শ্রীলঙ্কায় আন্তর্জাতিক সম্মেলনে দৈনিক শিক্ষাডটকমের মাছুম বিল্লাহ - দৈনিকশিক্ষা

শ্রীলঙ্কায় আন্তর্জাতিক সম্মেলনে দৈনিক শিক্ষাডটকমের মাছুম বিল্লাহ

দৈনিক শিক্ষাডটকম প্রতিবেদক |

দৈনিক শিক্ষাডটকম প্রতিবেদক : দৈনিক শিক্ষাডটকমের লিড-এডুকেশন ও রিসার্চ মাছুম বিল্লাহ তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলনে অংশগ্রহণ করছেন। শ্রীলঙ্কার শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শ্রীলঙ্কান ব্রিটিশ কাউন্সিল যৌথভাবে শ্রীলঙ্কার থুলিরিভায় শিক্ষাবিদদের জন্য একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজন করছে। সম্মেলনটি ২৯ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে চলবে ২ মার্চ (শনিবার) পর্যন্ত। 

এটি মূলত ‘তৃতীয় শ্রীলঙ্কান ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ টিচার এডুকেটর আন্তর্জাতিক সম্মেলন’।  ভাষা শিক্ষার বিভিন্ন দিক, বর্তমান প্রবণতা ও পদ্ধতি ও বিষয়ের ওপর উপস্থাপনা, প্যানেল ডিসকাশন থাকছে। এটি  আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক শিক্ষাবিদ, গবেষক, পণ্ডিত, শিক্ষক ও শিক্ষা প্রশাসকদের একে অপরের কাছ থেকে জানার, অভিজ্ঞতা বিনিময় করার এক সুযোগ।

সম্মেলনে সার্কভুক্ত দেশ ছাড়াও ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া মহাদেশ থেকে শিক্ষাবিদ ও সরাসরি শিক্ষকেরা অংশগ্রহণ করছেন। ইনক্লুসিভ ভাষা শিক্ষা, আন্তর্জাতিক মিশ্রিত ভাষা, বৈশ্কিক ভাষা হিসেবে ইংরেজির অবস্থান, আর্টিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স এবং ভাষা শিক্ষায় এর প্রভাব।প্রতিফলিত অনুশীলন এবং শিক্ষকদের গবেষণা, দ্বিভাষিক শিক্ষার মাধ্যম, ইংরেজি শিক্ষার মাধ্যম ইত্যাদি বিষয়গুলো নিয়েও সম্মেলনে আলোচনা হবে। 

বাংলাদেশ থেকে এতে দৈনিক শিক্ষাডটকম এবং দৈনিক আমাদের বার্তা’র শিক্ষা বিশেষজ্ঞ ও লিড-এডুকেশন এবং রিসার্চ টিম সম্মেলনে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে যোগদান করছেন। তার উপস্থাপনার বিষয় ‘বাংলাদেশের নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী লিখিত ইংরেজি বই পড়াতে ডগমি ইএলটি একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হতে পারে’।

উল্লেখ্য দৈনিক শিক্ষাডটকম এবং দৈনিক আমাদের বার্তা নতুন কারিকুলামের ওপর লিখিত বই নিযে একাধিক মতবিনিময় সভা ও আলোচনসভার আয়োজন করেছে দৈনিক শিক্ষা ও দৈনিক আমাদের বার্তার কনফারেন্স রুমে। দৈনিক শিক্ষাডটকম ও দৈনিক আমাদের বার্তা নতুন করিকুলামের বিভিন্ন দিক নিয়ে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, শিক্ষা কর্মকর্তাদের সঙ্গে অভিজ্ঞতা বিনিময় ও আলোচনা করছে। নতুন কারিকুলাম বাস্তবায়নে সার্বিক সহযোগিতামূলক কার্যক্রম এবং কোথাও কোনো সংযোজন বিয়োজন করা যায় কি না সেটিও আলোচনায় স্থান পাচ্ছে। এই আলোচনার বিষয়গুলো এখন আন্তর্জাতকি পরিমণ্ডলে শেয়ার করার সুযোগ হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ইংলিশ টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইট্যাব) দৈনিক শিক্ষাডটকম ও দৈনিক আমাদের বার্তার একটি সহযোগী সংস্থা। দৈনিক শিক্ষাডটকম ও দৈনিক আমাদের বার্তা শিক্ষার সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে।  ইংরেজি একটি গুরুত্বপূর্ন বিষয়, এই ভাষাটি আমাদের দেশের সকল শিক্ষার্থীকে, সকল শিক্ষককে নিয়মিত চর্চা করতে হয়। সেই চর্চা, ফলপ্রসূভাবে ইংরেজি পড়ানো এবং শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা যাতে এই ভাষা সহজে ও বৈজ্ঞানিক উপায়ে আয়ত্ত করতে পারে দৈনিক শিক্ষাডটকম এবং দৈনিক আমাদের বার্তা শিক্ষার অন্যান্য ক্ষেত্রে উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে এই বিষয়টিকেও অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে চর্চা ও অনুশীলন করে। 

ডগমি ইএলটি শিক্ষার্থীদের ওরাল ইংলিশ অর্থাৎ স্পোকেন ইংরেজিতে পারদর্শী করার ওপর জোর দেয়। শিক্ষকদের ইনোভেটিভ অর্থাৎ যেকোনো পরিস্থিতিতে নতুন কিছু উদ্ভাবন করে ভাষা শিক্ষা চালিয়ে নিতে পারেন। 

