রাজশাহী বোর্ডে সেরা চাঁপাইনবাবগঞ্জ, জিপিএ ফাইভে শীর্ষে বগুড়া - পরীক্ষা - দৈনিকশিক্ষা

রাজশাহী বোর্ডে সেরা চাঁপাইনবাবগঞ্জ, জিপিএ ফাইভে শীর্ষে বগুড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক |

রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ৮টি জেলার মধ্যে এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হারে সেরা চাঁপাইনবাবগঞ্জ। এই জেলায় পাসের হার ৯৫ দশমিক ৬৪ শতাংশ। আর ৯৫ দশমিক ৪৭ শতাংশ পাসের হার নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বগুড়া জেলা। তবে, জিপিএ ফাইভের হিসেবে বগুড়া জেলা শিক্ষাবোর্ডের শীর্ষ অবস্থানে আছে।

বোর্ডের তৃতীয় স্থানে রাজশাহী জেলা। এই জেলায় পাসের হার ৯৫ দশমিক ৪ শতাংশ। এছাড়া পাসের দিক থেকে সব শেষ অবস্থানে রয়েছে পাবনা জেলা। এই জেলায় পাসের হার ৯৩ দশমিক ৮৭ শতাংশ।


 
রাজশাহী শিক্ষাবোর্ড সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহী জেলায় ৩২ হাজার ৭১১ জন এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৮৩৮ জন শিক্ষার্থী। পাসের দিক থেকে ছেলেরা ৯৪ দশমিক ৪০ ও মেয়েরা ৯৫ দশমিক ৭৮ শতাংশ। সেই হিসেবে মেয়েদের পাসের হার বেশি। 

নবাবগঞ্জ জেলায় ১৬ হাজার ৪২৭ জন এই পরীক্ষায় অংশ নেয়। পাস করেছে ১৫ হাজার ৭১১ জন। এছাড়া জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ১৪৭ জন শিক্ষার্থী।

নাটোর জেলা থেকে ১৮ হাজার ১৪৩ জন এসএসসি পরীক্ষায় দেয়। পাসের হার ৯৪ দশমিক ৯২ শতাংশ। পাস করেছে ১৭ হাজার ২২১ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ হাজার ৮৪২ জন শিক্ষার্থী। 

নওগাঁ থেকে ২৫ হাজার ৮২৯ জন এসএসসি পরীক্ষায় দেয়। পাসের হার ৯৪ দশমিক ৩১ শতাংশ। পাস করেছে ২৪ হাজার ৩১৪ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ৩৭৩ জন শিক্ষার্থী।

পাবনায় ৩০ হাজার ১৩৭ জন এসএসসি পরীক্ষায় দেয়। পাস করেছে ২৮ হাজার ২৮৯ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ৪৪০ জন শিক্ষার্থী। 

সিরাজগঞ্জে ৩৮ হাজার ৫৬৫ জন এসএসসি পরীক্ষায় দেয়। পাসের হার ৯৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ। পাস করেছে ৩৬ হাজার ৩৮৭ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৩৫৩ জন শিক্ষার্থী। 

বগুড়া থেকে ৩৫ হাজার ৩৭৪ জন এসএসসি পরীক্ষায় দেয়। পাস করেছে ৩৩ হাজার ৭৭২ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ হাজার ১৪২ জন শিক্ষার্থী। 

জায়পুরহাট থেকে ৯ হাজার ১২৮ জন এসএসসি পরীক্ষায় দেয়। পাসের হার ৯৪ দশমিক ৪৭ শতাংশ। পাস করেছে ৮ হাজার ৬২৩ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ হাজার ৫৭৪ জন শিক্ষার্থী।

ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস - dainik shiksha মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের please click here to view dainikshiksha website