‘প্রধানমন্ত্রী শিক্ষকদের দাবি বিবেচনায় নেবেন’ - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

‘প্রধানমন্ত্রী শিক্ষকদের দাবি বিবেচনায় নেবেন’

নিজস্ব প্রতিবেদক |

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষকদের দাবি-দাওয়া বিবেচনায় নেবেন বলে আমি মনে করি। আমি মনে করি, (শিক্ষকদের) পেটটা যদি সুস্থ থাকে, দেহটা যদি সুস্থ থাকে তাহলে মাথাটাও ভালো থাকবে। আর তা থাকলে, (শিক্ষকরা) যাদেরকে মানুষ করতে চান তারাও (শিক্ষার্থীরা) ভালোভাবে মানুষ হবেন। এটি আমি নীতিগতভাবে বিশ্বাস করি।

বুধবার বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। স্বাধীনতা শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশন এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে শিক্ষকদের পক্ষ থেকে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারিকরণ ও বিশ্ব শিক্ষক দিবস জাতীয়ভাবে উদযাপনের দাবি জানানো হয়। 

আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রহমান আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু বেসরকারি শিক্ষকদের সরকারিকরণ করলেন সব প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারি করে। ২০১৩ খ্রিষ্টাব্দে ১ লাখ ২১ হাজার শিক্ষক ও ২৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারিকরণ করেছিলেন। কিন্তু যিনি শুধু দিতেই জানেন, কিন্তু নিতে জানেন না, তার কাছে দাবি দাওয়া করাও অপ্রাসঙ্গিক।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী জাতীয় নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে আয়োজনের নির্দেশনা দিয়েছেন। তবে, নির্বাচনের সময় বঙ্গবন্ধুকন্যাই সরকার প্রধানের পদে থাকবেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান ও সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শেখর। ফেডারেশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন ফেডারেশনের সমন্বয়কারী মো. শাহজাহান আলম সাজু। 

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

গাড়িচাপায় নারীর মৃত্যু : ঢাবির সেই চাকরিচ্যুত শিক্ষক গ্রেফতার - dainik shiksha গাড়িচাপায় নারীর মৃত্যু : ঢাবির সেই চাকরিচ্যুত শিক্ষক গ্রেফতার প্রাথমিকের বৃত্তি পরীক্ষা ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে - dainik shiksha প্রাথমিকের বৃত্তি পরীক্ষা ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে স্বজনদের না পাওয়ায় অপারেশন হচ্ছে না গণপিটুনির শিকার শিক্ষকের - dainik shiksha স্বজনদের না পাওয়ায় অপারেশন হচ্ছে না গণপিটুনির শিকার শিক্ষকের স্কুলে কর্মচারী নিয়োগে ৬০ লাখ টাকা ঘুষ, তদন্ত শুরু - dainik shiksha স্কুলে কর্মচারী নিয়োগে ৬০ লাখ টাকা ঘুষ, তদন্ত শুরু কোচিংয়ে পড়তে না চাওয়ায় ছাত্র ও তার বাবাকে মারধর - dainik shiksha কোচিংয়ে পড়তে না চাওয়ায় ছাত্র ও তার বাবাকে মারধর কলকাতায় ১০ম বাংলাদেশ বইমেলা শুরু - dainik shiksha কলকাতায় ১০ম বাংলাদেশ বইমেলা শুরু কর্মকর্তাদের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণা, শিক্ষা অধিদপ্তরের সতর্কতা - dainik shiksha কর্মকর্তাদের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণা, শিক্ষা অধিদপ্তরের সতর্কতা please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.005465030670166