শত্রুতার জেরে সংঘর্ষে দুই শিক্ষার্থী আহত - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

শত্রুতার জেরে সংঘর্ষে দুই শিক্ষার্থী আহত

খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি |

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জেরে দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে দু’জন ছাত্র গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার খামারপাড়া ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন নাজির উদ্দীনের ছেলে ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ছাত্র লোকমান হাকিম ও নিউ পাকেরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসান শাহেদ। লোকমান রাবিতে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় দু'পক্ষই থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে। 

অভিযোগ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জেরে ও রাস্তার পাশে ইট রাখাকে কেন্দ্র করে রাবির ছাত্র লোকমান ও আনাস আহমেদ আলমগীরের মধ্যে বাকবিতণ্ড হয়। একপর্যায়ে লোকমানকে ফাঁকা বাড়িতে একা পেয়ে তার ওপর হামলা চালানো হয়। এসময় লোকমানের মাথায় ৬টি কোপ ও শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে আঘাত করা হয়। এতে লোকমান ও তার ভাই মাহমুদুল হাসান শাহেদ গুরুতর আহত হলে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। বর্তমানে তারা সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। 

এ বিষয়ে লোকমান হাকিমের বড়ভাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ছাত্র সাজেদুল ইসলাম স্বাধীন দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই পূর্ব শত্রুতার জেরে আমাদের ওপর তারা প্রায়ই আক্রমণ করে। এ নিয়ে আমরা জীবন সংশয়ে রয়েছি। আনাস ও তার বাবা-ভাইয়ের কঠিন শাস্তি দাবি করেন তিনি। 

তবে পূর্ব শত্রুতার বিষয়টি অস্বীকার করে অভিযুক্ত রাবি ছাত্র আনাস দাবি করেন, ‘তাদের লাঠির আঘাতেই লোকমানের মাথা ফাটিয়ে আমাদেরকে দোষী বানানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।’  

এ বিষয়ে খানসামা থানার ওসি (তদন্ত) মমিনুজ্জামান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, দু'পক্ষের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়-ইউজিসির ১২ কর্মকর্তার বিদেশ সফর বাতিল - dainik shiksha শিক্ষা মন্ত্রণালয়-ইউজিসির ১২ কর্মকর্তার বিদেশ সফর বাতিল প্রশ্নফাঁসে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তারাই জড়িত, দুজনকে খুঁজছে পুলিশ - dainik shiksha প্রশ্নফাঁসে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তারাই জড়িত, দুজনকে খুঁজছে পুলিশ পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে সিনথেটিক ড্রাগসের ভয়াবহতা - dainik shiksha পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে সিনথেটিক ড্রাগসের ভয়াবহতা প্রভাষকদের পদোন্নতি কমিটির সভাপতি হবেন ডিসিরা - dainik shiksha প্রভাষকদের পদোন্নতি কমিটির সভাপতি হবেন ডিসিরা টানা বর্ষণে সিলেটে বন্যা, বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ - dainik shiksha টানা বর্ষণে সিলেটে বন্যা, বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ড্রাইভারকে দেয়া হচ্ছে উপসচিবের সমান বেতন - dainik shiksha ড্রাইভারকে দেয়া হচ্ছে উপসচিবের সমান বেতন ঢাকা ও চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে নতুন চেয়ারম্যান - dainik shiksha ঢাকা ও চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে নতুন চেয়ারম্যান please click here to view dainikshiksha website