শিক্ষা কর্মকর্তা না থাকায় বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের ভোগান্তি - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

শিক্ষা কর্মকর্তা না থাকায় বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের ভোগান্তি

ভুরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি |

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার না থাকায় বেসরকারি স্কুল ও মাদরাসার শিক্ষক কর্মচারীদের এমপিওভুক্তি ও উচ্চতর স্কেল প্রাপ্তির ক্ষেত্রে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। এতে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে এমপিওভুক্তি ও উচ্চতর স্কেল প্রাপ্তির আবেদন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের শিক্ষা ব্যবস্থাপনা তথ্য প্রক্রিয়া সেলে (ইএমআইএস) এবং মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থাপনা তথ্য প্রক্রিয়া সেলে (এমইএমআইএস) পাঠাতে পারছেন না।

জানা গেছে, গত ২২ সেপ্টেম্বর ভুরুঙ্গামারী উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুর রহমান সাময়িক বরখাস্ত করা হন। এরপর থেকে এমপিও প্রত্যাশী শিক্ষক কর্মচারীরদের এমপিওভুক্তির আবেদন কোনো কাজ হচ্ছে না। যেসব শিক্ষক উচ্চতর স্কেল প্রাপ্তির যোগ্যতা অর্জন করেছেন তাদের উচ্চতর স্কেল প্রাপ্তির আবেদন প্রায় দুই মাস যাবৎ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে পড়ে আছে। এছাড়া বিভিন্ন প্রকার সংশোধনী করা সম্ভব হচ্ছে না। 

ভূরুঙ্গামারী উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য একজন সহকারী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে নিয়োগ দেয়া হলেও মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে তাকে যথাযথ ক্ষমতা দেয়নি। এতে এমপিওভুক্তি, উচ্চতর স্কেল প্রাপ্তি ও বিভিন্ন সংশোধনীর আবেদন তিনি জেলা শিক্ষা অফিসারের দপ্তরসহ মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠাতে পারছেন না। 

এমপিও প্রত্যাশী বেসরকারি মাদরাসার কর্মচারী মাহাবুব বলেন, চাকরি করি কিন্তু বেতন পাই না। বেতনে পেতে এমপিওভুক্তির আবেদন করেছি। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার না থাকায় এমপিওভুক্তির আবেদন সামনের দিকে অগ্রসর হচ্ছে না।  

উচ্চতর স্কেল প্রত্যাশী মাদরাসা শিক্ষক আবুল কাশেম বলেন, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর আমাদের কাঙ্ক্ষিত  উচ্চতর স্কেল প্রদান শুরু করেছে। মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার না থাকায় উচ্চতর স্কেল প্রাপ্তির আবেদন প্রায় দুই মাস ধরে মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে পড়ে আছে।

সহকারী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সাজ্জাদ হোসেন বলেন, সহকারী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের দাপ্তরিক ক্ষমতা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে এমপিওভুক্তি ও উচ্চতর স্কেল প্রাপ্তির আবেদনগুলো সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো সম্ভব হচ্ছে না।

জেলা শিক্ষা অফিসার শামসুল আলম বলেন, ভুরুঙ্গামারীর বেসরকারি স্কুল ও মাদরাসার শিক্ষক কর্মচারীদের এমপিওভুক্তি ও উচ্চতর স্কেল প্রাপ্তির ক্ষেত্রে যে সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে তা দূর করতে জেলা শিক্ষা অফিস থেকে সহকারী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে ক্ষমতা প্রদানের একটি প্রতিবেদন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পাঠানো হয়েছে।

চূড়ান্ত নিয়োগ সুপারিশ পেলেন পৌনে পাঁচ হাজার নতুন শিক্ষক - dainik shiksha চূড়ান্ত নিয়োগ সুপারিশ পেলেন পৌনে পাঁচ হাজার নতুন শিক্ষক চাকরি ছেড়ে পালাচ্ছেন জাল শিক্ষকরা - dainik shiksha চাকরি ছেড়ে পালাচ্ছেন জাল শিক্ষকরা প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব পদে পরিবর্তন - dainik shiksha প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব পদে পরিবর্তন সভাপতির বাড়িতে মাদরাসার নিয়োগ পরীক্ষা নয় - dainik shiksha সভাপতির বাড়িতে মাদরাসার নিয়োগ পরীক্ষা নয় শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের সিরিজ জয় - dainik shiksha শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের সিরিজ জয় please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0045089721679688