৫৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের তোড়জোড় - শিক্ষক নিবন্ধন - দৈনিকশিক্ষা

৫৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের তোড়জোড়

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৫৬ হাজার শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশে তোড়জোড় শুরু করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। আইন মন্ত্রণালয় থেকে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের বিষয়ে মতামত এসেছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে দ্রুত গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে বলে দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানিয়েছেন এনটিআরসিএর চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন। গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশে আইন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে যে মতামত চাওয়া হয়েছিল তা এসেছে। কিছু বিষয়ে আদালতের নির্দেশনা আছে। বিষয়গুলো নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাথে আলোচনা করে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে, যোগ করেন চেয়ারম্যান।  

কবে নাগাদ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, ‘আমরা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাথে আলোচনা করবো। আদালতের কিছু আদেশ নির্দেশনা আছে। আদালতের আদেশ নির্দেশনাগুলোর প্রেক্ষিতে কিভাবে কোন জটিলতা ছাড়া গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে আবেদন গ্রহণ করা যায় তার কর্মপরিকল্পনা নির্ধারণ করতে হবে। আদালতের নির্দেশনাগুলো নিয়ে আলোচনার পর আগামী সপ্তাহে সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে বলে আশা করছি ‘

কতগুলো পদে প্রেক্ষিতে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে জানতে চাইলে আশরাফ উদ্দিন দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, ৫৭ হাজারের কিছু বেশি অফিসিয়াল শূন্যপদের তথ্য এনটিআরসিএর কাছে আছে। এসব পদের মধ্যে থেকে ১ হাজার ২৮৪টি পদে আগের নিয়োগের ভুক্তভোগীদের নিয়োগ সুপারিশ করা হয়েছে। সে হিসেবে ৫৬ হাজারের মত শূন্যপদে নিয়োগ সুপারিশের জন্য গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।  

জানা গেছে, বেসরকারি শিক্ষক পদে নিয়োগের সুযোগ পেতে ১৩তম নিবন্ধনধারীরা রিট মামলা করেছিলেন। রিটকার ২ হাজার প্রার্থীকে আবেদনের সুযোগ দিতে আদালতের নির্দেশনাও আছে। এছাড়া যাদের বয়স ৩৫ বছর হয়ে গেছে তাদের আবেদনের সুযোগের বিষয়ে আদালতের নির্দেশনা আছে। এসব নির্দেশনার প্রেক্ষিতে কিভাবে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা যায় তা নিয়ে মন্ত্রণালয়ের সাথে আলোচনা করবেন এনটিআরসিএর কর্মকর্তারা। 

এনটিআরসিএর কর্মকর্তারা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, নিয়োগ সুপারিশ পেয়ে কেউ যাতে জটিলতায় না পড়ে সে বিষয়টি নিশ্চিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এ বিষয়টি নিশ্চিত করেতে আদালতের নির্দেশনাগুলো নিয়ে মন্ত্রণালয়ের সাথে আলোচনা করে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।

এদিকে দু-একদিনের মধ্যে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের দাবি প্রার্থীরা। তাদের দাবি, অনেকের বয়স ৩৫ বছরের বেশি হয়ে যাচ্ছে। তাই, গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশে দেরি হলে তারা আবেদনের সুযোগ পাবেন না। তাই দ্রুত গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে আবেদনের সুযোগ দেয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা। 

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

উন্নয়নশীল দেশের কাতারে বাংলাদেশ - dainik shiksha উন্নয়নশীল দেশের কাতারে বাংলাদেশ স্কুল-কলেজ খোলা এখনও ঝুঁকিপূর্ণ, মত আওয়ামী লীগ নেতাদের - dainik shiksha স্কুল-কলেজ খোলা এখনও ঝুঁকিপূর্ণ, মত আওয়ামী লীগ নেতাদের লেখক মুশতাকের মৃত্যু, তদন্ত কমিটি গঠন - dainik shiksha লেখক মুশতাকের মৃত্যু, তদন্ত কমিটি গঠন ডিজিটাল আইনকে কবরে দেয়ার সময় এসেছে : ডা. জাফরুল্লাহ - dainik shiksha ডিজিটাল আইনকে কবরে দেয়ার সময় এসেছে : ডা. জাফরুল্লাহ প্রাথমিকের ৯ মাসের সিলেবাস প্রকাশ - dainik shiksha প্রাথমিকের ৯ মাসের সিলেবাস প্রকাশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত পরীক্ষার সূচি প্রকাশ - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত পরীক্ষার সূচি প্রকাশ পরীক্ষার দাবিতে তিন দিনের আল্টিমেটাম জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের - dainik shiksha পরীক্ষার দাবিতে তিন দিনের আল্টিমেটাম জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মেডিকেলের প্রশ্নফাঁসের গুজব ছড়ালে আইনি ব্যবস্থা, অধিদপ্তরের সতর্কবার্তা - dainik shiksha মেডিকেলের প্রশ্নফাঁসের গুজব ছড়ালে আইনি ব্যবস্থা, অধিদপ্তরের সতর্কবার্তা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রধান শিক্ষকের করা মামলায় সুপার গ্রেফতার - dainik shiksha ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রধান শিক্ষকের করা মামলায় সুপার গ্রেফতার please click here to view dainikshiksha website