সাংবাদিক মিজানুর রহমান খানের মৃত্যুতে ঢাবি ভিসির শোক - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

সাংবাদিক মিজানুর রহমান খানের মৃত্যুতে ঢাবি ভিসির শোক

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বাংলাদেশে সংবিধান ও আইন-আদালত বিষয়ক সাংবাদিকতার বাতিঘর মিজানুর রহমান খানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

সোমবার  (১১ জানুয়ারি) এক শোকবাণীতে উপাচার্য বলেন, মিজানুর রহমান খান ছিলেন একজন সুপরিচিত সাংবাদিক ও কলাম লেখক। তথ্য-উপাত্তের বস্তুনিষ্ঠ বহুমাত্রিক বিশ্লেষণে তিনি পারদর্শী ছিলেন। কোন বিষয়বস্তুর আইনি কাঠামো ও পরিকাঠামো সংশ্লেষণে তিনি ছিলেন সিদ্ধহস্ত। তাঁর মৃত্যুতে দেশ একজন বিদগ্ধ সাংবাদিক ও কলাম লেখককে হারাল।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তাঁর পরিবারের শোক-সন্তপ্ত সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

গত ২৭ নভেম্বর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন তিনি। প্রথমে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। সেখানে সমস্যা বাড়লে গত ১০ ডিসেম্বর তাঁকে মহাখালীর  ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁকে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে রেখে চিকিৎসা করানো হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত শনিবার বিকেলে তাঁকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। আজ সন্ধ্যা ছয়টা পাঁচ মিনিটে তাকে মৃত ঘোষণা করেন দায়িত্বরত চিকিৎসক।

তাঁর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, আগামীকাল মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গনে ও সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বেলা ১১ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর তাঁর মরদেহ কর্মস্থল দৈনিক প্রথম আলো অফিসে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে জানাজা শেষে বাদ যোহর তাকে বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

অনুদানের টাকা পেতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনলাইন আবেদন শুরু ১ ফেব্রুয়ারি - dainik shiksha অনুদানের টাকা পেতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনলাইন আবেদন শুরু ১ ফেব্রুয়ারি উপবৃ্ত্তি পেতে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক - dainik shiksha উপবৃ্ত্তি পেতে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক পিকে হালদার কাণ্ডে এন আই খানের নাম ভুলভাবে যুক্ত হওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের আবেদন - dainik shiksha পিকে হালদার কাণ্ডে এন আই খানের নাম ভুলভাবে যুক্ত হওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের আবেদন বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় ন্যূনতম ফি নেয়ার সিদ্ধান্ত - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় ন্যূনতম ফি নেয়ার সিদ্ধান্ত সংসদে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবি - dainik shiksha সংসদে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবি সব সহকারী শিক্ষককে ১৩তম গ্রেডে বেতন দিতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মতি - dainik shiksha সব সহকারী শিক্ষককে ১৩তম গ্রেডে বেতন দিতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মতি প্রাথমিকে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা জানতে চেয়ে চিঠি - dainik shiksha প্রাথমিকে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা জানতে চেয়ে চিঠি please click here to view dainikshiksha website