রাবিতে বেগম রোকেয়ার ম্যুরাল-স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

রাবিতে বেগম রোকেয়ার ম্যুরাল-স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

রাবি প্রতিনিধি |

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে রোকেয়া হলে বেগম রোকেয়ার ম্যুরাল উদ্বোধন করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিকেল চারটায় রোকেয়া হলের প্রবেশপথের পাশের দেয়ালে ম্যুরাল উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার। একই সময় রোকেয়া স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, ১৯৮০ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ে রোকেয়া হল প্রতিষ্ঠা করা হয়। বেগম রোকেয়ার ম্যুরালটি বিপ্লব দত্ত নির্মাণ করেন। ম্যুরাল উদ্বোধনের পর অতিথিরা রোকেয়া স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন। এতে বেগম রোকেয়া বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকসহ অনেকের লেখা রয়েছে।

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ইমেরিটাস অধ্যাপক অরুণ কুমার বসাক বলেন, ‘বেগম রোকেয়া না থাকলে আজকে এই হলটিও হতো না, এখানে থাকা ভদ্রমহিলারাও হয়তো থাকতেন না। রানি রাসমণি ও বেগম রোকেয়ার অনেক মিল রয়েছে। রাসমণির প্রায় ৭৫ বছর পর বেগম রোকেয়া জন্মগ্রহণ করেন। তিনি অনেক অসমাপ্ত কাজ করেছেন। তিনি পর্দার ভুল ব্যাখ্যা মানেননি। আমাদের দেশে দেশমাতৃকা, মাতৃভাষা ও গর্ভধারিণী মা—তিনটিই খুব অবহেলিত। এ ক্ষেত্রে সমাজ, ধর্ম, কিংবা দর্শনের কোনো শিক্ষাই ঠিকমতো চলছে না।’

অরুণ কুমার বসাক আরও বলেন, ‘লোভ বর্তমানে সর্বগ্রাসী হয়ে উঠেছে। একে আমি, যাকে বলে, ‘শয়তান’ হিসেবে চিহ্নিত করেছি। আমাদের সবাইকে লোভ থেকে বিরত থাকতে হবে। এটি আমাদের সব গুণ নষ্ট করে দিচ্ছে।’

 বিশিষ্ট রবীন্দ্র গবেষক ও অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক সনৎকুমার সাহা বলেন, ‘রোকেয়ার অবদান ও সংগ্রাম কেবল স্মরণীয় নয়, অনুকরণীয়। তাঁর দানে বাংলা ভাষা ও বাংলার নারীরা উপকৃত হয়েছেন। বাংলা সাহিত্যের মধ্যেও রোকেয়ার গদ্য সর্বাগ্রে গণ্য। বিদ্যাসাগর ও রোকেয়ার প্রতি সব বাঙালি কৃতজ্ঞ। তাঁর নামের মর্যাদা রাখতে চাইলে তাঁর লক্ষ্য ও কাজকে স্মরণ করতে হবে।’

ছবি : সংগ্রহীত

এ সময় উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই শিক্ষার প্রতি বেগম রোকেয়ার প্রবল আগ্রহ ছিল। বিশেষ করে তাঁরা দুই বোন—বেগম রোকেয়া ও করিমুন্নেছার। বেগম রোকেয়া অনেক রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে নারীশিক্ষার পথ প্রদর্শন করে গেছেন। এই ম্যুরালের মাধ্যমে যাঁরা এখানে রোকেয়া হলে আসবেন, তাঁরা তাঁর ব্যাপারে জানতে পারবেন। এমন মনীষীদের স্মরণ করা অত্যন্ত প্রয়োজন।’

রোকেয়া হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মোবাররা সিদ্দিকার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে সহ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া ও অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম বক্তব্য দেন। 

শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদযাপন করা হবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদযাপন করা হবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের ওপর ফের চড়াও রাজশাহী বোর্ড কর্মচারীরা - dainik shiksha শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের ওপর ফের চড়াও রাজশাহী বোর্ড কর্মচারীরা ঢাবির হল খুলছে ৫ অক্টোবর - dainik shiksha ঢাবির হল খুলছে ৫ অক্টোবর এসএসসি পরীক্ষা শুরু নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে - dainik shiksha এসএসসি পরীক্ষা শুরু নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খুলছে না এ বক্তব্য হাস্যকর : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খুলছে না এ বক্তব্য হাস্যকর : শিক্ষামন্ত্রী ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী উপসচিবের বিরুদ্ধে শিক্ষিকার ধর্ষণ মামলা - dainik shiksha উপসচিবের বিরুদ্ধে শিক্ষিকার ধর্ষণ মামলা অবৈধ সম্পদ অর্জন : সাবেক শিক্ষা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা - dainik shiksha অবৈধ সম্পদ অর্জন : সাবেক শিক্ষা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা please click here to view dainikshiksha website