখালী প্রতিনিধি |

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় ১৭ মাস ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিলো। রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) খুলে দেওয়া হয়েছে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

বিদ্যালয় খোলার প্রথম দিনে ছাত্র-ছাত্রীদের শরীরে তাপমাত্রা নির্ণয় করে বিদ্যালয়ে প্রবশে করতে দিচ্ছেন প্রধান শিক্ষক। মুখে মাস্ক ব্যবহার না করে এই দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

পাশে অন্য সহকারী শিক্ষক মোবাইলে সেই ছবি তোলে সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট দিয়েছেন। ক্যাপশনে লিখেছেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশিকা। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি যে শিক্ষককেও মেনে চলতে হবে সেই বিষয়ে খেয়াল ছিলনা প্রধান শিক্ষকের।

নোয়াখালী হাতিয়া উপজেলার পৌরসভার ওচখালী আলেয়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: ইকবাল জানিয়েছন, ব্যস্ততার মাঝে খেয়াল করেননি যে নিজের মুখে মাস্ক নেই। তবে সামাজিক মাধ্যমে দেওয়া সঠিক হয়নি।

একই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছাড়াও একই দায়িত্ব পালন করেন দপ্তরি নেছার উদ্দিন। ছবিতে দেখা যায় নেছার উদ্দিনের মুখে মাস্ক ছাড়াই বিদ্যালয়ে আসা ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে জীবানুনাশক দিচ্ছেন।

একই চিত্র হাতিয়া উপজেলা সদরের একেবারে সন্নিকটে চরকৈলাশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। সকাল থেকে বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে দাঁড়িয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের তাপমাত্র পরিমাপ করছেন একজন সহকারী শিক্ষক। ভিতরে শ্রেণিকক্ষে ছাত্র-ছাত্রীদের মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করছেন অন্য শিক্ষকরা। এসময় শ্রেণিকক্ষে দায়িত্ব পালন করা আতিকুল ইসলাম নামে এক সহকারী শিক্ষকের মুখেও ছিলনা মাস্ক।

ছবি : সংগ্রহীত

দীর্ঘ ১৮ মাস পর সরকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা দিয়েছেন। এক্ষেত্রে বেশ কিছু নিয়ম মেনে চলার উপর গুরুত্ব দিয়েছেন। কিন্তু এসব নির্দেশনা বাস্তবায়নের দায়িত্ব যাদের উপর তারাই করছে চরম অবহেলা। এসব বিষয়ে আলাপ হয় হাতিয়া উপজেলা প্রথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: আব্দুল হান্নান পাটোয়ারীর সাথে।

তিনি জানিয়েছেন, শিক্ষকদের কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিদ্যালয়ের পাঠদানে কার্যক্রম চালানোর জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কিন্তু এর পরেও কেউ যদি এই আদেশ অমান্য করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান হোসেন বলেন, গত শনিবার হাতিয়া উপজেলার সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষদের নিয়ে মিটিং করা উপজেলা পরিষদ হল রুমে। এসময় বিদ্যালয়ে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করার ব্যাপারে জোরালো নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এর পরেও কেউ তা অমান্য করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ১ হাজার ৮৮ শিক্ষক - dainik shiksha উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ১ হাজার ৮৮ শিক্ষক প্রাথমিকে শিক্ষকসহ অন্যান্য পদ ‘বাড়ছে’ - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষকসহ অন্যান্য পদ ‘বাড়ছে’ ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষাবিমা’ চার্জমুক্ত রাখার নির্দেশ - dainik shiksha ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষাবিমা’ চার্জমুক্ত রাখার নির্দেশ এমপিওভুক্ত হলেন দেড় হাজার শিক্ষক-কর্মচারী - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হলেন দেড় হাজার শিক্ষক-কর্মচারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এখনো সংক্রমণের খবর আসেনি : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এখনো সংক্রমণের খবর আসেনি : শিক্ষামন্ত্রী স্বরাষ্টমন্ত্রীর সঙ্গে মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান নেতাদের মত বিনিময় - dainik shiksha স্বরাষ্টমন্ত্রীর সঙ্গে মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান নেতাদের মত বিনিময় শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী ডিসেম্বর পর্যন্ত ভোকেশনাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ডিসেম্বর পর্যন্ত ভোকেশনাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা বিএড স্কেল পেলেন ৫৮ শিক্ষক - dainik shiksha বিএড স্কেল পেলেন ৫৮ শিক্ষক please click here to view dainikshiksha website