ক্লাসরুমে শিক্ষককে মারধর, পুলিশ বলছে ভিন্ন কথা - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

ক্লাসরুমে শিক্ষককে মারধর, পুলিশ বলছে ভিন্ন কথা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

পাবনা সদর উপজেলার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্লাসরুমে একজন শিক্ষককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। হাফিজুর রহমান নামের ওই সহকারী শিক্ষক উপজেলার ১৬৫ নং শ্রীরামপুর নব্য সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত। 

গতকাল বুধবার সকালে ওই স্কুলের প্রাক প্রাথমিক শ্রেণির ক্লাসরুম থেকে তাকে বের করে মারধর করা হয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষক স্থানীয় আলম, বুলেট সৌরভ, গফুর মালিথার নাম উল্লেখ করে ও ১০-১৫ জন অজ্ঞাতকে অভিযুক্ত করে পাবনা সদর থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

যদিও পাবনা সদর থানা পুলিশের দায়িত্বপ্রাপ্তরা বলছেন, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের অশালীন ও আপত্তিকর মন্তব্য করার অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয়রা। এ ঘটনার জেরেই 'ধাক্কাধাক্কির' ঘটনা ঘটেছে। 

আর স্থানীয় শিক্ষকরা জানিয়েছেন, এক ছাত্রীকে প্লাজু বা ঢোলা পায়জামা পরে ক্লাসে না আসার পরামর্শ দেয়ার অযুহাতে পুর্ব শত্রুতার জেরে ওই শিক্ষককে মারধর করা হয়েছে।

পাবনা সদর থানায় দাখিল করা অভিযোগে সহকারী শিক্ষক হাফিজুর রহমান জানান, বুধবার বেলা ১১ টার দিকে তিনি প্রাক প্রাথমিক শ্রেণির আপনি ছিলেন। এর আগে স্কুলে কিছু শিক্ষার্থী বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করায় তিনি তাদের শাসন করেছেন। প্রাক প্রাথমিকের ক্লাস নেয়ার সময় স্থানীয় আলম, বুলেট সৌরভ, গফুর মালিথাসহ ১০-১৫ জন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তার ক্লাস রুমে প্রবেশ করে এবং তাকে গালিগালাজ শুরু করেন। এক পর্যায়ে তারা হাফিজুর রহমানকে মারধর শুরু করেন। এসময় স্কুলের অন্যান্য শিক্ষকরা এগিয়ে এলে অভিযুক্তরা তাকে হুমকি-ধামকি দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে তিনি পাবনা সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

শ্রীরামপুর নব্য সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হাফিজুর রহমান

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পাবনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বুধবার রাতে দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, এই বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি। আমাদের দুইজন পুলিশ কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। কিন্তু ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে স্থানীয়রা ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন। স্থানীয়দের অভিযোগ, ঐ শিক্ষক ছাত্রীদের অকথ্য অশালীন ও আপত্তিকর মন্তব্য করেন। ছাত্রীদের পরিবারের সদস্যদের নিয়েও তিনি অশালীন মন্তব্য করেন। বিষয়টি নিয়েও আগেও কয়েকবার বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ দিয়েছিলো স্থানীয়রা। এর জেরে বুধবার এই ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটেছে।

তিনি আরও বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। বৃহস্পতিবারও আমরা বিষয়টি তদন্ত করতে ঘটনাস্থলে যাবো। সার্বিক বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

এবিষয়ে দৈনিক শিক্ষাডটকমের পক্ষ থেকে স্থানীয় শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ওই শিক্ষক ছাত্রীদের প্লাজু বা ঢোলা পায়জামা পরে ক্লাসে না আসতে বলেছিলেন। এ অযুহাতে পূর্ব শত্রুতার জেরে তাকে স্থানীয়রা মারধর করেছেন।

 শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল   SUBSCRIBE   করতে ক্লিক করুন।

দাখিল পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ - dainik shiksha দাখিল পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ ‘বঙ্গবন্ধু স্কলার’ অ্যাওয়ার্ড পাবেন ২২ শিক্ষার্থী, প্রাইজমানি ৩ লাখ টাকা - dainik shiksha ‘বঙ্গবন্ধু স্কলার’ অ্যাওয়ার্ড পাবেন ২২ শিক্ষার্থী, প্রাইজমানি ৩ লাখ টাকা শিক্ষক থাকেন ভারতে চাকরি করেন পাবনায় - dainik shiksha শিক্ষক থাকেন ভারতে চাকরি করেন পাবনায় বঙ্গমাতার জীবন থেকে বিশ্বের নারীরা শিক্ষা নিতে পারবে : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha বঙ্গমাতার জীবন থেকে বিশ্বের নারীরা শিক্ষা নিতে পারবে : প্রধানমন্ত্রী সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে খুদে ডাক্তারের মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ২০-২৬ আগস্ট - dainik shiksha সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে খুদে ডাক্তারের মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ২০-২৬ আগস্ট শোক দিবসে স্কুলের আঙিনায় গাছের চারা রোপনের নির্দেশ - dainik shiksha শোক দিবসে স্কুলের আঙিনায় গাছের চারা রোপনের নির্দেশ গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষার 'এ' ইউনিটে প্রথম দুই সুমাইয়া - dainik shiksha গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষার 'এ' ইউনিটে প্রথম দুই সুমাইয়া নীতিমালায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের ৮ ঘণ্টা অফিসের উল্লেখ নেই - dainik shiksha নীতিমালায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের ৮ ঘণ্টা অফিসের উল্লেখ নেই সপ্তাহে একদিন পুরোপুরি বন্ধ থাকবে শিল্পকারখানা - dainik shiksha সপ্তাহে একদিন পুরোপুরি বন্ধ থাকবে শিল্পকারখানা জাল সনদে শিক্ষকের ১০ বছর এমপিও ভোগ, অবশেষে ধরা - dainik shiksha জাল সনদে শিক্ষকের ১০ বছর এমপিও ভোগ, অবশেষে ধরা please click here to view dainikshiksha website