১৩ বস্তা বিনামূল্যের বইসহ দপ্তরি আটক, অভিযোগের তীর প্রধান শিক্ষকের দিকে - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

১৩ বস্তা বিনামূল্যের বইসহ দপ্তরি আটক, অভিযোগের তীর প্রধান শিক্ষকের দিকে

কাউখালী ( পিরোজপুর) প্রতিনিধি |

প্রাক-প্রাথমিক থেকে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ১৩ বস্তা সরকারি বিনামূল্যের পাঠ্যবই বিক্রির অভিযোগ উঠেছে পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার ১৪ নং মধ্য সোনাকুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রসনা বড়ালের বিরুদ্ধে। বইগুলো বিক্রির সময় এলাকাবাসীর হাতে স্কুলের দপ্তরি কাম প্রহরী মো. রেজাউল হোসেন আটক হয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। পরে, উপজেলা শিক্ষা অফিসের কর্মকর্তারা বইগুলো জব্দ করেন।  

জানা গেছে, মঙ্গলবার ( ১৪ সেপ্টেম্বর) বিদ্যালয় ছুটির পর পুরাতন বই ক্রেতা শহিদুল বিদ্যালয়ের দপ্তরি কাম প্রহরী মো. রেজাউল হোসেনের সহযোগিতায়  বই নিতে আসলে বিনামূল্যের বই বিক্রির বিষয়টি জানাজানি হয়। পরবর্তীতে এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়। পরে বিক্রিত বই ভ্যানে তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় এলাকার জনগণ চৌকিদারের সহায়তায় বইগুলোসহ দপ্তরিকে আটক করে। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার কে এম জামান ঘটনাস্থলে যান।

পরে, সেখানে উপস্থিত থাকা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও এলাকাবাসীর সামনেই বইগুলো জব্দ করে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ইন্দ্রজিৎ কুন্ডুর জিম্মায় রাখা হয়।
 
এলাকাবাসী দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, করোনাকালীন সময়ে বিদ্যালয় বন্ধ থাকার পর গত ১২ সেপ্টেম্বর বিদ্যালয় খোলা হয়। খোলার সাথে সাথেই ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ওই বইগুলো দপ্তরির সহযোগিতায় বিক্রির পায়তারা শুরু করে। স্কুল খোলার দিন বই ক্রেতা শহীদের সাথে স্কুলে বসে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রসনা বড়াল বই বিক্রির দরদাম ঠিক করেন। স্কুল সময়কালেও পুরাতন বই ব্যবসায়ী শহীদুল স্কুলে এসেছিল। সেখানে কথা চূড়ান্ত হওয়ার পরেই স্কুল ছুটির পর দপ্তরির সহায়তায় ক্রয়কৃত বই নিতে আসে শহীদুল।
 
এ বিষয়টি এলাকাবাসীর নজরে আসলে তারা ইউপি চেয়ারম্যানকে জানানো হয়। পরে ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে স্থানীয় চৌকিদারের সহায়তায় ক্রেতার ভ্যানসহ বইগুলো আটকে দেওয়া হয়। বিক্রিত বইগুলোর মধ্যে প্রাক প্রাথমিক থেকে ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত পুরানো ও নতুন বই রয়েছে। এছাড়া প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক সরবরাহকৃত আরও অনেক বইও রয়েছে এর মধ্যে ।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. আব্দুল হাকিম দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, ঘটনার সময় দাপ্তরিক মামলা সংক্রান্ত কাজে বরিশালে ছিলাম। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের ফোন পেয়ে সংশ্লিষ্ট সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার কে এম জামানকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ছবি : কাউখালী প্রতিনিধি 

সহকারী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার কে এম জামান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, আমি উপজেলা শিক্ষা অফিসারের নির্দেশ পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে গিয়ে আমি শিক্ষক, ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বার ও এলাকাবাসীর উপস্থিতিতে বইগুলো জব্দ করে কক্ষ সিলগালা করে আসি। আমি যা জেনেছি তা উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে জানিয়েছি।

ইউপি চেয়ারম্যান মো. জাহাঙ্গীর হোসেন দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, বই বিক্রির খবর পেয়ে আমি বিদ্যালয়ে যাই। বিদ্যালয়ে গিয়ে আমরা বই ক্রেতা ও দপ্তরির কথা শুনে ১৩ বস্তা বই মেম্বরের জিম্মায় রেখে আসি।

বিদ্যালয়ের দপ্তরি মো. রেজাউল জানান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে বই ক্রেতাকে গাইড বইসহ পুরানো বই , খাতা ও অন্যান্য মালামাল গুছিয়ে দিচ্ছিলাম। বই কেনাবেচার বিষয়ে আমি কিছু জানিনা। বই ক্রেতার সাথে বেচাকেনার কথা হয়েছে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের সাথে। প্রধান শিক্ষক যা হুকুম করবেন তা পালন করার দায়িত্ব আমার ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রসনা বড়াল বই বিক্রির বিষয়টি অস্বীকার করে দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, বইগুলো গুছিয়ে রুম পরিস্কার করার জন্য দপ্তরিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদযাপন করা হবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদযাপন করা হবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের ওপর ফের চড়াও রাজশাহী বোর্ড কর্মচারীরা - dainik shiksha শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের ওপর ফের চড়াও রাজশাহী বোর্ড কর্মচারীরা ঢাবির হল খুলছে ৫ অক্টোবর - dainik shiksha ঢাবির হল খুলছে ৫ অক্টোবর এসএসসি পরীক্ষা শুরু নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে - dainik shiksha এসএসসি পরীক্ষা শুরু নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খুলছে না এ বক্তব্য হাস্যকর : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খুলছে না এ বক্তব্য হাস্যকর : শিক্ষামন্ত্রী ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী উপসচিবের বিরুদ্ধে শিক্ষিকার ধর্ষণ মামলা - dainik shiksha উপসচিবের বিরুদ্ধে শিক্ষিকার ধর্ষণ মামলা অবৈধ সম্পদ অর্জন : সাবেক শিক্ষা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা - dainik shiksha অবৈধ সম্পদ অর্জন : সাবেক শিক্ষা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা please click here to view dainikshiksha website