জাবিতে শিফট পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে ভর্তি পরীক্ষার্থীর অবস্থান কর্মসূচি - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

জাবিতে শিফট পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে ভর্তি পরীক্ষার্থীর অবস্থান কর্মসূচি

জাবি প্রতিনিধি |

শিফট পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন শোভন রায় নামের এক ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) দুপুর ১২ টায় ‘একক প্রশ্নপত্রে মূল্যায়ন চাই’ প্ল্যাকার্ডে বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশের পাদদেশে অবস্থান নিয়েছেন ওই পরীক্ষার্থী।

জানা গেছে, শোভন রায়ের বাড়ি গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায়। তিনি এবার জাবির ‘বি’ ইউনিটে দ্বিতীয় ও ‘সি’ ইউনিটে চতুর্থ শিফটে পরীক্ষা দিয়েছেন। ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশের পর শোভন অকৃতকার্য হয়েছেন শুনে এ কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

শোভন বলেন, ‘জাহাঙ্গীরনগরে ভর্তি পরীক্ষার যে শিফট পদ্ধতি এটা বৈষম্য। এতে কোনভাবেই শিক্ষার্থীর মেধার সঠিক যাচাই হয় না। কোন শিফটের পরীক্ষা সবচেয়ে সহজ হয়, আবার কোন শিফটে পরীক্ষা একদম কঠিন হয়। এতে একেক শিফট থেকে অনেক বেশি শিক্ষার্থী চান্স পায় আর অন্য শিফট থেকে কম চান্স পায়। আমার পরীক্ষা অনেক ভালো হওয়া সত্ত্বেও আমার হয়নি। আমি চাই বিশ্ববিদ্যালয়ের যে শিফট পদ্ধতিতে পরীক্ষা হয় এটা বাতিল করা হোক।’ 

এদিকে শোভন রায়কে সমর্থন জানিয়ে জাবির ‘এ’ ইউনিটের এক পরীক্ষার্থী বলেন, ‘এখানকার শিফট পদ্ধতির মতো পরীক্ষা দেশের আর কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে হয় না। এটা কেন? এটার মাধ্যমে তো সব শিক্ষার্থীকে এক মাপকাঠিতে যাচাই করা হচ্ছে না। তাহলে এরকম বৈষম্য আমরা কিভাবে মেনে পারি? আমরা চাই শিফট পদ্ধতি বাতিল করা হোক। সবাইকে একক প্রশ্নে মূল্যায়ন করা হোক।’

এদিকে অনশনের বিষয়ে জানতে চাইলে শোভন রায় বলেন, ‘আমি সকাল থেকে এখনো কিছুই খাইনি। শুধু একটু পানি খেয়েছি। আমি অনশন করছি ঠিকাছে। কিন্তু আমিতো এখানে থাকতে আসিনি। যতক্ষণ পারি অনশন চালিয়ে যাব। আর বিকেলের দিকে ক্ষুধা লাগলে সেটা দেখা যাবে। হয়তো সন্ধ্যায় চলে যাব। আমি মূলত চাই, একক প্রশ্নপত্রে মূল্যায়নটা করা হোক।’

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য উপাচার্য অধ্যাপক ড. নূরুল আলমকে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

দাখিল পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ - dainik shiksha দাখিল পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ ‘বঙ্গবন্ধু স্কলার’ অ্যাওয়ার্ড পাবেন ২২ শিক্ষার্থী, প্রাইজমানি ৩ লাখ টাকা - dainik shiksha ‘বঙ্গবন্ধু স্কলার’ অ্যাওয়ার্ড পাবেন ২২ শিক্ষার্থী, প্রাইজমানি ৩ লাখ টাকা শিক্ষক থাকেন ভারতে চাকরি করেন পাবনায় - dainik shiksha শিক্ষক থাকেন ভারতে চাকরি করেন পাবনায় বঙ্গমাতার জীবন থেকে বিশ্বের নারীরা শিক্ষা নিতে পারবে : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha বঙ্গমাতার জীবন থেকে বিশ্বের নারীরা শিক্ষা নিতে পারবে : প্রধানমন্ত্রী সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে খুদে ডাক্তারের মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ২০-২৬ আগস্ট - dainik shiksha সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে খুদে ডাক্তারের মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ২০-২৬ আগস্ট শোক দিবসে স্কুলের আঙিনায় গাছের চারা রোপনের নির্দেশ - dainik shiksha শোক দিবসে স্কুলের আঙিনায় গাছের চারা রোপনের নির্দেশ গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষার 'এ' ইউনিটে প্রথম দুই সুমাইয়া - dainik shiksha গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষার 'এ' ইউনিটে প্রথম দুই সুমাইয়া নীতিমালায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের ৮ ঘণ্টা অফিসের উল্লেখ নেই - dainik shiksha নীতিমালায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের ৮ ঘণ্টা অফিসের উল্লেখ নেই সপ্তাহে একদিন পুরোপুরি বন্ধ থাকবে শিল্পকারখানা - dainik shiksha সপ্তাহে একদিন পুরোপুরি বন্ধ থাকবে শিল্পকারখানা জাল সনদে শিক্ষকের ১০ বছর এমপিও ভোগ, অবশেষে ধরা - dainik shiksha জাল সনদে শিক্ষকের ১০ বছর এমপিও ভোগ, অবশেষে ধরা please click here to view dainikshiksha website