‘বয়স জটিলতায় সরকারি স্কুলে ভর্তির আবেদন করতে না পারা শিক্ষার্থীদের জন্য কিছুই করার নেই’ - ভর্তি - দৈনিকশিক্ষা

‘বয়স জটিলতায় সরকারি স্কুলে ভর্তির আবেদন করতে না পারা শিক্ষার্থীদের জন্য কিছুই করার নেই’

নিজস্ব প্রতিবেদক |

সারাদেশের সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলোতে ভর্তির আবেদনের সময়সীমা পার হয়েছে। কিন্তু বয়স কম থাকায় অনেক শিক্ষার্থী ভর্তির আবেদন করতে পারেনি। ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য ১১ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আবেদন চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু কয়েকমাস কম বয়সী শিক্ষার্থীরা আবেদন করলেও তা সফটওয়্যার নেয়নি। এদিকে ভর্তির আবেদনের সময় শিশুর জন্মনিবন্ধন সনদ জমা সফটওয়ারে এন্ট্রি করা বাধ্যতামূলক ছিল। কিন্তু সার্ভার ডাউন থাকায় অনেক শিক্ষার্থী জন্ম সনদ না পেয়ে আবেদন করতে পারেনি।

 

সারাদেশের হাজার হাজার শিক্ষার্থী আবেদনের সব প্রস্তুতি শেষ করলেও এসব জটিলতায় সরকারি স্কুলে ভর্তির আবেদন করতে পারেনি। এদিকে ৩০ ডিসেম্বর ভর্তির লটারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আর শিক্ষা প্রশাসনের কর্মকর্তারা বলছেন, ‘আবেদন করতে না পারা শিক্ষার্থীদের জন্য কিছুই করার নেই।’

এতদিন অনলাইনে আবেদন গ্রহণ করা হলেও এবারই প্রথমবারের মতো যান্ত্রিক পদ্ধতিতে টেলিটক লিমিটেডের বিশেষ সফটওয়্যার ব্যবহার করে আবেদন গ্রহণ ও ভর্তি লটারির আয়োজন করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। এসব জটিলতার দায় সফটওয়্যারকেই দিচ্ছেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা। আর তারা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, যেসব শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারেনি তাদের জন্য কিছুই করার নেই শিক্ষা অধিদপ্তরের।   

শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বলছেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্ধারণ করা ভর্তির নীতিমালা অনুসরণ করে ভর্তি করা হচ্ছে। এ নীতিমালায় বলা হয়েছে, প্রথম শ্রেণিতে ভর্তির বয়স ৬ বছরের বেশি হতে হবে। টেলিটককে আবেদন গ্রহণ ও লটারির সফটওয়্যারে তাই প্রথম শ্রেণিতে ভর্তির বয়স ৬ বছরের বেশি দেয়া আছে। এর কম বয়স হলে সফটওয়্যার তা নেবে না। এভাবে উপরের প্রতিটি শ্রেণিতে বয়স এক বছর করে বাড়বে। আর জটিলতায় ভুক্তভোগীদের জন্য অধিদপ্তরের কিছুই করার নেই।

সারাদেশে মোট ৩৮৬টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অনলাইনে ভর্তির আবেদন নেয়া হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানে ভর্তিতে মোট ৪ লাখ ৬৭ হাজার ৩২৪টি আবেদন জমা পড়েছে। ভর্তিচ্ছু সব শিশু আবেদন করতে পারলে এ সংখ্যা অন্তত ৬ লাখ ছাড়িয়ে যেত বলে মন্তব্য করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব (লিংক যাবে) করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

হেফাজত নেতা মামুনুল গ্রেফতার - dainik shiksha হেফাজত নেতা মামুনুল গ্রেফতার লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়তে পারে - dainik shiksha লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়তে পারে পিঠে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে মোটরসাইকেলে শিক্ষিকা মাকে নিয়ে হাসপাতালে - dainik shiksha পিঠে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে মোটরসাইকেলে শিক্ষিকা মাকে নিয়ে হাসপাতালে উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু পাস কম তাই মাদরাসার এমপিও বন্ধ - dainik shiksha পাস কম তাই মাদরাসার এমপিও বন্ধ মিনা পাল থেকে যেভাবে ঢাকাই চলচ্চিত্রের 'মিষ্টি মেয়ে' - dainik shiksha মিনা পাল থেকে যেভাবে ঢাকাই চলচ্চিত্রের 'মিষ্টি মেয়ে' ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ব্যাংকে - dainik shiksha ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ব্যাংকে সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে please click here to view dainikshiksha website