শিক্ষকদের অন্য কোনো পদে মোহ থাকা উচিত নয় : এস এম এ ফায়েজ - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

শিক্ষকদের অন্য কোনো পদে মোহ থাকা উচিত নয় : এস এম এ ফায়েজ

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম এ ফায়েজ বলেছেন, শিক্ষকতা ছাড়া রাজনৈতিক দল কিংবা অন্য কোনো পদের প্রতি মোহ থাকা শিক্ষকদের জন্য উচিত নয়। তবে সচেতন নাগরিক হিসেবে প্রত্যেকেরই ব্যক্তি স্বাধীনতা থাকতেই পারে। কিন্তু শিক্ষক হিসেবে যখন আপনি থাকবেন, তখন এটাকেই বড় করে দেখতে হবে। গতকাল সন্ধ্যায় ফোনে আলাপচারিতায় তিনি এ কথা বলেন। সোমবার (২৫ জানুয়ারি) বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়। প্রতিবেদনটি লিখেছেন মাহমুদ আজহার ও জয়শ্রী ভাদুড়ী। 

প্রতিবেদনে আরও জানা যায় বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) সাবেক এই চেয়ারম্যান বলেন, সবারই একটি রাজনৈতিক দর্শন থাকতে পারে। কিন্তু শিক্ষকতা করার ক্ষেত্রে এর কোনো প্রভাব পড়বে না। আপনার রাজনৈতিক আদর্শের কোনো কিছুই এর প্রভাব ফেলবে না। শিক্ষকদের নিরপেক্ষতার জায়গা থেকে ছাত্রদের পাঠদান করাতে হবে। প্রশাসন চালাতে হবে। বিশেষ করে দায়িত্বশীল কোনো জায়গা থেকে শিক্ষকদের কোনোভাবেই লেজুড়ভিত্তি করা ঠিক হবে না। 

 শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ফায়েজ বলেন, দেশে এমন অনেক শিক্ষক আছেন, কোনো রাজনীতির সঙ্গেই যুক্ত নন। আবার অনেকেই আছেন রাজনীতি করছেন। এটা ব্যক্তি স্বাধীনতার ওপর নির্ভর করে। একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে তার চিন্তা-চেতনার বহিঃপ্রকাশ ঘটতেই পারে। এটাকে আটকে ফেলা কঠিন কাজ। তবে মনে রাখতে হবে, আমি শিক্ষক, আমি শিক্ষক, আমি শিক্ষক। এরপর অন্য কিছু। একজন শিক্ষককে অবশ্যই সচেতন ও সতর্ক থাকতে হবে। নিরপেক্ষতার জায়গা থেকে ছাত্রদের পাঠদান করতে হবে। ছাত্রদের পড়াশোনা করানো বা প্রশাসনিক দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে নিজের রাজনীতি যেন চাপিয়ে দেওয়া না হয়।

তিনি আরও বলেন, একজন আদর্শিক শিক্ষকের সঙ্গে শিক্ষকতা ছাড়া কোনো লবিং, গ্রুপিং যায় না। যখন কোনো একটি পদের জন্য একজন শিক্ষক লবিং করবেন তখন এটা তার অযোগ্যতা হিসেবে বিবেচিত হবে। তিনি কোনো পদের জন্য যোগ্য নন। এমনকি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়োগ পাওয়ার জন্য কোনো লবিং করা উচিত নয়। এটা অন্যরকম বার্তা দেয়। আদর্শবান শিক্ষকের জন্য এটা গ্রহণযোগ্য নয়। এটাকে নেতিবাচকভাবেই দেখা উচিত। 

৪৮ হাজার শিক্ষকের টাইম স্কেল ফেরতের রিট খারিজ - dainik shiksha ৪৮ হাজার শিক্ষকের টাইম স্কেল ফেরতের রিট খারিজ ‘যে যেখান থেকে পড়াশোনা করে বিত্তশালী হয়েছেন, সে সেখানকার শিক্ষার্থীদের সহায়তা করুন’ - dainik shiksha ‘যে যেখান থেকে পড়াশোনা করে বিত্তশালী হয়েছেন, সে সেখানকার শিক্ষার্থীদের সহায়তা করুন’ দুই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে রাবি শিক্ষক ছয় বছর নিষিদ্ধ - dainik shiksha দুই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে রাবি শিক্ষক ছয় বছর নিষিদ্ধ জাতীয় প্রেসক্লাবে ছাত্রদল কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, লাঠিচার্জ - dainik shiksha জাতীয় প্রেসক্লাবে ছাত্রদল কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, লাঠিচার্জ স্কুল-কলেজ খুলছে ৩০ মার্চ - dainik shiksha স্কুল-কলেজ খুলছে ৩০ মার্চ রমজানেও খোলা থাকবে স্কুল-কলেজ - dainik shiksha রমজানেও খোলা থাকবে স্কুল-কলেজ স্কুল-কলেজে কোন শ্রেণির কতদিন ক্লাস - dainik shiksha স্কুল-কলেজে কোন শ্রেণির কতদিন ক্লাস মাদরাসার সংশোধিত এমপিও নীতিমালা পূনর্বিবেচনা ও শতভাগ উৎসব ভাতা দাবি - dainik shiksha মাদরাসার সংশোধিত এমপিও নীতিমালা পূনর্বিবেচনা ও শতভাগ উৎসব ভাতা দাবি শিল্পখাতের সঙ্গে শিক্ষার সমন্বয়ের তাগিদ শিক্ষামন্ত্রীর - dainik shiksha শিল্পখাতের সঙ্গে শিক্ষার সমন্বয়ের তাগিদ শিক্ষামন্ত্রীর এসএসসি পরীক্ষা হতে পারে জুলাই মাসে - dainik shiksha এসএসসি পরীক্ষা হতে পারে জুলাই মাসে please click here to view dainikshiksha website