স্কুলছাত্রী ধর্ষণ ও হত্যা : বিচার দাবিতে মোমবাতি প্রজ্বলন - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

স্কুলছাত্রী ধর্ষণ ও হত্যা : বিচার দাবিতে মোমবাতি প্রজ্বলন

নিজস্ব প্রতিবেদক |
মোমবাতি প্রজ্বলনের মাধ্যমে রাজধানীতে মাস্টারমাইন্ড স্কুলের ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় বিচার দাবি করেছে ‘নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম’। বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।
 
নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের উদ্যোগে মাস্টারমাইন্ডের ছাত্রী ধর্ষণ ও হত্যাসহ সারাদেশে নারী ও শিশুদের ওপর নিযার্তন-নিপীড়নের প্রতিবাদে আয়োজিত এই কর্মসূচিতে সংগঠনের কয়েকশ নেতাকর্মী অংশ নেন।
 
‘স্টপ চিলড্রেন হ্যারাজমেন্ট’, ‘বিকৃত যৌনাচার বন্ধ কর’, ‘মাস্টারমাইন্ডের ছাত্রী হত্যাকারীর বিচার চাই’ ‘জেগে ওঠো, শিশুদের রক্ষা করো’ ইত্যাদি নানা ধরনের বক্তব্য লেখা প্ল্যাকার্ড ও মোমবাতি হাতে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ করেন তারা।
 
কর্মসূচিতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘তার মা কী বলেছেন? বিচার চাওয়ার পর তাদের নিরাপত্তা হুমকির মুখে। এমন ব্যবস্থার মধ্যে দেশ চলতে পারে না।’
 
তিনি বলেন, ‘জনগণের প্রতি সরকারের কোনো দায়বদ্ধতা নেই। তাদের পছন্দ-অপছন্দে তোয়াক্কা সরকার করে না। দাসত্ব গ্রহণ করার জন্য প্রতিবেশীদের খুশি করে ক্ষমতায় থাকাটাই সরকারের একমাত্র লক্ষ্য।’ এই অবস্থা থেকে উত্তরণে সকলকে সোচ্চার হয়ে প্রতিবাদ জানানোর আহ্বান জানান তিনি।
 
বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব নিপুণ রায় চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম ও যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন।
 
কর্মসূচিতে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা শিরিন সুলতানা, মীর সরফত আলী সপু, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, বিলকিস ইসলাম, ফরিদা ইয়াসমীনসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
 
গত ৭ জানুয়ারি রাজধানীর কলাবাগানে বন্ধু তানভীর ইফতেখার দিহানের বাসায় গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন ওই ছাত্রী। পরে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।
অনুদানের টাকা পেতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনলাইন আবেদন শুরু ১ ফেব্রুয়ারি - dainik shiksha অনুদানের টাকা পেতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনলাইন আবেদন শুরু ১ ফেব্রুয়ারি উপবৃ্ত্তি পেতে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক - dainik shiksha উপবৃ্ত্তি পেতে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক পিকে হালদার কাণ্ডে এন আই খানের নাম ভুলভাবে যুক্ত হওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের আবেদন - dainik shiksha পিকে হালদার কাণ্ডে এন আই খানের নাম ভুলভাবে যুক্ত হওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের আবেদন বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় ন্যূনতম ফি নেয়ার সিদ্ধান্ত - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় ন্যূনতম ফি নেয়ার সিদ্ধান্ত সংসদে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবি - dainik shiksha সংসদে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবি সব সহকারী শিক্ষককে ১৩তম গ্রেডে বেতন দিতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মতি - dainik shiksha সব সহকারী শিক্ষককে ১৩তম গ্রেডে বেতন দিতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মতি প্রাথমিকে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা জানতে চেয়ে চিঠি - dainik shiksha প্রাথমিকে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা জানতে চেয়ে চিঠি please click here to view dainikshiksha website