সেই শিক্ষককে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিতে হবে - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

সেই শিক্ষককে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিতে হবে

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি |

অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের প্রতিবাদ করায় বাস থেকে ফেলে দেওয়া স্কুল শিক্ষক রহমত উল্লাহ'র চিকিৎসা চলছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তিনি আশঙ্কামুক্ত। তবে দীর্ঘদিন চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে তাকে। আহত শিক্ষকের দীর্ঘ মেয়াদে চিকিৎসা চালানোর সক্ষমতা নেই জানিয়ে তার সুচিকিৎসা নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। এদিকে বাসটি জব্দ করা হলেও চালক ও তার সহকারীকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ। তাদের অজুহাত, কোন অভিযোগ না পাওয়ায় তাদের গ্রেফতার করা যাচ্ছে না।

গত শনিবার সকালে নগরের অক্সিজেন থেকে নিউমার্কেট যাওয়ার পথে পুরাতন রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয় স্কুল শিক্ষক রহমত উল্লাহকে। তিনি নগরের পাঁচলাইশের শাহ হাবিব উল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। চট্টগ্রাম নগরের মেহেদীবাগ বেসরকারি ন্যাশনাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

ন্যাশনাল হাসপাতালের অর্থোপেডিক্স বিভাগের চিকিৎসক মোহাম্মদ মামুন বলেন, ‘উনার কোমরে চিড় ধরেছে। এটি দেড়মাস মতো বিশ্রামে থাকলে ঠিক হয়ে যাবে। তবে বাম পায়ের মাংস থেঁতলে গেছে। চামড়া চলে গেছে। আরও যাবে। দুই সপ্তাহ ড্রেসিং করার পর প্লাস্টিক সার্জারি করতে হবে। তাকে প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগে রেফার করা হবে। উনাকে দীর্ঘ মেয়াদে চিকিৎসা চালাতে হবে। চামড়া চলে যাওয়া অংশে কোন সংক্রমণ না হলে দ্রুত সেরে উঠবে আশা করছি।’

এদিকে বাস থেকে শিক্ষককে ফেলে দেওয়ার অভিযোগে নগরের ৮ নম্বর রুটে (নিউমার্কেট-অক্সিজেন) চলাচলরত সৌরভ পরিবহনের বাসটি জব্দ করলেও চালক ও তার সহকারীকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ। বাস মালিকের পক্ষ থেকেও আহত শিক্ষকের পরিবারের সঙ্গে কোন ধরণের যোগাযোগ করা হয়নি। 

এ প্রসঙ্গে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নেজাম উদ্দীন বলেন, ‘বাস থেকে ফেলে দেওয়ার কথা শুনে বাসটি জব্দ করেছি। কিন্তু ওই শিক্ষক বা তার পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না দেওয়ায় চালক ও সহকারীকে গ্রেফতার করতে পারছি না। অভিযোগ পেলে  তাদেরকে গ্রেফতার করা হবে।’

রহমত উল্লাহ ছোট ভাই আরিফ উল্লাহ বলেন, ‘আমার ভাইয়ের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা নিয়ে আমরা চিন্তিত। চিকিৎসকরা বলছেন, দীর্ঘমেয়াদে চিকিৎসা নিতে হবে। কিন্তু দীর্ঘমেয়াদে চিকিৎসা চালিয়ে যাওয়ার সক্ষমতা আমাদের নেই। আমরা এখনো মামলা করার কথা ভাবছি না। আমরা চাই আমাদের ভাইয়ের সুচিকিৎসাটা যেন নিশ্চিত করা হয়।’

আহত শিক্ষকের সহকর্মী অভিজিৎ বড়ুয়া জানান, রহমত উল্লাহ প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে (পিটিআই) প্রশিক্ষণে আছেন। নগরের অক্সিজেনের বাসা থেকে নিউ মার্কেট যাচ্ছিলেন। আগে অক্সিজেন থেকে নিউ মার্কেট ৮-১০ টাকা ভাড়া ছিল। এখন ১৫ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করেছে। কিন্তু হেলপার ১৭ টাকা দাবি করেন। রহমত উল্লাহ প্রতিবাদ জানিয়ে ১৭ টাকা দিয়ে নামার সময় হেলপার তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে দীর্ঘক্ষণ বিনা চিকিৎসায় ফেলে রাখায় তার স্বজনরা তাকে বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

ডোপ টেস্ট ছাড়াই কলেজভর্তি - dainik shiksha ডোপ টেস্ট ছাড়াই কলেজভর্তি সব শিক্ষকের করোনা শনাক্ত, স্কুল বন্ধ ঘোষণা - dainik shiksha সব শিক্ষকের করোনা শনাক্ত, স্কুল বন্ধ ঘোষণা প্রাথমিকে স্কুল ফিডিং প্রকল্পের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ছে - dainik shiksha প্রাথমিকে স্কুল ফিডিং প্রকল্পের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ছে পুলিশের মামলায় আসামি শিক্ষার্থীরা, অভিযোগ ‘গুলি ও পুলিশকে হত্যাচেষ্টার’ - dainik shiksha পুলিশের মামলায় আসামি শিক্ষার্থীরা, অভিযোগ ‘গুলি ও পুলিশকে হত্যাচেষ্টার’ করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা, মধ্যম ঝুঁকিতে ৩১ - dainik shiksha করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা, মধ্যম ঝুঁকিতে ৩১ ছাত্রীর পা থেঁতলে দিল বখাটেরা, আহত আরো ২০ - dainik shiksha ছাত্রীর পা থেঁতলে দিল বখাটেরা, আহত আরো ২০ ১৭ বিএড কলেজে ভর্তি চলছে - dainik shiksha ১৭ বিএড কলেজে ভর্তি চলছে সংক্রমণ আরও বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha সংক্রমণ আরও বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত : শিক্ষামন্ত্রী please click here to view dainikshiksha website