শূন্যপদে এমপিও শিক্ষকদের বদলির সুযোগ আসছে - দৈনিকশিক্ষা

শূন্যপদে এমপিও শিক্ষকদের বদলির সুযোগ আসছে

রুম্মান তূর্য |

এমপিও শিক্ষকদের বদলি চালুর নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা প্রশাসন। এই বদলি বা প্রতিষ্ঠান পরিবর্তনের ক্ষেত্রে একটি নীতিমালার খসড়া করা হচ্ছে। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর এই খসড়া প্রস্তুত করবে। যেটিতে শিক্ষকদের বদলি চালুর পদ্ধতিগত বিষয়ে একটি রূপরেখা থাকবে। পরবর্তীতে আলোচনা ও সেমিনার করে সবার মত নিয়ে ওই খসড়াটি চূড়ান্ত করবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রাথমিকভাবে এমপিও শিক্ষকদের শূন্যপদের বিপরীতে বদলির সুযোগ দেয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে দৈনিক আমাদের বার্তাকে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। তবে বদলির সুযোগ পাওয়ার জন্য যোগ্য বিবেচিত হতে শিক্ষকদের নিয়োগ থেকে একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত কর্মরত থাকতে হবে। আর বদলির বিষয়ে মেধাবি শিক্ষকরা অগ্রাধিকার পাবেন। এজন্য নিবন্ধন পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর বিবেচনা করা হতে পারে। সার্বিক বিষয়ে আরো যাচাই-বাছাই করে প্রতিষ্ঠান পরিবর্তনের খসড়া নীতিমালা চূড়ান্তকরণের পর এমপিও শিক্ষকদের বদলির সুযোগ দেয়া হবে। 

গতকাল রোববার সকালে রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের সমপদে বা সমস্কেলে প্রতিষ্ঠান পরিবর্তনের সুযোগ নিয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় এসব বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির ওই সভায় সভাপতির দায়িত্ব পালনের কথা থাকলেও তিনি না আসায় শিক্ষাসচিব সোলেমান খান সভাপতিত্ব করেন। এছাড়া শিক্ষা প্রশাসনের বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তা অংশ নেন। 

সভা শেষে এতে অংশ নেয়া একাধিক কর্মকর্তা দৈনিক আমাদের বার্তাকে জানান, বদলি নীতিমালার খসড়াটি কেমন হতে পারে সে বিষয়ে সভায় আলোচনা হয়েছে। আমরা চাচ্ছি কর্মরত শিক্ষক যে বিষয়ের পদে কর্মরত আছেন শুধু ওই বিষয়ের পদেই বদলি হয়ে যাওয়ার সুযোগ পাবেন। বাংলার শিক্ষক বিজ্ঞানের পদে বদলি হতে পারবেন না। আমরা শিক্ষার্থী ও প্রতিষ্ঠানের স্বার্থকে সর্বাধিক অগ্রাধিকার দিয়ে শিক্ষকদের জীবনমান উন্নয়নের সুযোগ দেয়ার বিষয়ে ভাবছি।

সভায় অংশ নেয়া অপর একজন কর্মকর্তা দৈনিক আমাদের বার্তাকে বলেন, এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বদলির বিষয়টি পরিচালনা করবে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। সভায় প্রক্রিয়াগত বিষয়ে কিছু নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। যেগুলো অন্তর্ভুক্ত করে নীতিমালার একটি খসড়া করতে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের একজন কর্মকর্তাকে বলা হয়েছে। 

বদলির প্রক্রিয়ার প্রাথমিক রূপরেখা নিয়ে দৈনিক আমাদের বার্তার পক্ষ থেকে করা এক প্রশ্নের জবাবে ওই কর্মকর্তা বলেন, আমরা চাই কোনো প্রতিষ্ঠান বা শিক্ষার্থীরা যাতে বিপাকে না পড়েন। এটি নিশ্চিত করতে দুজন শিক্ষকের সম্মতির ভিত্তিতে পারস্পরিক প্রতিষ্ঠান পরিবর্তনের সুযোগ দেয়ার বিষয়ে প্রস্তাবনা এসেছিলো। এ প্রস্তাবনা মতে কোনো শিক্ষককে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে ওই স্থানের একজন শিক্ষককেও এ স্থানে আসতে সম্মত হতে হবে। তবে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে, দুজনের সম্মতিতে পারস্পরিক বদলি নয়, শূন্যপদের প্রেক্ষিতে বদলির সুযোগ দেয়া হবে। 

