স্কুলভর্তির আবেদন শুরু - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

স্কুলভর্তির আবেদন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক |

দেশের সরকারি-বেসরকারি স্কুলে ভর্তির আবেদন গ্রহণ আজ বুধবার (১৬ নভেম্বর) থেকে শুরু হয়েছে। বেলা ১১টা থেকে ভর্তির অনলাইনে আবেদন করার সুযোগ পাচ্ছেন প্রার্থী ও তাদের অভিভাবকরা। আগামী ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তির আবেদন করা যাবে। ভর্তির আবেদন ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১১০ টাকা। সব সরকারি ও বেসরকারি স্কুলে লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে। আগামী ১০ ডিসেম্বর সরকারি স্কুলে ভর্তির লটারি ও ১৩ ডিসেম্বর বেসরকারি স্কুলে ভর্তির লটারি অনুষ্ঠিত হবে। আর ২০২৩ খ্রিষ্টাব্দে প্রথম শ্রেণিতে ভর্তির বয়স নির্ধারণ করা হয়েছে ছয় বছরের বেশি।

জানা গেছে, ৬ ডিসেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনলাইনে নির্ধারিত ওয়েবসাইটে  (http://gsa.teletalk.com.bd) প্রবেশ করে সরকারি ও বেসরকারি স্কুলে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। ভর্তির জন্য কোনো ফরম বিতরণ করা হবে না। ভর্তির আবেদন ফিয়ের ১১০ টাকা শুধুমাত্র টেলিটক প্রিপেইড মোবাইল থেকে এসএমএসের মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক ২০২৩ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্য জাতীয় শিক্ষানীতি-২০১০ অনুযায়ী ১ম শ্রেণিতে শিক্ষার্থীর বয়স ৬ বছরের বেশি নির্ধারণ করা হয়েছে। নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ২৮ ডিসেম্বরের মধ্যে ভর্তি করতে হবে সরকারি বেসরকারি স্কুলগুলোকে।

সরকারি স্কুলের ভর্তির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঢাকা মহানগরীর সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো (৩টি ফিডার শাখাসহ) ৩টি ভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত থাকবে। আবেদনের সময় একজন প্রার্থী একই গ্রুপে পছন্দের ক্রমানুসারে ৫টি বিদ্যালয় নির্বাচন করতে পারবে। এছাড়াও সারাদেশে আবেদনকারীরা আবেদনের সময় প্রতিষ্ঠান নির্বাচনের জন্য থানাভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা পাবেন। এক্ষেত্রে প্রার্থীরা প্রাপ্যতার ভিত্তিতে প্রতিটি আবেদনে সর্বোচ্চ ৫টি বিদ্যালয় পছন্দের ক্রমানুসারে নির্বাচন করতে পারবেন। ডাবল শিফটের প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে উভয় শিফট পছন্দ করলে দুটি পছন্দক্রম সম্পন্ন হয়েছে বলে বিবেচিত হবে। একই পছন্দক্রমের বিদ্যালয় কিংবা শিফট দ্বিতীয় বার পছন্দ করা যাবে না। 

বেসরকারি স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঢাকা মহানগরীর বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠান সংলগ্ন কমপক্ষে একটি এবং সর্বোচ্চ ৩টি থানা ক্যাচমেন্ট এরিয়া হিসেবে নির্ধারণ করা যাবে। এছাড়াও প্রার্থীরা আবেদনের সময় প্রতিষ্ঠান নির্বাচনের সময় মহানগর পর্যায়ের জন্য বিভাগীয় সদরের মেট্রোপলিটন এলাকা এবং জেলা সদরের সদর উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা পাবে। প্রার্থীরা প্রাপ্যতার ভিত্তিতে প্রতিটি আবেদনে সর্বোচ্চ পাঁচটি বিদ্যালয় পছন্দের ক্রমানুসারে নির্বাচন করতে পারবে। ডাবল শিফটের প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে উভয় শিফট পছন্দ করলে দুটি পছন্দক্রম সম্পন্ন হয়েছে বলে বিবেচিত হবে। একই পছন্দক্রমের বিদ্যালয় বা শিফট দ্বিতীয়বার পছন্দ করা যাবে না।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, ২০২৩ শিক্ষাবর্ষে কেন্দ্রীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠেয় ডিজিটাল লটারি কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের বাইরের প্রতিষ্ঠানগুলোকেও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের গঠিত ভর্তি কমিটির মাধ্যমে লটারি প্রক্রিয়ায় শিক্ষার্থী নির্বাচন করে ২৮ ডিসেম্বরের মধ্যে ভর্তির কাজ সম্পন্ন করতে হবে। ঢাকা মহানগরী ছাড়া কেন্দ্রীয় ডিজিটাল লটারি প্রক্রিয়ার বাইরের প্রতিষ্ঠানগুলো শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের গঠিত (ভর্তি নীতিমালা অনুযায়ী) ভর্তি কমিটির প্রতিনিধির উপস্থিতিতে লটারি কার্যক্রমের আয়োজন করতে হবে। ডিজিটাল লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন প্রক্রিয়া ছাড়া অন্য কোন পরীক্ষা গ্রহণ করা যাবে না। 

অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ যেভাবে :

নির্ধারিত ওয়েবসাইটে (http://gsa.teletalk.com.bd) প্রবেশ করে সরকারি-বেসরকারি স্কুলের ভর্তির অনলাইন আবেদন করা যাবে। পরে টেলিটক প্রিপেইড মোবাইল নম্বর থেকে এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন ফি দেয়া যাবে। অনলাইনে ১৬ নভেম্বর থেকে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্কুলে ভর্তির আবেদন অনলাইনে করা যাবে। অনলাইনে আবেদন  সাবমিট করলে প্রার্থীরা ইউজার আইডি পাবেন। ইউজার আইডি ব্যবহার করে টেলিটক প্রিপেইড নম্বরে মধ্যেমে এসএমএসে ফি দেয়া যাবে। ৬ ডিসেম্বর রাত ১২টা পর্যন্ত ফি জমা দেয়া যাবে।

নির্ধারিত ওয়েবসাইট (http://gsa.teletalk.com.bd) ব্রাউজ করে আবেদনপত্র পূরণ ও সাবমিট করতে হবে। অনলাইনে আবেদনপত্রের নির্দেশনা মতে প্রার্থী তার সব তথ্য পূরণ করবেন। যেসব প্রার্থী বিভিন্ন কোটায় আবেদন করবেন তাদের কোটার বিষয়টি অবশ্যই উল্লেখ করতে হবে। তা না হলেও কোটা বিবেচনা করা সম্ভব হবে না। আবেদন পত্রে প্রার্থীদের রঙিন ছবি (দৈর্ঘ্য ৩০০x প্রস্থ ৩০০ পিক্সেল) স্ক্যান করে জেপিইজি ফরমেটে নির্ধারিত স্থানে আপলোড করতে হবে। নির্ভুলভাবে আবেদন সম্পন্ন হলেও ইউজার আইডি ও ছবিসহ অ্যাপ্লিক্যান্ট কপি পাবেন। অনলাই আবেদনের প্রিন্ট বা ডাউনলোড কপি ভর্তি সংক্রান্ত যেকোনো প্রয়োজনে সহায়ক হিসেবে সংরক্ষণ করবেন। 

ফি জমা :

আবেদন সাবমিট করে প্রার্থীদের পাওয়া ইউজার আইডি দিয়ে টেলিটকের প্রিপেইড নম্বর থেকে দুইটি এসএমএস পাঠিয়ে আবেদন ফি জমা দিতে হবে। এজন্য প্রথমে মোবাইলে ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে GSA লিখে স্পেস দিয়ে ইউজার আইডি লিখে 16222 নম্বরে সেন্ড করতে হবে। ফিরতি এসএমএসে শিক্ষার্থীর নামসহ একটি পিন নম্বর পাওয়া যাবে। যা দিয়ে দ্বিতীয় এসএমএস করতে হবে। দ্বিতীয় এসএমএস পাঠাতে ম্যাসজে অপশনে গিয়ে GSA লিখে স্পেস দিয়ে YES লিখে স্পেস দিয়ে পিন নম্বর লিখে 16222 নম্বরে সেন্ড করতে হবে। আবেদনের সব অংশ পূরণ করে জমা দিলেও ফি জমা না দেয়া পর্যন্ত আবেদন গৃহীত হবে না। ইউজার আইডি বা পিন ভুলে গেলে তা এসএমএসের মাধ্যমে পুনরুদ্ধার করা যাবে। 

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল   SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

চূড়ান্ত নিয়োগ সুপারিশ পেলেন পৌনে পাঁচ হাজার নতুন শিক্ষক - dainik shiksha চূড়ান্ত নিয়োগ সুপারিশ পেলেন পৌনে পাঁচ হাজার নতুন শিক্ষক চাকরি ছেড়ে পালাচ্ছেন জাল শিক্ষকরা - dainik shiksha চাকরি ছেড়ে পালাচ্ছেন জাল শিক্ষকরা প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব পদে পরিবর্তন - dainik shiksha প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব পদে পরিবর্তন সভাপতির বাড়িতে মাদরাসার নিয়োগ পরীক্ষা নয় - dainik shiksha সভাপতির বাড়িতে মাদরাসার নিয়োগ পরীক্ষা নয় শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের সিরিজ জয় - dainik shiksha শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের সিরিজ জয় please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.004166841506958