৭০ বোতল ফেনসিডিলসহ কনস্টেবল আটক - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

৭০ বোতল ফেনসিডিলসহ কনস্টেবল আটক

লালমনিরহাট প্রতিনিধি |

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে ৭০ বোতল ফেনসিডিলসহ পুলিশের এক কনস্টেবলকে আটক করেছে লালমনিরহাট মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের টহল দলের সদস্যরা। মোটরসাইকেলে ফেনসিডিল পরিবহনের সময় গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার কাকিনা-মহিপুর সড়কের সিরাজুল মার্কেট এলাকা থেকে আটক করা হয়।

আটক পুলিশ সদস্যের নাম হ‌ুমায়ূন কবীর। তিনি হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতা হাইওয়ে থানার কনস্টেবল পদে কর্মরত। 

লালমনিরহাট জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক খায়রুল বাশার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মঙ্গলবার কালীগঞ্জের কাকিনা-মহিপুর সড়কের সিরাজুল মার্কেট এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করেন তারা। এ সময় মোটরসাইকেল চালিয়ে আসার সময় এক ব্যক্তির সন্দেহজনক আচরণ দেখে তাকে থামতে বলেন। তল্লাশি করে তার সঙ্গে থাকা একটি ব্যাগের ভেতর পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় ৭০ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়। পরে জানা যায় তিনি পুলিশে কর্মরত।

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম রসুল বলেন, মঙ্গলবার রাত নয়টায় লালমনিরহাট জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক জুয়েল ইসলাম বাদী হয়ে আটক হাইওয়ে পুলিশের কনস্টেবল হ‌ুমায়ূন কবীরের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করেন। এ মামলায় অভিযুক্ত হ‌ুমায়ূন কবীরকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

হাতীবান্ধা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল হাকিম আটক হ‌ুমায়ূন কবীরের পরিচয় নিশ্চিত করে বলেন, লোকমুখে তার মাদকসহ আটক হওয়ার ঘটনাটি শুনেছেন। ওসি আবদুল হাকিম বলেন, ‘বগুড়া হাইওয়ে পুলিশের এসপি অফিসে

এক মাসের গার্ডের ডিউটি করার জন্য কনস্টেবল হ‌ুমায়ূন কবীরকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে বগুড়ার উদ্দেশে তার রওনা হওয়ার কথা। এর মধ্যে কীভাবে এ ঘটনা ঘটল, বুঝতে পারলাম না।’

ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস - dainik shiksha মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের please click here to view dainikshiksha website