শিক্ষকদের বেতনে অনেক টাকা খরচ হলেও মাদরাসায় শিক্ষার্থী সংখ্যা সন্তোষজনক না : অধিদপ্তর - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

শিক্ষকদের বেতনে অনেক টাকা খরচ হলেও মাদরাসায় শিক্ষার্থী সংখ্যা সন্তোষজনক না : অধিদপ্তর

নিজস্ব প্রতিবেদক |

মাদরাসার শিক্ষক কর্মচারীদের বেতন দিতে প্রচুর টাকা খরচ হলেও অনেক মাদরাসায় শিক্ষার্থী সংখ্যা সন্তোষজনক নয় বলে মন্তব্য করেছে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর। তাই মাঠ প্রশাসনের সহায়তা নিয়ে ২০২২ শিক্ষাবর্ষে মাদরাসাগুলোকে নতুন শিক্ষার্থীর ভর্তি করতে জোর তৎপরতা চালাতে শিক্ষকদের  অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একইসাথে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের মাদরাসাগুলোর দাখিল ও ইবতেদায়ি অংশে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীর সংখ্যা অধিদপ্তরকে জানাতে বলা হয়েছে।

বুধবার মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এ সংক্রান্ত আদেশ সব জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও মাদরাসাগুলোতে পাঠানো হয়েছে। 

চিঠিতে অধিদপ্তর বলছে, দেশের মাদরাসাগুলোতে প্রতিবছর শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন ভাতা খাতে সরকারের প্রচুর টাকা ব্যায় হয়। কিন্তু অনেক মাদরাসার শিক্ষার্থী সংখ্যা সন্তোষজনক নয়। জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা অনুযায়ী কাম্য শিক্ষার্থী নিশ্চিত করতে ২০২২ শিক্ষাবর্ষে নতুন শিক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য মাঠ প্রশাসনের সহায়তায় মাদরাসা কর্তৃপক্ষকে জোর তৎপরতা ও বাস্তবমুখী উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। 

একই আদেশে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের অধিদপ্তর বলছে, ২০২২ শিক্ষাবর্ষে ইবতোদায়ি প্রথম শ্রেণি ও দাখিল ৬ষ্ঠ শ্রেণিসহ অন্যান্য শ্রেণিতে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তির তথ্য মাদরাসা থেকে সংগ্রহ করে উপজেলা বা থানাভিত্তিক তথ্য ২০ জানুয়ারির মধ্যে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করা হলো। 

তথ্যপাঠানোর নির্ধারিত ছকে জেলা উপজেলার নাম উল্লেখ করে ইবতেদায়ি ও দাখিল স্তরের প্রতিটি শ্রেণিতে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীর সংখ্যা আলাদা আলাদাভাবে ও মোট ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীর সংখ্যা পূরণ করে আগামী ২০ জানুয়ারির মধ্যে ইমেইলে অধিদপ্তরে পাঠাতে বলা হয়েছে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস - dainik shiksha মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের please click here to view dainikshiksha website