সরকারিকৃত কলেজে শিক্ষা ক্যাডারের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে রাজপথে শিক্ষকরা - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

সরকারিকৃত কলেজে শিক্ষা ক্যাডারের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে রাজপথে শিক্ষকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

কলেজ সরকারিকরণের সময় কর্মরত সব শিক্ষক-কর্মচারীকে অন্তর্ভুক্ত করে আগামী ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসের মধ্যে অ্যাডহক নিয়োগের দাবি জানিয়েছেন সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকরা। প্রাতিষ্ঠানিক ত্রুটিজনিত কারণে কোন শিক্ষক-কর্মচারীকে বঞ্চিত না করে অ্যাডহক নিয়োগের দাবিও জানিয়েছেন তারা। একইসাথে সরকারিকৃত কলেজগুলোতে সংযুক্তি আদেশপ্রাপ্ত সব শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের প্রত্যাহার করে কলেজগুলো শিক্ষা ক্যাডারের অনুপ্রবেশ বন্ধ করার দাবি জানিয়েছেন তারা। একই সাথে পিএসসির মাধ্যমে সরকারিকৃত কলেজেগুলো ননক্যাডার প্রভাষকদের নিয়োগ দেয়ার দাবি জানিয়েছেন। 

এসব দাবি জানিয়ে জেলায় জেলায় মানববন্ধন করেছেন সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকরা। সরকারি কলেজ শিক্ষক সমিতি (সকশিস) জেলায় জেলায় এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। গাজীপুর, সিলেট ও কিশোরগঞ্জে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জেলা-জেলায় মানববন্ধন করে সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকরা বেশ কিছু দাবি জানিয়েছেন। এগুলো হল: প্রতিষ্ঠান সরকারিকরণের জন্য প্রজ্ঞাপন জারির তারিখে কর্মরত সকল শিক্ষক-কর্মচারীকে এবছরের ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে অ্যাডহক নিয়োগ দিতে হবে, প্রতিষ্ঠানিক ত্রুটির জন্য যথাযথভাবে নিয়োগ পাওয়া শিক্ষক-কর্মচারীকে আত্তীকরণ বঞ্চিত করা ও হয়রানি করা যাবে না, মন্ত্রণালয়ের আত্তীকরণের যাচাই-বাছাইকাজে বেসরকারি কলেজের নিয়োগ সম্পর্কে অভিজ্ঞতা আছে এমন ব্যাক্তি বা আগে আত্তীকৃত হয়েছেন তাদেরকে এবং বর্তমানে যারা আত্তীকৃত হতে যাচ্ছে তাদের প্রতিনিধি অন্তর্ভূক্ত করতে হবে, সদ্য সরকারিকৃত কলেজগুলোর থেকে সংযুক্তি আদেশপ্রাপ্ত সকল শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের অবলম্বে প্রত্যাহার এবং শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের অনুপ্রবেশ বন্ধ করতে হবে, শূন্যপদগুলো পিএসসি কতৃক ননক্যাডার প্রভাষক নিয়োগ দিতে দিবে এবং এনাম কমিটির সুপারিশ ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন কলেজ শিক্ষক পদোন্নতির প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী পদ ও পদসোপান সৃজন করে পদোন্নতি দিতে হবে, যোগদানের তারিখ থেকে চাকুরি শতভাগ গণনা করে কার্যকর চাকরিকাল নির্ধারণ এবং পদোন্নতিসহ সকল ক্ষেত্রেই তা কার্যকর করতে হবে এবং সরকারি চাকরি নীতিমালা অনুসরণ করে আত্তীকৃত শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকরি বদলিযোগ্য করতে হবে। 

সিলেটে জেলা কমিটির উদ্যোগে মঙ্গলবার সকালে নগরীর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের পাশে মানববন্ধন করেন সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকরা। এ সময় বক্তারা সময়ক্ষেপণ না করে, দ্রুততম সময়ের মধ্যে অ্যাডহক নিয়োগের দাবি জানান। আগামী ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে আত্তীকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে অ্যাডহক নিয়োগ শেষ করার জোর দাবি জানন বক্তারা। সিলেটের মানববন্ধনে অংশ নেন, সকশিসের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক দীপু কুমার গোপ, সিলেট জেলা কমিটির সভাপতি আব্দুল হামিদ, সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কমিটির  যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক  জুলহাস আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক (বিভাগীয়) জয়নুল ইসলাম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক অসীম কুমার তালুকদার, সিলেট আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি শাহেদ আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেমসহ জেলার সরকারিকৃত কলেজের শিক্ষক কর্মচারীরা। 

