ছাত্রীকে নিয়ে উধাও : কলেজ শিক্ষক বরখাস্ত - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

ছাত্রীকে নিয়ে উধাও : কলেজ শিক্ষক বরখাস্ত

বগুড়া প্রতিনিধি |

বগুড়া ধুনট উপজেলায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে একাদশ শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৮) নিয়ে উধাও হয়ে যাওয়া কলেজ শিক্ষক মোকছেদুল হক ফারুককে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। উধাও হওয়ার ঘটনার চার দিন পেরিয়ে গেলেও ওই শিক্ষক ও ছাত্রীর সন্ধান মেলেনি।

কলেজ শিক্ষক মোকছেদুল হক ফারুক (৩৭) ধুনট পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের কারিগরি শাখার ইংরেজি বিষয়ের প্রভাষক ও উপজেলার কান্তনগর গ্রামের মোবারক আলীর ছেলে।

গতকাল সোমবার দুপুরের দিকে ধুনট পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ বিকাশ চন্দ্র এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বিধি মোতাবেক কলেজ পরিচালনা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রভাষক মোকছেদুল হক ফারুককে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

জানা গেছে, মোকছেদুল হক ফারুক বনিবনা না হওয়ায় প্রায় ৬ বছর আগে স্ত্রীকে ডিভোর্স দেন তিনি। তার ওই স্ত্রীর একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। বতর্মানে তিনি কর্মস্থলের পাশে একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করেন এবং ছাত্রছাত্রীদের প্রাইভেট পড়ান। তার স্কুলে পড়ার সময় থেকেই ওই ছাত্রী ফারুকের কাছে প্রাইভেট পড়ত। স্থানীয় একটি কলেজে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হওয়ার পরও ওই ছাত্রীকে তিনি প্রাইভেট পড়াতেন।

এদিকে গত ১ মাস আগে পারিবারিক সম্মতিতে উপজেলার বাকশাপাড়া গ্রামে ওই ছাত্রীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সে তার স্বামীকে নিয়ে বাবার বাড়িতেই থাকত। গত শুক্রবার সকালের দিকে তার স্বামী বাড়িতে চলে যান। এ সুযোগে ওই দিন বিকালেই কলেজ শিক্ষক ফারুক ওই ছাত্রীকে নিয়ে উধাও হয়ে যান।

বিভিন্ন জায়গায় খুঁজে না পেয়ে ছাত্রীর মা বাদী হয়ে শুক্রবার রাতেই ধুনট থানায় একটি অভিযোগ দেন।

ওই অভিযোগে ছাত্রীর পরিবারের দাবি, বালিকা বিদ্যালয়ে পড়ার সময় থেকেই ফারুক ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন সময় উত্ত্যক্ত করতেন। প্রাইভেট পড়ানোর সুবাদে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ছাত্রীকে নিয়ে উধাও হয়েছেন ফারুক।

ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর থেকে শিক্ষককে গ্রেপ্তার ও ছাত্রীকে উদ্ধারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

মাদরাসা শিক্ষকদের উৎসব ভাতার চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের উৎসব ভাতার চেক ছাড় শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্র জিতু গ্রেফতার - dainik shiksha শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্র জিতু গ্রেফতার শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্রের বয়স উনিশের বেশি, জেডিসি পাস - dainik shiksha শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্রের বয়স উনিশের বেশি, জেডিসি পাস ‘মনে হয়েছিল আত্মহত্যা করি’, বললেন লাঞ্ছিত হওয়া সেই অধ্যক্ষ - dainik shiksha ‘মনে হয়েছিল আত্মহত্যা করি’, বললেন লাঞ্ছিত হওয়া সেই অধ্যক্ষ শিশুদের কে জি স্কুলে ভর্তি হওয়ার প্রবণতা দুঃখজনক : মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী - dainik shiksha শিশুদের কে জি স্কুলে ভর্তি হওয়ার প্রবণতা দুঃখজনক : মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী স্ত্রীর আবদার পূরণে দুর্নীতি করবেন না : দুদক কমিশনার - dainik shiksha স্ত্রীর আবদার পূরণে দুর্নীতি করবেন না : দুদক কমিশনার ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ছাড় - dainik shiksha ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ছাড় please click here to view dainikshiksha website