প্রধান শিক্ষককের থাপ্পড়ে ছাত্রী হাসপাতালে - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

প্রধান শিক্ষককের থাপ্পড়ে ছাত্রী হাসপাতালে

লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি |

নাটোরের লালপুর উপজেলার নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক গাউছুল আজমের থাপ্পড়ে ইসরাত জাহান নিলা নামের দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। কান থেকে রক্তক্ষরণ হওয়ায় ওই শিক্ষার্থী লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বুধবার উপজেলার গোপালপুর নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস্ হাইস্কুলে এই ঘটনা ঘটে।

ইশরাত জাহান নিলা উপজেলার গোপালপুর পৌরসভার শিবপুর মহল্লার আশরাফুজ্জামানের মেয়ে ও ওই বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী।

আহত ওই শিক্ষার্থী জানান, প্রতিদিনের মতো সকালে স্কুলে যাই, ক্লাস শুরুর দেরি থাকায় আরেক বান্ধবীকে নিয়ে বিদ্যালয়ের দোতালায় গিয়ে ল্যাব রুমের সামনে দাড়িয়েছিলাম। এমন সময় প্রধান শিক্ষক ডেকে পাঠান। স্যারের সামনে গেলে কিছু বুঝে উঠার আগেই আমার দুই গালে ক্রমাগত থাপ্পড় মারতে থাকেন। এতে আমার কান দিয়ে রক্ত বের হতে থাকে। পরে আমাকে বসিয়ে রেখে আমার বাবা-মাকে ডেকে আনেন। পরে বাবা মা আমাকে নিয়ে হাসপাতালে নিয়ে আসে। 

ওই শিক্ষার্থীর মা ইসমেয়ারা বেগম জানান, আমার মেয়েকে অন্যায় ভাবে মারা হয়েছে, এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক গাউছুল আজমের বিরুদ্ধে মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবর আবেদন লিখলেও ওই প্রধান শিক্ষক আবেদনটি জমা দিতে দেননি। তিনি ওই প্রধান শিক্ষকের শাস্তির দাবি জানান। 

এ বিষয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক গাউছুল আজমের মুঠোফোনে দৈনিক শিক্ষাডটকমের পক্ষ থেকে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। তাই তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আনিসুল আজম দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মাদরাসা শিক্ষকদের উৎসব ভাতার চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের উৎসব ভাতার চেক ছাড় শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্র জিতু গ্রেফতার - dainik shiksha শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্র জিতু গ্রেফতার শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্রের বয়স উনিশের বেশি, জেডিসি পাস - dainik shiksha শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত ছাত্রের বয়স উনিশের বেশি, জেডিসি পাস ‘মনে হয়েছিল আত্মহত্যা করি’, বললেন লাঞ্ছিত হওয়া সেই অধ্যক্ষ - dainik shiksha ‘মনে হয়েছিল আত্মহত্যা করি’, বললেন লাঞ্ছিত হওয়া সেই অধ্যক্ষ শিশুদের কে জি স্কুলে ভর্তি হওয়ার প্রবণতা দুঃখজনক : মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী - dainik shiksha শিশুদের কে জি স্কুলে ভর্তি হওয়ার প্রবণতা দুঃখজনক : মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী স্ত্রীর আবদার পূরণে দুর্নীতি করবেন না : দুদক কমিশনার - dainik shiksha স্ত্রীর আবদার পূরণে দুর্নীতি করবেন না : দুদক কমিশনার ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ছাড় - dainik shiksha ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ছাড় please click here to view dainikshiksha website