এদিকে একই দাবিতে মঙ্গলবার সকালে গাজীপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে ভাওয়াল রাজবাড়ি সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে শিক্ষকরা মানববন্ধন, সমাবেশ ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন। কাপাসিয়া উপজেলার শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সরকারি কলেজ, কালীগঞ্জ উপজেলার কালীগঞ্জ সরকারি শ্রমিক কলেজ ও শ্রীপুর উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী কলেজের শিক্ষকরা মানববন্ধন ও সমাবেশে অংশ নেন। মানববন্ধনে অংশ নেন, গাজীপুর শাখার সভাপতি ও শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো. ইফতেখারুল আলম, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মাহবুবুল আলম, জেলা কমিটির সহ-সভাপতি মো. শাহীনূর ইসলাম, শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো. মোহসীন, সহকারী অধ্যাপক আব্দুস সাদেকসহ। 

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সকালে কিশোরগঞ্জ জেলার সরকারিকৃত ১০টি কলেজের চার শতাধিক শিক্ষক-কর্মচারীকে বিজয় দিবসের আগে অ্যাডহক নিয়োগের দাবিকে মানববন্ধন কর্মসূচিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধনে কিশোরগঞ্জ সরকারি কলেজ শিক্ষক সমিতির জেলা সভাপতি লুৎফর রহমান মানিক ও সাধারণ সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলামসহ সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকরা অংশ নেন। 

সরকারি কলেজ শিক্ষক সমিতির নেতারা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, বেসরকারি থেকে আত্তীকরণের জন্য কয়েকবছর ধরে আমাদের কলেজগুলোর কাগজ-পত্র যাচাই-বাছাইয়ের নামে কালক্ষেপণ করা হচ্ছে। কলেজ সরকারি হলেও শিক্ষক-কর্মচারীরা আগের মতোই বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীর মতো বেতন-ভাতা পাচ্ছেন। ইতোমধ্যে কয়েক হাজার শিক্ষক-কর্মচারী সরকারিকরণের সুযোগ-সুবিধা না পেয়ে অবসরে চলে গেছেন। যাদের বয়স ৫৯ বছর হয়েছে তাদের নাম ছাড়াই পদ সৃজনের প্রস্তাব দেয়া হচ্ছে, যা অযৌক্তিক, অমানবিক, বৈষম্যমূলক ও মানবাধিকারের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। আমরা এসব থেকে দ্রুত মুক্তি চাই এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করি। 

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

নিজ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করবেন - dainik shiksha নিজ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করবেন টিউশন ফি দিতে হবে সরকারি স্কুলের শিক্ষার্থীদেরও - dainik shiksha টিউশন ফি দিতে হবে সরকারি স্কুলের শিক্ষার্থীদেরও একই রোল নিয়ে পরের ক্লাসে যাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা - dainik shiksha একই রোল নিয়ে পরের ক্লাসে যাবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা ৪৩তম বিসিএসে ১ হাজার ৮১৪ জন প্রার্থী নিয়োগের উদ্যোগ - dainik shiksha ৪৩তম বিসিএসে ১ হাজার ৮১৪ জন প্রার্থী নিয়োগের উদ্যোগ এসএসসিতে পাঁচ বিষয়ে পরীক্ষা, সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন - dainik shiksha এসএসসিতে পাঁচ বিষয়ে পরীক্ষা, সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় নম্বর বন্টন যেভাবে - dainik shiksha ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় নম্বর বন্টন যেভাবে সাত ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষার আসন বিন্যাস প্রকাশ - dainik shiksha সাত ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষার আসন বিন্যাস প্রকাশ ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে প্রাথমিকের ক্লাস রুটিন - dainik shiksha ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে প্রাথমিকের ক্লাস রুটিন ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের ক্লাস রুটিন - dainik shiksha ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের ক্লাস রুটিন please click here to view dainikshiksha website