রাজশাহী জেলায় করোনা শনাক্তে রেকর্ড - করোনা আপডেট - দৈনিকশিক্ষা

রাজশাহী জেলায় করোনা শনাক্তে রেকর্ড

রাজশাহী প্রতিনিধি |

রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ও এতে মৃত্যু আগের দিনের তুলনায় কমেছে। তবে রাজশাহী জেলায় শনাক্ত রোগীর সংখ্যা আগের যে কোনো দিনের চেয়ে বেশি হয়েছে।

রাজশাহী বিভাগে গতকাল মঙ্গলবার সকাল আটটা থেকে আজ বুধবার সকাল আটটা পর্যন্ত করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৬৪১ জনের। তার মধ্যে শুধু রাজশাহী জেলায় শনাক্ত হয়েছে ৩৫৩ জন। এক দিনে জেলায় এটিই সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। 

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের আট জেলায় করোনায় আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১২ জনের মৃত্যু এবং সর্বোচ্চ ৬৭৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। নমুনা শনাক্তের হার ছিল ১৬ দশমিক ২৬ শতাংশ। 

গত ২৪ ঘণ্টায় এই হার কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ দশমিক ৫৩ শতাংশে। আজ দুপুরে রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক নাজমা আক্তার স্বাক্ষরিত প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

নতুন ৬৪১ জনকে নিয়ে বিভাগে করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯ হাজার ৭৪৫। 

নতুন শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শনাক্ত হয়েছে নওগাঁয় ৮৮ জন। এ ছাড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৬৫ জন, নাটোরে ৪৪ জন, জয়পুরহাটে ৪২ জন, বগুড়ায় ২৩ জন, সিরাজগঞ্জে ১৩ জন ও পাবনায় ১৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বিভাগে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬১৬। গত ২৪ ঘণ্টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নাটোরে দুজন করে এবং রাজশাহী, বগুড়া ও সিরাজগঞ্জে একজন করে মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদন অনুযায়ী বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১১০ জন। এ নিয়ে বিভাগে মোট সুস্থ হলেন ৩২ হাজার ৬৪২ জন। বর্তমানে বিভাগের ৮ জেলায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৪ হাজার ১২৮ জন। এর মধ্যে ৪১ জন ভর্তি হয়েছেন গত ২৪ ঘণ্টায়।

সহকারী পরিচালক নাজমা আক্তার বলেন, ‘এখনই বলা যাচ্ছে না করোনার পিক টাইম যাচ্ছে কি না। বিভাগের কোনো কোনো জেলায় কিছুদিন আগে ৬০ শতাংশের বেশি শনাক্ত হয়েছিল। এখন কিছুটা কমেছে। তবে সংক্রমণ আবার বাড়তেও পারে। করোনাবিরোধী জনসচেতনতা বাড়াতে হবে। বিভাগের সব জেলায় র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা সংখ্যা বাড়ানোর চেষ্টা করছেন।’ 

৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু - dainik shiksha ৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! - dainik shiksha এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ - dainik shiksha বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! - dainik shiksha ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি - dainik shiksha নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ - dainik shiksha উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ please click here to view dainikshiksha website