শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের অচেতন করে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের অচেতন করে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি |

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার রামশীল কলেজের শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের খাবারের সঙ্গে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে অচেতন করে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। রামশীল কলেজের সংগীত বিভাগের শিক্ষক রজত লাল হালদারের বিরুদ্ধে বরিশাল আদালতে একটি ধর্ষণ মামলা চলছে। এর মধ্যেই আবার তার বিরুদ্ধে ছাত্রীদের ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ ওঠায় স্থানীয়রা ওই শিক্ষককে এক মাসের জন্য সমাজ থেকে আলাদা করে একঘরে করে রেখেছে।

ওই ছাত্রীদের পরিবার থেকে বলা হয়েছে, বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার আহুতি বাট্টা গ্রামের সুধীর রঞ্জন হালদারের ছেলে কোটালীপাড়া রামশীল কলেজের সংগীত শিক্ষক রজত লাল হালদার গত ৫ জুলাই সিঙাড়ার সঙ্গে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে একই বাড়ির একাধিক ছাত্রীকে অচেতন করে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। আহুতি বাট্টা গ্রামের এক ছাত্রীর অভিভাবক অভিযোগ করে বলেন, 'রজত তার মেয়েকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। এ প্রস্তাব সে প্রত্যাখ্যান করেছে। ঘটনার দিন সন্ধ্যায় সিঙাড়ার সঙ্গে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে অজ্ঞান করে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এর আগে তিনি অনেক মেয়ের জীবন নষ্ট করেছেন। আমরা এ ঘটনার বিচার চাই।'

স্থানীয়রা জানান, রজত হালদারের হাতে নারীরা নিরাপদ নন। তারপরও তিনি রামশীল মহিলা কলেজে শিক্ষকতা করছেন। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা চলমান থাকার পরও তার কলেজ শিক্ষক হিসেবে বহাল থাকা নিয়ে ক্ষুব্ধ অনেকেই।

রামশীল কলেজের অধ্যক্ষ জয়দেব বালা বলেন, বর্তমানে কলেজ বন্ধ রয়েছে। কলেজ খুললে রজত লালের বিষয়গুলো তদন্ত করা হবে। তার বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিযুক্ত রজত লাল হালদার নারীদের যৌন হয়রানি, ধর্ষণ ও মাদক সেবনের কথা অস্বীকার করে বলেন, তিনি নারীদের সম্মান নষ্ট করার কোনো চেষ্টা করেননি। তার বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা ধর্ষণ মামলা বরিশাল আদালতে চলছে।

নাছির মাহমুদসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে পরীমণির মামলা - dainik shiksha নাছির মাহমুদসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে পরীমণির মামলা পরীক্ষা পেছাতে পারে পাঁচ-ছয় মাস তবু অটোপাস নয় : চেয়ারম্যান - dainik shiksha পরীক্ষা পেছাতে পারে পাঁচ-ছয় মাস তবু অটোপাস নয় : চেয়ারম্যান দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮০ ভাগ শিক্ষার্থীই অনলাইনে পরীক্ষায় অনাগ্রহী - dainik shiksha ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮০ ভাগ শিক্ষার্থীই অনলাইনে পরীক্ষায় অনাগ্রহী শিক্ষামন্ত্রীও এক বছর ছুটিতে গেলে দেশের কী ক্ষতি হবে, প্রশ্ন মিলনের - dainik shiksha শিক্ষামন্ত্রীও এক বছর ছুটিতে গেলে দেশের কী ক্ষতি হবে, প্রশ্ন মিলনের আগামী বছরের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ১ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ - dainik shiksha আগামী বছরের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ১ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ পরীমণিকে নির্যাতনকারী কে এই নাছির মাহমুদ? - dainik shiksha পরীমণিকে নির্যাতনকারী কে এই নাছির মাহমুদ? পরীক্ষা এক বছর না দিলে ক্ষতি হবে না : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha পরীক্ষা এক বছর না দিলে ক্ষতি হবে না : শিক্ষামন্ত্রী সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩০ জুন পর্যন্ত - dainik shiksha সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩০ জুন পর্যন্ত ৬ষ্ঠ-৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ - dainik shiksha ৬ষ্ঠ-৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ please click here to view dainikshiksha website