শিক্ষা ভবনে দুদকের অভিযান: শাহেদুলকে জিজ্ঞাসাবাদ - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

শিক্ষা ভবনে দুদকের অভিযান: শাহেদুলকে জিজ্ঞাসাবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের কলেজ শাখার পরিচালক মো. শাহেদুল খবির চৌধুরীকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুদক কর্মকর্তারা। গত সেপ্টেম্বর মাসে দৈনিক আমাদের বার্তায় প্রকাশিত খবরে মাউশি অধিদপ্তরে কর্মচারী নিয়োগে অনিয়মের তথ্য তুলে ধরা হয়। এরপর মন্ত্রণালয় তদন্ত কমিটি করে কিন্তু সেই তদন্ত স্থগিত হয়ে যায়। এমন প্রেক্ষাপটে দুর্নীতি দমন কমিশন, প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জনাব জেসমিন আক্তার এবং রনজিৎ কুমার কর্মকার এর সমন্বয়ে গঠিত একটি টিম রোববার মাউশি অধিদপ্তরে অভিযান পরিচালনা করেছে। দুদক টিম অভিযোগ যাচাই ও সততা উদঘাটনে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও নিয়োগ কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর শাহেদুল খবির চৌধুরী ও উপপরিচালক বিপুল বিশ্বাসের সাথে কথা বলেন এবং সংশ্লিষ্ট অভিযোগ সম্পর্কে তাঁর বক্তব্য রেকর্ড করেন। 

নিয়োগ বিধি ১৯৯১ অনুযায়ী তাদের নিয়োগের অনুমোদন নিয়ে প্রথমে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগের জন্য পদক্ষেপ নিলেও পরবর্তীতে ৭০ নম্বরের MCQ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেওয়া হয়। 'প্রদর্শক' শ্রেণির ক্যাটাগরীর দশম গ্রেডের পদগুলোকে তৃতীয় শ্রেণি দেখিয়ে নিজেরা (মাউশি) নিয়োগ দেয় কিন্তু পদোন্নতির বেলায় পিএসসির মাধ্যমে ২য় শ্রেণি বা দশম গ্রেড দেখিয়ে ক্যাডার সার্ভিসের সঙ্গে আত্তীকরণ করা হয়। এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে অধ্যাপক শাহেদুল খবির চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের কাজ নিয়োগ দেয়া আর পিএসসি'র দায়িত্ব প্রমোশন দেওয়া। সেখানে আমাদের কিছু করার নেই।

এ সংক্রান্ত নথি পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, নথির নোটশীটে দশম গ্রেডের পদগুলোকে দ্বিতীয় শ্রেণী উল্লেখ করা হলেও মন্ত্রণালয়ের নিয়োগ অনুমোদনের ক্ষেত্রে তা তৃতীয় শ্রেণি দেখিয়ে অনুমোদন নেয়া হয় এবং নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রদান করা হয়। এত বিষয়ে নিয়োগ বিধি এবং কমিটির কার্যবিবরণীসহ আরো অভিযোগ সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র সরবরাহের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর অনুরোধ করা হয়। পরবর্তীতে সরবরাহকৃত কাগজপত্র যাচাইপূর্বক বিস্তারিত অনুসন্ধানের সুপারিশসহ কমিশন বরাবর প্রতিবেদন দাখিল করবে এনফোর্সমেন্ট টিম।

শিক্ষক নিয়োগ : ৩৪ হাজার প্রার্থীর সুপারিশপত্র প্রকাশ - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগ : ৩৪ হাজার প্রার্থীর সুপারিশপত্র প্রকাশ শাবিপ্রবি ভালো না থাকার নেপথ্য কাহিনী শুনুন ড. জাফর ইকবালের মুখে - dainik shiksha শাবিপ্রবি ভালো না থাকার নেপথ্য কাহিনী শুনুন ড. জাফর ইকবালের মুখে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত ফেল থেকে জিপিএ-৫ পেলেন ৩৫ শিক্ষার্থী - dainik shiksha ফেল থেকে জিপিএ-৫ পেলেন ৩৫ শিক্ষার্থী ভিসির পদত্যাগ করা উচিত : এন আই খান - dainik shiksha ভিসির পদত্যাগ করা উচিত : এন আই খান করোনারোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ৫ জরুরি নির্দেশনা - dainik shiksha করোনারোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ৫ জরুরি নির্দেশনা ১৭ বিএড কলেজে ভর্তি চলছে - dainik shiksha ১৭ বিএড কলেজে ভর্তি চলছে please click here to view dainikshiksha website