‘বাজেটে শিক্ষাখাত উপেক্ষিত’ - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

‘বাজেটে শিক্ষাখাত উপেক্ষিত’

নিজস্ব প্রতিবেদক |

অর্থনীতিবিদ ড. রেজা কিবরিয়া বলেছেন, প্রস্তাবিত বাজেটে গুরুত্বপূর্ণ দুই খাত স্বাস্থ্য ও শিক্ষা উপেক্ষিত হয়েছে। মহামারির সময় বিবেচনায় এই খাতকে প্রাধান্য দেয়া উচিত ছিল। তিনি বলেন, সরকার বিদ্যুৎ উৎপাদন বরাদ্দের পুরো টাকাই অপব্যবহার করছে, ৬০ শতাংশ বিদ্যুৎই আমরা ব্যবহার করতে পারছি না, অথচ এখাতে হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যয় হচ্ছে, লুটপাট হচ্ছে।  সোমবার ২০২১-২২ অর্থবছরের ঘোষিত জাতীয় বাজেট নিয়ে বাংলাদেশ ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদ ‘তারুণ্যের বাজেট পর্যালোচনা’  শীর্ষক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।

আরও পড়ুন : দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’

সোমবার রাজধানীর পল্টনে প্রীতম জামান টাওয়ারে পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে ড. রেজা কিবরিয়া সরাসরি আলোচনায় অংশ নেন। সেমিনারে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, পরিবেশ আইনবিদ সমিতি বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রেজওয়ানা হাসান। সেমিনারে মূল বক্তব্য পাঠ করেন ছাত্র পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক সাদ্দাম হোসেন। যুব পরিষদের সদস্য সচিব মঞ্জুর মোর্শেদের সঞ্চালনায়  আরো বক্তব্য রাখেন ডাকসুর সাবেক ভিপি ও ছাত্র, যুব ও শ্রমিক পরিষদের সমন্বয়ক নুরুল হক নুর, যুব পরিষদের আহবায়ক মোহাম্মদ আতাউল্লাহ ও যুগ্ম আহবায়ক তারেক রহমান। শ্রমিক পরিষদের আহবায়ক আব্দুর রহমান ও সদস্য সচিব আরিফ হোসেন।

অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, এই বাজেটে যাদের অনেক সম্পদ আছে যেমন কর্পোরেট শ্রেণী, গার্মেন্টস মালিক, ব্যবসায়ী ও অন্যান্য পুঁজিপতি ইত্যাদি তাদেরকেই সুযোগ-সুবিধা দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে দরিদ্র, সম্পদহীন, কম সম্পদশালী বিশাল জনগোষ্ঠীর উপর উল্টো করের বোঝা চাপিয়ে দেয়া হয়েছে, কিন্তু বিনিময়ে কিছু তেমন দেয়া হয়নি।

দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন

তিনি সরকারের সমালোচনা করে বলেন, বিদ্যুৎ উৎপাদন না করলেও কয়লা নির্ভর উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের মালিকদের বছর বছর বাজেটে হাজার হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেয়া হচ্ছে, অথচ এসব কোম্পানির বিদ্যুৎ আমরা ব্যবহার করতে পারছি না। এছাড়া তেল, গ্যাসও পানির দাম কয়েকদিন পরপর বাড়িয়ে নি¤œ আয়ের মানুষের নাভিশ্বাস করে দিচ্ছে এ সরকার।

সৈয়দা রেজওয়ানা হাসান বলেন, এই বাজেট পরিবেশ বান্ধব হয়নি,গত বছর থেকেও এবার পরিবেশ-প্রাণ-প্রকৃতিকে অনেক কম গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।

ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুলহক নুর বলেন, বাজেট একটি দেশের আয়-ব্যয়সহ সামগ্রিক কর্মকা- পরিচালনা ও উন্নয়নের মাপকাঠি। তিনি বলেন, মহামারী বিবেচনায় এ বাজেটে সেভাবে জনস্বার্থের প্রতিফলন ঘটেনি। এ পরিস্থিতিতে যেখানে স্বাস্থ্য ও শিক্ষাকে গুরুত্ব দেয়া দরকার ছিলো। সেখানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গবেষণায় পর্যাপ্ত বরাদ্দ দেওয়া হয়নি, দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য কোন ভুর্তুকি বা প্রণোদনা নেই।

৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু - dainik shiksha ৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! - dainik shiksha এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ - dainik shiksha বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! - dainik shiksha ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি - dainik shiksha নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ - dainik shiksha উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ please click here to view dainikshiksha website