প্রবীণ সাংবাদিক সুভাষ চৌধুরী আর নেই - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

প্রবীণ সাংবাদিক সুভাষ চৌধুরী আর নেই

সাতক্ষীরা প্রতিবেদক |

দেশের দক্ষিণ জনপদের প্রতিথযশা ও সাতক্ষীরার ডায়রিখ্যাত প্রবীণ সাংবাদিক সুভাষ চৌধুরী আর নেই। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে নিজ বাড়িতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার ছেলে চয়ন চৌধুরী এ খবর নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি জানান, সাংবাদিক সুভাষ চৌধুরী শ্বাসকষ্ট, কিডনি সমস্যাসহ বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় বেশ কিছুদিন অসুস্থ ছিলেন। তিনি বাড়িতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছিলেন।

কর্মজীবনে এই সাংবাদিক এনটিভির স্টাফ রিপোর্টার, দৈনিক যুগান্তরের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত দৈনিক পত্রদূতের প্রতিষ্ঠাতা নির্বাহী সম্পাদক ছিলেন। তিনি দৈনিক বাংলা, বাংলার বাণীসহ বিভিন্ন জাতীয় গণমাধ্যমে সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন। সুভাষ চৌধুরী এছাড়াও সাতক্ষীরা পল্লী মঙ্গল স্কুল এন্ড কলেজে শিক্ষকতা করে সুনামের সঙ্গে অবসরে যান।

সুভাষ চৌধুরী সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষায় দক্ষ ছিলেন। দক্ষিণ জনপদের জলাবদ্ধতা নিরসনের লক্ষ্যে লড়াই সংগ্রামে তার অবদানের কথা চিরকাল মানুষ মনে রাখবে।

সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির সভাপতি ও সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি প্রবীণ সাংবাদিক মো. আনিসুর রহিম সুভাষ চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সুভাষ চৌধুরী ছিলেন একজন জীবন্ত ডায়েরি। যখন যে তথ্য দরকার হতো তাকে ফোন করলেই অনর্গল বলে যেতেন। তিনি অনেক বড় মনের মানুষ ছিলেন। সত্য প্রকাশে তিনি কখনও দ্বিধা করেননি। কোন অপশক্তি তার লেখনি থামাতে পারেনি। আঘাত এসেছে বারবার। তাতে তিনি দমে যাননি। সাতক্ষীরা তথা দেশের দক্ষিণ জনপদে তার মতো সৃষ্টিশীল সাংবাদিকের বড় অভাব। তার মৃত্যুতে যে শূন্যতা সৃষ্টি হলো তা হয়তো আর কখনও পূরণ হবে না।

শেহজাদ আমার ও বুবলীর সন্তান : শাকিব খান - dainik shiksha শেহজাদ আমার ও বুবলীর সন্তান : শাকিব খান ৪০তম বিসিএস : নন-ক্যাডার নিয়োগে নতুন নিয়ম আসছে - dainik shiksha ৪০তম বিসিএস : নন-ক্যাডার নিয়োগে নতুন নিয়ম আসছে ফাঁস ঠেকাতে প্রশ্ন ব্যবস্থাপনা বদলাচ্ছে - dainik shiksha ফাঁস ঠেকাতে প্রশ্ন ব্যবস্থাপনা বদলাচ্ছে মাদরাসা শিক্ষকদের সেপ্টেম্বর মাসের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের সেপ্টেম্বর মাসের এমপিওর চেক ছাড় অনুমোদন ছাড়া কর্মরত ষাটোর্ধ্ব প্রধান শিক্ষকদের দায়িত্ব ছাড়ার নির্দেশ - dainik shiksha অনুমোদন ছাড়া কর্মরত ষাটোর্ধ্ব প্রধান শিক্ষকদের দায়িত্ব ছাড়ার নির্দেশ সভাপতি হতে সন্তানকে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি - dainik shiksha সভাপতি হতে সন্তানকে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি একইদিনে এসএসসি ও এমএড পরীক্ষা : শিক্ষকরা বিপাকে - dainik shiksha একইদিনে এসএসসি ও এমএড পরীক্ষা : শিক্ষকরা বিপাকে স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের সেপ্টেম্বরের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের সেপ্টেম্বরের এমপিওর চেক ছাড় please click here to view dainikshiksha website