অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত, পরীক্ষাবিধি ভঙ্গের দায়ে মতিঝিল মডেলের কমিটি বাতিল হচ্ছে - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত, পরীক্ষাবিধি ভঙ্গের দায়ে মতিঝিল মডেলের কমিটি বাতিল হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক |

রাজধানীর মতিঝিল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডি ভেঙে দিচ্ছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে গভর্নিং বডির সদস্যদের এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ, অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত করা ইত্যাদি অপকর্মের জেরে শিক্ষা বোর্ড এ উদ্যোগ নিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সভাপতি আব্দুল মতিন ভূইয়ার কাছে এ বিষয়ে শোকজ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে মতিঝিল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে প্রতিষ্ঠানটির গভর্নিং বডির সদস্য শাহআলম ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে প্রবেশ করেন। কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা দেয়ায় পরে তিনি গভর্নিং বডির আরো সদস্য নিয়ে এসে অধ্যক্ষ ও বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা ড. মুন্সী শরীফ-উজ্জামানকে লাঞ্ছিত করেন। এ নিয়ে দৈনিক শিক্ষাডটকমে ও পরের দিন দৈনিক আমাদের বার্তায় ‘এসএসসি কেন্দ্রে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা লাঞ্ছিত’ শিরোনামে খবর প্রকাশিত হলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে তদন্ত কমিটি গঠন করে শিক্ষা বোর্ড।

গত ১৯ সেপ্টেম্বর অভিযোগ তদন্ত করেন বোর্ডের দুইজন কর্মকর্তা। তদন্ত কর্মকর্তারা প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ও শিক্ষক-কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলে পত্রিকায় প্রকাশিত অভিযোগের সত্যতা পান। গতকাল (বুধবার) কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন।

প্রতিবেদনের পর্যবেক্ষণে তদন্ত কর্মকর্তারা বলেছেন, এসএসসির বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষায় গভর্নিং বডির অভিভাবক সদস্য মো. শাহ আলম, মো. আহসান উল্লাহ, মো. সাইফুল ইসলাম ও নুরসাত জাহান সুমী পরীক্ষা কেন্দ্রের ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে পরীক্ষা শুরু ও শেষে কেন্দ্রে প্রবেশ করেন। পরীক্ষার শুরুতে কেন্দ্রের গেটের ভেতর শাহ আলম ও পরীক্ষা শেষে শাহ আলম, মো. আহসান উল্লাহ, মো. সাইফুল ইসলাম ও নুরসাত জাহান সুমী অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত করেন। অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত হওয়ার বিষয়ে সভাপতি কার্যকর কোন পদক্ষেপ নেননি। অধ্যক্ষ চলমান এসএসসি পরীক্ষা পরিচালনার বিষয়ে আতঙ্কিত অবস্থায় আছেন। 

গতকাল পাঠানো শোকজ নোটিশে বোর্ড বলছে, রাজধানীর মতিঝিল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডির চারজন অভিভাবক সদস্যের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা পরিচালনা সংক্রান্ত নীতিমালা-২০২২ এর অনুচ্ছেদ ৩.৮ লঙ্ঘণ করা, অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত করা এবং সংশ্লিষ্ট ঘটনায় গভর্নিং বডির সভাপতির সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে নির্লিপ্ততার কারণে কেন চলমান গভর্নিং বডি কেন ভেঙে দেয়া হবে না তা সাত কর্মদিবসের মধ্যে জানাতে হবে।  

এ বিষয়ে মন্তব্য জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ড. মুন্সী শরীফ-উজ্জামানকে পাওয়া যায়নি। 

এদিকে অভিযুক্ত গভর্নিং বডির সদস্য শাহ আলম তার বিরুদ্ধে ওঠা অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত করা ও পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

উল্লেখ, গত বুধবার দৈনিক শিক্ষাডটকমে ও গতকাল বৃহস্পতিবার দৈনিক আমাদের বার্তায় ‘মতিঝিল মডেল কলেজ’ পরিচালনা পর্ষদের বাড়াবাড়ির নেপথ্যে’ শিরোনামে আর একটি খবর প্রকাশ হয়। 

মাদরাসার এমপিও শিটে পদবি সংশোধন না হলে ডিজির প্রতিনিধি নয় - dainik shiksha মাদরাসার এমপিও শিটে পদবি সংশোধন না হলে ডিজির প্রতিনিধি নয় ইডেন ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১০ - dainik shiksha ইডেন ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১০ সুন্দরীদের বাছাই করে কু-প্রস্তাব, ইডেন ছাত্রলীগ নেত্রীর অভিযোগ - dainik shiksha সুন্দরীদের বাছাই করে কু-প্রস্তাব, ইডেন ছাত্রলীগ নেত্রীর অভিযোগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছড়াচ্ছে ‘চোখ ওঠা’ - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছড়াচ্ছে ‘চোখ ওঠা’ মনিপুর স্কুলে অবৈধ অধ্যক্ষ ফরহাদ - dainik shiksha মনিপুর স্কুলে অবৈধ অধ্যক্ষ ফরহাদ ফি বাড়লো সরকারি চাকরির পরীক্ষার - dainik shiksha ফি বাড়লো সরকারি চাকরির পরীক্ষার প্রশ্নফাঁস : ৫ শিক্ষক ও পিয়ন বরখাস্ত - dainik shiksha প্রশ্নফাঁস : ৫ শিক্ষক ও পিয়ন বরখাস্ত please click here to view dainikshiksha website