উল্লেখ্য, ডগমি ইলটি এমন একটি অ্যাপ্রোচ যেখানে প্রিন্ট বই  ছাড়াও, প্রস্তত করা নোট ছাড়াও, লেসন প্লান ছাড়াও একজন শিক্ষক ফলপ্রসূভাবে একটি ভাষার ক্লাস করাতে পারেন, শিক্ষার্থীদের চমৎকার কার্যাবলি দিয়ে ব্যস্ত রাখতে পারেন এবং শিক্ষার্থীরা সেইসব কার্যবালির মাধ্যমে তাদের মাতৃভাষা ছাড়াও অন্য কোন ভাষা প্রাকটিক্যালি শিখতে পারে। মাছুম বিল্লাহ বাংলাদেশে নতুন কারিকুলামের ওপর লিখিত ইংরেজি বইগুলো নিয়ে ইতিমধ্যে দৈনিক শিক্ষা ও দৈনিক আমাদের বার্তায় একাধিক রিভিউ, আলোচনা করেছেন, শিক্ষকদের নিকট থেকে পজিটিভ সাড়া পেয়েছেন। এই বিষয়গুলোই তাকে উৎসাহ প্রদান করেছে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বিষয়টি শেয়ার করার। 

শ্রীলঙ্কায় ‘শিক্ষকের শিক্ষা (আইটিইএসএল) নামক একটি প্রজেক্ট চালু হয়েছে। ন্যাশনাল কলেজ অব এডুকেশনের ১০০ এর অধিক শিক্ষককের ‘টিচার এডুকেটর’ কোর্স সম্পন্ন করানো হয়েছে এবং ইএলটি মেথোডোলজি  কোর্স করানো হয়েছে ২০০-এর অধিক শিক্ষককে যারা চাকিররত এবং সিনিয়র টিচার। ‘অ্যা কমিউনিটি অব প্রাকটিস’  শুরু করা হয়েছে এসব টিচারদের সহায়তা প্রদান করার জন্য  এবং সর্বোত্তম অনুশীলনগুলো শেয়ার করা এবং একে অপরকে সহায়তা করার এই ফোরামটি গঠিত হয়েছে। শ্রীলঙ্কার ইংরেজি টিচার সংগঠন অনেক সেমিনারের আয়োজন করে থাকে তবে শিক্ষাবিদদের জন্য এ ধরনের কনফারেন্স খুব একটা বেশি হয়নি। এটি শুরু হয় ২০২০ খ্রিষ্টাব্দে। 

আইটিইএসএল প্রজেক্টর পথ ও ফোকাসও ইতিমধ্যে পরিবর্তন হয়ে যায় এবং অনলাইন টিচার ট্রেনিং এবং শ্রেণিকক্ষে ইংরেজিতে কথা বলা এবং শ্রবন ব্যবস্থাপনাকে উন্নত করার দিকে জোর দেয়া হয়। এই পরিবর্তনগুলো ঘটে ২০২৩ খ্রিষ্টাব্দে। ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দে সেই বিষয়গুলোর দিকেই ফোকাস ঠিক রেখে শ্রীলঙ্কান, সব শ্রেণির শিক্ষক, ইন-সার্ভিস ও রিটায়ার্ড শিক্ষক, শিক্ষাবিদসহ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক শিক্ষা গবেষক, বিশেষজ্ঞ ও শিক্ষা সংশ্লিষ্টদের জন্য এ আয়োজন। 

এমপিও কোড পেলো আরো ১৪ স্কুল-কলেজ - dainik shiksha এমপিও কোড পেলো আরো ১৪ স্কুল-কলেজ নারীদের আইসিটিতে দক্ষ হতে হবে: শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha নারীদের আইসিটিতে দক্ষ হতে হবে: শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী হিটস্ট্রোকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র তূর্যের মৃত্যু - dainik shiksha হিটস্ট্রোকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র তূর্যের মৃত্যু পরীক্ষার নাম এসএসসিই থাকবে, ওয়েটেজ ৫০ শতাংশ - dainik shiksha পরীক্ষার নাম এসএসসিই থাকবে, ওয়েটেজ ৫০ শতাংশ ফরেনসিক অডিটে ফাঁসছেন দশ হাজার জাল সনদধারী - dainik shiksha ফরেনসিক অডিটে ফাঁসছেন দশ হাজার জাল সনদধারী কওমি মাদরাসা : একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে - dainik shiksha কওমি মাদরাসা : একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের পিএইচডি ফেলোশিপ - dainik shiksha প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের পিএইচডি ফেলোশিপ সাংবাদিকদের ঘুষ বিষয়ক ভাইরাল ভিডিও, ইরাব কোনো বিবৃতি দেয়নি - dainik shiksha সাংবাদিকদের ঘুষ বিষয়ক ভাইরাল ভিডিও, ইরাব কোনো বিবৃতি দেয়নি জড়িত মনে হলে চেয়ারম্যানও গ্রেফতার: ডিবির হারুন - dainik shiksha জড়িত মনে হলে চেয়ারম্যানও গ্রেফতার: ডিবির হারুন সপ্তম শ্রেণিতে শরীফার গল্প থাকছে, বিতর্কের কিছু পায়নি বিশেষজ্ঞরা - dainik shiksha সপ্তম শ্রেণিতে শরীফার গল্প থাকছে, বিতর্কের কিছু পায়নি বিশেষজ্ঞরা please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.006943941116333