বিপুল পরিমান মাদকসহ আটক শিক্ষক-ইউপি সদস্য কারাগারে - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

বিপুল পরিমান মাদকসহ আটক শিক্ষক-ইউপি সদস্য কারাগারে

নওগাঁ প্রতিনিধি |

বিপুল পরিমাণ মাদক ও মাদক প্রক্রিয়াজাতকরণের সরঞ্জামসহ মাদরাসা শিক্ষক ও ইউপি সদস্যসহ মোট চারজন মাদক চোরাকারবারিকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা। গতকাল সোমবার বিকেলে সীমান্তে অভিযান

চালিয়ে নওগাঁর পত্নীতলা ব্যাটালিয়ন (১৪ বিজিবি) তাদের আটক করে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেন ধামইরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গনপতি রায়। একইদিন সন্ধ্যায় তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।  

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, জয়পুরহাট সদর উপজেলার পেঁচুলিয়া (বোর্ড ঘর) গ্রামের মৃত বদিউজ্জামান মন্ডলের ছেলে ও মুজাহিদপুর দাখিল মাদরাসার সহকারী শিক্ষক সাজ্জাদ হোসেন সবুজ (৪৬), একই গ্রামের লোকমান আলীর ছেলে পোল্ট্রি ফার্ম মালিক আনিছুর রহমান (৪১) ও মৃত মোখলেছুর রহমানের ছেলে কৃষক গোলাম রব্বানী (৪৬) এবং জয়পুরহাট সদরের দৌগাছি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও মৃত হাজি কমেজ উদ্দিনের ছেলে শাহাদুল ইসলাম (৪৫)।

১৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. হামিদ উদ্দিন জানান, আটককৃত চোরাকারবারিরা চোরাচালানের মাধ্যমে ভারত থেকে মাদক দ্রব্য নিয়ে আসার পর  প্রক্রিয়াজাতের মাধ্যমে বাংলাদেশে সরবরাহ করে।

এমন তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার বিকেলে পত্নীতলার পাগলাদেওয়ান বিওপির টহল কমান্ডার নায়েব সুবেদার তপন কুমারের নেতৃত্বে নিয়মিত টহল দল ভারতীয় সীমান্ত পিলার ২৭৩ থেকে আনুমানিক ২০০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ধামইরহাট উপজেলার রূপনারায়াণপুর গ্রামের ওয়াজ মিয়ার ছেলে ওয়াহেদুল ইসলাম ভুন্ডুলের (২৬) বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে মাদক ও মাদক প্রক্রিয়াজাত করণের সরঞ্জামসহ চারজন মাদক কারবারিকে আটক করে। 

তিনি আরও জানান, আটককৃতদের ধামইরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট গনপতি রায় কর্তৃক পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়। দৌগাছি ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ড মেম্বারকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং অপর তিন জনকে ৫ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়। পরে সন্ধ্যায় তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ঈদের পরে এসএসসি পরীক্ষা, তারিখ নির্ধারণ হয়নি - dainik shiksha ঈদের পরে এসএসসি পরীক্ষা, তারিখ নির্ধারণ হয়নি মিলিটারি ডিকটেটররা ছাত্রদের হাতে অস্ত্র-মাদক তুলে দিয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha মিলিটারি ডিকটেটররা ছাত্রদের হাতে অস্ত্র-মাদক তুলে দিয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী পদ্মাসেতু: বড় পরিবর্তনের সুযোগ শিক্ষায় - dainik shiksha পদ্মাসেতু: বড় পরিবর্তনের সুযোগ শিক্ষায় প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ : ফল পুনর্মূল্যায়ন চেয়ে ৫ পরীক্ষার্থীর রিট - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ : ফল পুনর্মূল্যায়ন চেয়ে ৫ পরীক্ষার্থীর রিট বন্যা চলে গেলেই পরীক্ষা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha বন্যা চলে গেলেই পরীক্ষা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৩ জুলাই থেকে বন্ধ মাধ্যমিক বিদ্যালয় - dainik shiksha ৩ জুলাই থেকে বন্ধ মাধ্যমিক বিদ্যালয় please click here to view dainikshiksha website