তিনি আরো বলেন, একটি আলোচনা এসেছে যে, বদলির সুযোগ এলে প্রত্যন্ত অঞ্চলের স্কুলে শিক্ষকরা থাকতে চাইবেন না। তাই শূন্যপদে বদলি হওয়ার জন্য যোগ্য হতে শিক্ষকদের তিন বা পাঁচ বছর কর্মরত থাকার শর্ত দেয়া হতে পারে। মেধাবি শিক্ষকরা বদলির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পেতে পারেন। এ ক্ষেত্রে শিক্ষক নিবন্ধনের প্রাপ্য নম্বর মেধার মানদণ্ড হিসেবে বিবেচিত হতে পারে। 

তিনি বলেন, প্রথমে এমপিওভুক্ত স্কুল কলেজের শিক্ষকদের জন্য বদলির সুযোগ দিয়ে একটি নীতিমালার খসড়া করা হবে। এর আদলে কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ এমপিওভুক্ত মাদরাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের বদলির সুযোগ দিয়ে নীতিমালার খসড়া করবে। পরে আলোচনা করে সেগুলো চূড়ান্ত করে এমপিও শিক্ষকদের বদলির সুযোগ দেয়া হবে। 

জানা গেছে, ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দে এমপিও শিক্ষকদের বদলি চালুর ব্যবস্থা করতে একটি খসড়া নীতিমালা করা হয়েছিলো। ওই খসড়া পরে আলোর মুখ দেখেনি। ২০২৩ খ্রিষ্টাব্দে এসে বদলি চালুর বিষয়ে আগের খসড়া নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি বলেও জানান কর্মকর্তারা। 

সভা শেষে এমপিও শিক্ষকদের বদলি নিয়ে জানতে চাইলে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, নীতিমালা চূড়ান্ত হলে শিক্ষকরা বদলির সুযোগ পাবেন। 

খসড়া কেমন হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন,  শিক্ষক যে পদে কর্মরত আছেন তাকে ওই বিষয়ের পদে অন্য প্রতিষ্ঠানে বদলি হওয়ার সুযোগ দেয়া হতে পারে। 

এদিকে এমপিও শিক্ষকদের বদলি বা প্রতিষ্ঠান পরিবর্তনের সুযোগ দেয়ার সভার খবর দেশের শিক্ষা বিষয়ক একমাত্র জাতীয় প্রিন্ট পত্রিকা দৈনিক আমাদের বার্তা ও শিক্ষা বিষয়ক পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল পত্রিকা দৈনিক শিক্ষাডটকমে পেয়ে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা গতকাল রোববার সকালে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের সামনে জড়ো হন। তারা শূন্যপদের বিপরীতে বদলি হয়ে যেতে চান। এ ক্ষেত্রে সরকার এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের নতুন নিয়োগ নিয়ে প্রতিষ্ঠান পরিবর্তনের সুযোগ দিয়ে আলাদা শূন্যপদের বিপরীতে আলাদা গণবিজ্ঞপ্তি জারি হলেও তারা নিজ নিজ উপজেলায় বদলি হতে পারবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন। 

 

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে - dainik shiksha কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা কলেজগুলোর নাম এক নজরে - dainik shiksha র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা কলেজগুলোর নাম এক নজরে পরিবর্তনশীল বিশ্বের মতোই শিক্ষাব্যবস্থা গড়ে তোলা হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha পরিবর্তনশীল বিশ্বের মতোই শিক্ষাব্যবস্থা গড়ে তোলা হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী জিপিএ-৫ পেয়েও কলেজ মনোনয়ন পায়নি সাড়ে ৮ হাজার শিক্ষার্থী - dainik shiksha জিপিএ-৫ পেয়েও কলেজ মনোনয়ন পায়নি সাড়ে ৮ হাজার শিক্ষার্থী সরকারি কলেজগুলোকে পাশের বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত করার পরামর্শ - dainik shiksha সরকারি কলেজগুলোকে পাশের বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত করার পরামর্শ গুচ্ছে দ্বিতীয় পর্যায়ে ভর্তি শুরু ২৬ জুন - dainik shiksha গুচ্ছে দ্বিতীয় পর্যায়ে ভর্তি শুরু ২৬ জুন সভাপতি-প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ - dainik shiksha সভাপতি-প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0060088634490967