করোনায় একজনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ১১ শতাংশ ছাড়ালো - করোনা আপডেট - দৈনিকশিক্ষা

করোনায় একজনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ১১ শতাংশ ছাড়ালো

নিজস্ব প্রতিবেদক |

করোনায় দৈনিক শনাক্তের হার ১১ শতাংশের উপরে। দৈনিক শনাক্ত পৌনে ৯০০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১১ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ। আগের দিন শনাক্তের হার ছিল ১০ দশমিক ৮৭ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন রোগী শনাক্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৭৪ জনে। আগের দিন এই সংখ্যা ছিল ৮৭৩ জন। ৮৭৪ জনের মধ্যে রাজধানীতেই ৭৯০ জন শনাক্ত হয়েছেন। অর্থাৎ মোট শনাক্তের ৯০ শতাংশই রয়েছেন ঢাকা মহানগরীতে। একই সময়ে করোনায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। দেশে এ পর্যন্ত করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৯ হাজার ১৩৩ জন।

নতুন শনাক্ত নিয়ে সরকারি হিসাবে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত ১৯ লাখ ৫৮ হাজার ৭৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৪ জন এবং এখন পর্যন্ত ১৯ লাখ ৫ হাজার ৯৮৩ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

আজ  স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।  

এতে আরও জানানো হয়, দেশে ৮৮০টি পরীক্ষাগারে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭ হাজার ৮৯৩টি নমুনা সংগ্রহ এবং ৭ হাজার ৯২৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৪২ লাখ ৪১ হাজার  ২৫৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১১ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৩৪ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৯ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় একজন পুরুষ মারা গেছেন। তিনি ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা। তার বয়স ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে। দেশে মোট পুরুষ মারা গেছেন ১৮ হাজার ৫৯৯ জন এবং নারী ১০ হাজার ৫৩৪ জন।

নতুন শনাক্তের মধ্যে ঢাকা মহানগরের রয়েছেন ৭৯০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে রয়েছেন ৮১২ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩৭ জন, রাজশাহী বিভাগে ৮ জন, রংপুর বিভাগে শূন্য, খুলনা বিভাগে ৪ জন, বরিশাল বিভাগে ৬ জন এবং সিলেট বিভাগে ৪ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

মাদরাসা শিক্ষকদের উৎসব ভাতার চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের উৎসব ভাতার চেক ছাড় শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্র জিতু গ্রেফতার - dainik shiksha শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্র জিতু গ্রেফতার শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্রের বয়স উনিশের বেশি, জেডিসি পাস - dainik shiksha শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্রের বয়স উনিশের বেশি, জেডিসি পাস ‘মনে হয়েছিল আত্মহত্যা করি’, বললেন লাঞ্ছিত হওয়া সেই অধ্যক্ষ - dainik shiksha ‘মনে হয়েছিল আত্মহত্যা করি’, বললেন লাঞ্ছিত হওয়া সেই অধ্যক্ষ শিশুদের কে জি স্কুলে ভর্তি হওয়ার প্রবণতা দুঃখজনক : মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী - dainik shiksha শিশুদের কে জি স্কুলে ভর্তি হওয়ার প্রবণতা দুঃখজনক : মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী স্ত্রীর আবদার পূরণে দুর্নীতি করবেন না : দুদক কমিশনার - dainik shiksha স্ত্রীর আবদার পূরণে দুর্নীতি করবেন না : দুদক কমিশনার ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ছাড় - dainik shiksha ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ছাড় please click here to view dainikshiksha website