বন্ধুকে বেঁধে রেখে ছাত্রীকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৩ - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

বন্ধুকে বেঁধে রেখে ছাত্রীকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

খুলনা প্রতিনিধি |

খুলনায় বন্ধুর সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন নবম শ্রেণির এক ছাত্রী (১৬)। বন্ধুকে বেঁধে রেখে তার সামনেই তিনজন মিলে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) খুলনা মহানগরীর খালিশপুর থানাধীন মদিনাবাগ আবাসিক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- নগরীর দৌলতপুর পাবলা সবুজ সংঘ মাঠ এলাকার মো. জয়নাল আবেদীনের ছেলে মো. মেজবাহ উদ্দিন (২৫), মো. সুজন মোল্লার ছেলে মো. ইমন মোল্লা (২০) ও পাবলা বৈরাগী পাড়ার মো. মহারাজ চৌকিদারের ছেলে মো. শিমুল চৌকিদার।

খালিশপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহাঙ্গীর বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করেছে। তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। তারা ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। এখন ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির প্রস্তুতি চলছে। 

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ওসি জানান, দৌলতপুর থানা এলাকার বাসিন্দা ওই স্কুলছাত্রী সোমবার বেলা ১১টার দিকে তার বন্ধু মারুফের সঙ্গে ঘুরতে বের হয়। দৌলতপুরের শামীম হোটেলে ভিকটিম ও তার বন্ধু অবস্থানকালে মারুফের বন্ধু মেজবাহ ফোন দিয়ে মারুফকে বলে ‘দোস্ত ভাবিকে নিয়ে ঘুরতে আয়’। তখন মারুফ ভিকটিমকে নিয়ে বেলা সোয়া ১১টার দিকে পাবলা সবুজ সংঘ মাঠের দিকে যায়। সেখান থেকে মো. মেজবাহ উদ্দীন, মো. ইমন মোল্লা ও মো. শিমুল চৌকিদার ভিকটিম ও তার বন্ধু মারুফকে নিয়ে ইজিবাইকযোগে খুলনা মহানগরীর খালিশপুর থানাধীন মদিনাবাগ এলাকায় যায়। সেখানে নিয়ে গিয়ে মারুফকে আটকে রেখে প্রথমে মেজবাহ উদ্দীন, পরে মো. ইমন মোল্লা ও মো. শিমুল চৌকিদার ওই স্কুলছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে ভয়ভীতি দেখিয়ে চলে যায়। পুলিশ খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। একইসঙ্গে অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়। 

মাদরাসার এমপিও শিটে পদবি সংশোধন না হলে ডিজির প্রতিনিধি নয় - dainik shiksha মাদরাসার এমপিও শিটে পদবি সংশোধন না হলে ডিজির প্রতিনিধি নয় ইডেন ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১০ - dainik shiksha ইডেন ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১০ সুন্দরীদের বাছাই করে কু-প্রস্তাব, ইডেন ছাত্রলীগ নেত্রীর অভিযোগ - dainik shiksha সুন্দরীদের বাছাই করে কু-প্রস্তাব, ইডেন ছাত্রলীগ নেত্রীর অভিযোগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছড়াচ্ছে ‘চোখ ওঠা’ - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছড়াচ্ছে ‘চোখ ওঠা’ মনিপুর স্কুলে অবৈধ অধ্যক্ষ ফরহাদ - dainik shiksha মনিপুর স্কুলে অবৈধ অধ্যক্ষ ফরহাদ ফি বাড়লো সরকারি চাকরির পরীক্ষার - dainik shiksha ফি বাড়লো সরকারি চাকরির পরীক্ষার প্রশ্নফাঁস : ৫ শিক্ষক ও পিয়ন বরখাস্ত - dainik shiksha প্রশ্নফাঁস : ৫ শিক্ষক ও পিয়ন বরখাস্ত please click here to view dainikshiksha website