মেডিকেলে ভর্তিতে ব্যর্থ হয়ে ৩ ছাত্রীর আত্মহত্যা - ভর্তি - Dainikshiksha

মেডিকেলে ভর্তিতে ব্যর্থ হয়ে ৩ ছাত্রীর আত্মহত্যা

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

ভারতের তামিলনাড়ুতে মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে না পেরে আত্মহত্যা করেছেন তিন কলেজছাত্রী।

বুধবার (৫ জুন) ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি কাম এনট্রেন্স টেস্ট (এনইইটি) পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের তারা আত্মহত্যা করেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো।

পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার (৬ জুন) চেন্নাইয়ের ভিল্লুপুরাম শহরে মনিষা (১৮) নামে জেলে সম্প্রদায়ের এক মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি দ্বিতীয়বারের মতো এনইইটি পরীক্ষায় ব্যর্থ হওয়ায় ঘরে গলায় দঁড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে জানা গেছে।

এর আগে, ফল প্রকাশের পর রাজ্যের তিরুপপুরে রিতুশ্রী ও পাট্টুকোট্টাই শহরে বৈশ্য নামে দুই ছাত্রী আত্মহত্যা করেন।

তিন ছাত্রীর পরিবারই তাদের ব্যর্থতার জন্য পরীক্ষার প্রশ্ন কঠিন হওয়াকে দায়ী করেছেন।

এসব ঘটনায় কারও কাছেই ‘সুইসাইড নোট’ পাওয়া যায়নি জানিয়েছে পুলিশ।

এ নিয়ে, গত দু’বছরে এনইইটি পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়ে অন্তত ছয় শিক্ষার্থী আত্মহত্যার ঘটনা ঘটলো। 

একের পর এক আত্মহত্যার ঘটনায় মেডিক্যালে ভর্তিতে এনইইটি পদ্ধতি বাতিলে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে স্থানীয় ছাত্র সংগঠনগুলো।

তবে, বিজেপি সরকার এটি পুনর্মূল্যায়নের প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছে। বিভিন্ন কারণে তামিলনাড়ু সরকার মেডিক্যালে ভর্তির এ পদ্ধতি প্রায় নয় বছর বন্ধ রেখেছিল।

দ্রাভিডা মুন্নেত্রা কাঝাঘাম (টিএমকে) প্রধান এম কে স্টালিন জানিয়েছেন, তার দলের সংসদ সদস্যরা বিষয়টি পার্লামেন্টে উত্থাপন করবেন। রাজ্যের কংগ্রেস ও বাম নেতারাও এ পরীক্ষা পদ্ধতি পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছেন। 

তামিলনাড়ুর বিধায়ক ও আম্মা মাক্কাল মুন্নেত্রা কাঝাঘাম (এএমএমকে) প্রধান টিটিভি ধিনাকরণ বলেন, আত্মহত্যা করা ছাত্রীদের একজন আমার দলের জেলে ইউনিয়নের নেতার মেয়ে। এনইইটি সমস্যা সমাধানে এএমএমকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে বলেও জানান বিধায়ক।

আপাতত ক্লাস সপ্তাহে ১ দিন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha আপাতত ক্লাস সপ্তাহে ১ দিন : শিক্ষামন্ত্রী পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশে আইন পাস, দু’দিনেই প্রজ্ঞাপন - dainik shiksha পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশে আইন পাস, দু’দিনেই প্রজ্ঞাপন ৯ম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে একাট্টা হচ্ছে সব সরকারি কর্মচারী সংগঠন - dainik shiksha ৯ম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে একাট্টা হচ্ছে সব সরকারি কর্মচারী সংগঠন নো মাস্ক নো স্কুল, ক্লাস হবে শিফটে : দুশ্চিন্তায় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান - dainik shiksha নো মাস্ক নো স্কুল, ক্লাস হবে শিফটে : দুশ্চিন্তায় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাংবাদিকতার অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছিলেন মিজানুর রহমান : স্মরণসভায় জেলা জজ - dainik shiksha সাংবাদিকতার অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছিলেন মিজানুর রহমান : স্মরণসভায় জেলা জজ প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে, দাবি প্রতিমন্ত্রীর - dainik shiksha প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে, দাবি প্রতিমন্ত্রীর মাদরাসা শিক্ষার সমস্যার সমাধান দ্রুতই : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষার সমস্যার সমাধান দ্রুতই : শিক্ষা উপমন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইড লাইন প্রকাশ, তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চ - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইড লাইন প্রকাশ, তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চ ক্লাসরুমে সর্বোচ্চ ১৫ শিক্ষার্থী, প্রতি বেঞ্চে ১ জন - dainik shiksha ক্লাসরুমে সর্বোচ্চ ১৫ শিক্ষার্থী, প্রতি বেঞ্চে ১ জন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে please click here to view dainikshiksha website