১০ শিক্ষককে বোর্ডে তলব - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

১০ শিক্ষককে বোর্ডে তলব

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১০ জন শিক্ষককে তলব করেছে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড। বিভিন্ন অভিযোগের প্রেক্ষিতে বোর্ডের আপিল এন্ড আরবিট্রেশন কমিটির সভায় তাদের তলব করা হয়েছে। আগামী ১৬ জানুয়ারি (রোববার) সকালে বাদী-বিবাদী হিসেবে তাদের সভায় উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার ঢাকা বোর্ডের জারি করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তির সাথে অভিযুক্ত ১০ শিক্ষকের নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

জানা গেছে, আগামী ১৬ জানুয়ারি (মঙ্গলবার) সকাল ১০টায় ঢাকা বোর্ডের সভা কক্ষে আপিল অ্যান্ড আরবিট্রেশন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় অভিযুক্ত ১০ শিক্ষকের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। ১০ শিক্ষককে শুনানিতে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন জটিলতা বিশেষ করে কোন শিক্ষককে বরখাস্ত করা হলে তা শিক্ষা বোর্ডের আপিল এন্ড আরবিট্রেশন কমিটির উত্থাপন করে অনুমোদন করিয়ে নিতে হয়। এ সভায় অভিযুক্ত শিক্ষক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ উভয়ই বোর্ডের আপিল এন্ড আরবিট্রেশন কমিটির সামনে নিজ নিজ যুক্তি ও বক্তব্য উপস্থাপনের সুযোগ পান। 

১০ জন শিক্ষকের তালিকা দৈনিক শিক্ষাডটকমের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস - dainik shiksha মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের please click here to view dainikshiksha website