শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির জন্যও আসছে বাজেটে বরাদ্দ থাকবে - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির জন্যও আসছে বাজেটে বরাদ্দ থাকবে

নিজস্ব প্রতিবেদক |

করোনার ছোবলে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষাব্যবস্থার ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার নানা উদ্যোগ নিতে আসছে বাজেটে শিক্ষাখাতে বরাদ্দ বাড়বে। শিক্ষাসংশ্নিষ্ট তিন মন্ত্রণালয় মিলে গতবারের চেয়ে অন্তত ১০ হাজার কোটি টাকা বেশি বরাদ্দ পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

তবে ব্যাপক জনপ্রত্যাশা থাকলেও এবারের শিক্ষা বাজেটে শিক্ষকদের জন্য পৃথক বেতন স্কেল, শিক্ষক নিয়োগের পৃথক কর্মকমিশন ও বেসরকারি শিক্ষকদের চাকরি জাতীয়করণের দাবি পূরণের কোনো উদ্যোগ নেই  বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুবুর রহমান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, ‘আমরা এবার গতবছরের চেয়ে বেশি বরাদ্দ চেয়েছি। আশা করছি পাবো।' স্কুল-কলেজ এমপিওভুক্তির জন্য বাজেটে বরাদ্দ থাকবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘থাকবে, আশাকরি।'

গত বছর (২০২০-২১ অর্থবছরে) মূল বাজেটে শিক্ষা খাতে ৬৬ হাজার ৩৯১ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। এর মধ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে ২৪ হাজার ৯৪০ কোটি, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষায় ৩৩ হাজার ১১৭ কোটি এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের জন্য আট হাজার ৩৩৪ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল। শিক্ষা খাতে এ বরাদ্দের পরিমাণ ছিল মোট ব্যয়ের ১১ দশমিক ৬৯ শতাংশ এবং জিডিপির ২ দশমিক ০৯ শতাংশ। গত কয়েকটি বাজেটে শিক্ষা খাতে টাকার অঙ্কে বরাদ্দ বাড়লেও জিডিপির তুলনায় তাতে খুব বেশি হেরফের হয়নি।

জাতিসংঘের শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কোর পরামর্শ হলো, শিক্ষা খাতে মোট জিডিপির ছয় শতাংশ বরাদ্দ দেওয়ার। অথচ দেশে তা বহুদিন ধরে দুই দশমিক ২০ থেকে দুই দশমিক ৩০-এর মধ্যে থাকছে।

দৈনিক শিক্ষার প্রধান উপদেষ্টা ও সাবেক শিক্ষাসচিব মো. নজরুল ইসলাম খান বলেন, করোনার কারণে সারাদেশের চার কোটির বেশি শিক্ষার্থীর শিক্ষা গ্রহণ ব্যাহত হচ্ছে। আসছে অর্থবছরে শিক্ষাখাতের এই ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, করোনার কারণে দরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীদের বাবা-মায়ের আয় কমে গেছে, এই শিশুরা পুষ্টির ঘাটতিতে পড়ছে। করোনার প্রভাবে বাল্যবিয়ে বাড়ছে ও ঝরেপড়া শিক্ষার্থীর সংখ্যাও বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাস মিলছে। শিক্ষার বিপর্যয় রোধে শিক্ষা খাতে বাজেট বরাদ্দ বাড়াতে হবে। গতানুগতিক বাজেট দিয়ে কভিড ১৯-এর ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব নয়।

মন্ত্রণালয়ের সূত্র দৈনিক শিক্ষাকে জানায়, এবার বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তির খাতে বরাদ্দ থাকবে। এর জন্য বরাদ্দ চেয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ে আগেভাগেই চিঠি দিয়েছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এমপিওভুক্তি খাতে আগামী অর্থবছরের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ বাড়তি ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ চেয়েছিল। তা না দিয়ে নির্ধারিত বরাদ্দ ১৫০ কোটি টাকার সিলিং করে দিয়েছে অর্থ বিভাগ। কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির জন্য ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ চাইলেও ৫০ কোটি টাকায় সিলিং করে দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। বাজেট পাসের পরপরই নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির জন্য আবেদন নেওয়া শুরু করবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ থেকে জানা গেছে, প্রতি জেলায় একটি করে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের পরিকল্পনার কাজ আগামী অর্থবছরে আরও এগিয়ে নেওয়া হবে। ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, ঝালকাঠি, বগুড়া, পিরোজপুর, বাগেরহাট, খাগড়াছড়ি, সাতক্ষীরা, চুয়াডাঙ্গা, মাগুরা. ফরিদপুরসহ বহু জেলায় কোনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নেই। প্রাথমিকে শিশুদের স্কুল ফিডিং কার্যক্রম জোরদার করা হবে। ঝরে পড়ার হার কমাতেও নেওয়া হবে বিশেষ উদ্যোগ।

ই-লার্নিং খাতেও আসন্ন বাজেটে সরকারের গুরুত্ব বাড়বে। করোনাকাল পার হলেও অনলাইন শিক্ষা চালু থাকবে। ক্লাসরুমে সশরীরে ও অনলাইনে- দুইভাবেই পাঠদান চালু রাখা হবে।

শহীদ মিনার থাকা বিদ্যালয়ের তালিকা চেয়েছে সরকার - dainik shiksha শহীদ মিনার থাকা বিদ্যালয়ের তালিকা চেয়েছে সরকার ..পিস্তল রেখে ঘুমাতাম, ..বাচ্চাকে দেশছাড়া করমু: ভিকারুননিসা অধ্যক্ষ বচনে হইচই - dainik shiksha ..পিস্তল রেখে ঘুমাতাম, ..বাচ্চাকে দেশছাড়া করমু: ভিকারুননিসা অধ্যক্ষ বচনে হইচই ভালোমানের স্কুল এমপিওভুক্তি ও জাতীয়করণের সুপারিশ - dainik shiksha ভালোমানের স্কুল এমপিওভুক্তি ও জাতীয়করণের সুপারিশ মাদরাসার গ্রন্থাগারিকরাও শিক্ষক মর্যাদা পেলেন - dainik shiksha মাদরাসার গ্রন্থাগারিকরাও শিক্ষক মর্যাদা পেলেন এবারের এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট এখনও হাতে পায়নি শিক্ষা অধিদপ্তর - dainik shiksha এবারের এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট এখনও হাতে পায়নি শিক্ষা অধিদপ্তর মাদরাসায় গ্রন্থাগার শিক্ষক নিয়োগ : নিবন্ধন সিলেবাস প্রণয়নের নির্দেশ - dainik shiksha মাদরাসায় গ্রন্থাগার শিক্ষক নিয়োগ : নিবন্ধন সিলেবাস প্রণয়নের নির্দেশ দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত - dainik shiksha মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত উচ্চমাধ্যমিকের অ্যাসাইনমেন্ট ফের স্থগিত - dainik shiksha উচ্চমাধ্যমিকের অ্যাসাইনমেন্ট ফের স্থগিত লকডাউনের পর অনলাইনে এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ - dainik shiksha লকডাউনের পর অনলাইনে এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ please click here to view dainikshiksha website