‘বিশ্বে বাংলাদেশ বন্ধুহীন হয়ে পড়েছে’ - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

‘বিশ্বে বাংলাদেশ বন্ধুহীন হয়ে পড়েছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক |

জাতীয় পার্টি (জাপা) চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী কয়েকটি দেশ সফর করে করোনার টিকা না পেয়ে দেশে এসে গভীর হতাশা প্রকাশ করেছেন। গণমাধ্যমের সামনে বলেছেন, ধনী দেশগুলো নাকি বাংলাদেশকে টিকা দিতে রাজি হচ্ছে না। যদি তাই হয়, তাহলে বিশ্বে বাংলাদেশ বন্ধুহীন হয়ে পড়েছে।

শ‌নিবার রাজধানীর বারিধারায় একটি মিলনায়তনে জাতীয় যুব সংহতির বি‌শেষ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন বি‌রোধীদলীয় উপ‌নেতা জিএম কা‌দের। 

জাপা চেয়ারম্যাবন ব‌লেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রায়ই ব‌লে থা‌কেন, বিশ্বে নাকি বাংলাদেশের মর্যাদা আরও বেড়েছে। ১৯৯৬ সালে পাসপোর্টভিত্তিক জরিপে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৯৬তম। একই জরিপে এখন বাংলাদেশের অবস্থান ১০৬তম।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের উদ্দেশে তিনি ব‌লেন, মর্যাদা য‌দি বে‌ড়েই থা‌কে, তাহলে পাস‌পোর্টের মান কম‌ছে কেন? বি‌শ্বে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভার মর্যাদা বাড়তে পারে, কিন্তু সাধারণ মানুষের মর্যাদা মোটেই বাড়েনি, বরং কমেছে। তাই এখন বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে কেউ দেশের বাইরে গেলে তাকে নানা রকম হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে।

জাতীয় যুব সংহতির আহ্বায়ক এইচএম শাহরিয়ার আসিফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জিএম কা‌দের বলেন, সরকারি দল না করলে পরীক্ষায় প্রথম হয়েও চাকরি পাওয়া যায় না। সরকারি দল না করলে সর্বনিম্ন দরদাতা হয়েও টেন্ডারে কাজ পাচ্ছেন না ঠিকাদাররা। আবার টেন্ডার ছাড়া কাজ দেওয়ার বিধান করেছে, যা সম্পূর্ণ সংবিধান পরিপন্থি। সরকারি দলের নেতাকর্মীরা অপরাধ করেও খালাস পেয়ে যান। এরশাদের শাসনাম‌লে দেশে তুলনামূলকভাবে বেশি সুশাসন ছিল। কেউই আইনের ঊর্ধ্বে ছিল না। তাই দেশের মানুষ মনেপ্রাণে জাতীয় পার্টিকে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বিকল্প শক্তি হিসেবে প্রত্যাশা করছে।

জাপা চেয়ারম্যাশন বলেন, আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে সব জেলা কাউন্সিল সম্পন্ন করতে হবে। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে আটটি বিভাগীয় শহরে কর্মী সমাবেশ করা হবে। ক‌রোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে বিভাগীয় শহরে জনসভা করা হবে। তখন জাতীয় পার্টি রাজনীতির রোডম্যাপ ঘোষণা করবে। প্রতিটি নির্বাচনে অংশ নেবে জাতীয় পাটি। নির্বাচনে যেসব নেতাকর্মী দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধাচরণ করবে, তাদের দ‌লের শত্রু হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

সভায় বি‌শেষ অতিথি ছি‌লেন, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান সংসদ সদস্য সালমা ইসলাম। এছাড়া সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন যুব সংহতির যুগ্ম আহ্বায়ক মো. হেলাল উদ্দিন, মো. সাইফুল ইসলাম, শেখ সারোয়ার হোসেন প্রমুখ।

উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ১ হাজার ৮৮ শিক্ষক - dainik shiksha উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ১ হাজার ৮৮ শিক্ষক প্রাথমিকে শিক্ষকসহ অন্যান্য পদ ‘বাড়ছে’ - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষকসহ অন্যান্য পদ ‘বাড়ছে’ ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষাবিমা’ চার্জমুক্ত রাখার নির্দেশ - dainik shiksha ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষাবিমা’ চার্জমুক্ত রাখার নির্দেশ এমপিওভুক্ত হলেন দেড় হাজার শিক্ষক-কর্মচারী - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হলেন দেড় হাজার শিক্ষক-কর্মচারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এখনো সংক্রমণের খবর আসেনি : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এখনো সংক্রমণের খবর আসেনি : শিক্ষামন্ত্রী স্বরাষ্টমন্ত্রীর সঙ্গে মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান নেতাদের মত বিনিময় - dainik shiksha স্বরাষ্টমন্ত্রীর সঙ্গে মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান নেতাদের মত বিনিময় শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী ডিসেম্বর পর্যন্ত ভোকেশনাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ডিসেম্বর পর্যন্ত ভোকেশনাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা বিএড স্কেল পেলেন ৫৮ শিক্ষক - dainik shiksha বিএড স্কেল পেলেন ৫৮ শিক্ষক please click here to view dainikshiksha website