হলে ধীরগতির ইন্টারনেট, জবি ছাত্রীদের দুর্ভোগ - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

হলে ধীরগতির ইন্টারনেট, জবি ছাত্রীদের দুর্ভোগ

জবি প্রতিনিধি |

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) একমাত্র ছাত্রী হল বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে ধীরগতির ইন্টারনেট নিয়ে শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ চরমে উঠেছে। ইন্টারনেটের ধীরগতির কারণে ছাত্রী হলের অধিকাংশ শিক্ষার্থীই এ সেবার বাইরে রয়েছেন। এতে হলের ছাত্রীদের ইন্টারনেট নিয়ে প্রতিনিয়ত দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে বলে অভিযোগ করছেন ছাত্রীরা। আর এই সমস্যা প্রকট হয় প্রতি মঙ্গলবার। কারণ গত ৩ আগস্ট থেকে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ে সপ্তাহে প্রতি মঙ্গলবার অনলাইনে ক্লাস নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জবি প্রশাসন। সেই থেকে প্রতি মঙ্গলবার শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ক্লাস ও পরীক্ষা দিতে হচ্ছে।

হলের ছাত্রীরা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, বতর্মান বিশ্বায়নের এ যুগে শিক্ষার একটি অতি প্রয়োজনীয় উপকরণ হলো ইন্টারনেট। বিশেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন‍্য, কেননা তাদেরকে কোর্সে যেসব বই পড়ানো হয় তার অধিকাংশ বিদেশি লেখকের লেখা। যা তাদেরকে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অনলাইন লাইব্রেরি থেকে সংগ্রহ করতে হয়। তাছাড়াও বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকেও শিক্ষা সংক্রান্ত অনেক তথ্য সংগ্রহ করতে হয়। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও তাদের লেকচার শিট এবং প্রয়োজনীয় সব দিকনির্দেশনা অনলাইনে গ্রুপের মাধ্যমে পিডিএফ আকারে দিয়ে থাকেন। ফলে ইন্টারনেট একটি অতি প্রয়োজনীয় শিক্ষা উপকরণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর ধীরগতিতে ইন্টারনেটের কারণে হলের ছাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
 
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হলের এক আবাসিক ছাত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, বর্তমানে আমাদের শিক্ষাব্যবস্থা অনেকটা অনলাইনভিত্তিক হলেও সে অনুযায়ী আমরা ইন্টারনেট সেবা পাচ্ছি না। কোনো শিক্ষামূলক ভিডিও দেখতে গেলে বা জার্নাল পড়তে গেলে ধীরগতির ইন্টারনেটের কারণে সেটা অন হতে অনেক সময় লেগে যায়। আমাদের হলে নামমাত্র ওয়াইফাই ব্যবস্থা চালু আছে। এমন ধীরগতির ইন্টারনেটে বরং ভোগান্তিই বেশি হয়।
 
সমাজকর্ম বিভাগের শিক্ষার্থী উম্মে ফিয়া দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, প্রথম দিকে ওয়াইফাই কাজ করলেও এখন ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থাকার পরও আমরা ঠিকঠাক নেটওয়ার্ক পাচ্ছি না। অনলাইনে ক্লাস শুরু হয়েছে বেশ অনেকদিন আগে। কিন্তু আমাদের ওয়াইফাই সংযোগ থাকা সত্ত্বেও ইন্টারনেট কিনে ক্লাস করতে হচ্ছে, যা অত্যন্ত ব্যয়বহুল। 

হলের আরেক আবাসিক ছাত্রী শারমিন ইভা বলেন, আমরা পড়তে গিয়ে প্রতিনিয়ত ইন্টারনেটের চরম অভাববোধ করি। আমাদের পড়াশোনার বেশিরভাগই অনলাইনের সাথে সম্পর্কিত। তাই উন্নত ইন্টারনেট সংযোগসহ ওয়াইফাইয়ের স্পিড বৃদ্ধি করতে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। 

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিশ্বায়নের সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষার্থীদের জ্ঞানের পরিসর বাড়ানোর লক্ষে ২০১২ খ্রিষ্টাব্দে পুরো ক্যাম্পাসকে ওয়াইফাই (ইন্টারনেট) সংযোগের আওতায় নিয়ে আসে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কিন্তু সংযোগ দেয়ার ১০ বছর পরও সুফল পাচ্ছে না শিক্ষার্থীরা। তবে ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে নতুন করে বিডিরেন নামের একটি প্রতিষ্ঠান থেকে ইন্টারনেট সংযোগ নেয় জবি প্রশাসন। সে সময় পুরো ক্যাম্পাসকে শক্তিশালী ইন্টারনেট ব্যবস্থার আওতাভুক্ত করে ৭০০ এমবিপিএস গতির ওয়াইফাই চালু করা হয়। কিন্তু হলে আলাদা সার্ভার না বসিয়ে ক্যাম্পাসের ওয়াইফাই দিয়ে কাজ চালানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইটি সেলের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, বিডিরেনের সঙ্গে আমাদের চুক্তির দীর্ঘদিন হওয়ার কারণে বিভিন্ন যন্ত্রপাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে এখন স্বাভাবিকের তুলনায় কম স্পিড পাওয়া যাচ্ছে। তাদের সঙ্গে খুব শিগগিরই আবার নতুনভাবে চুক্তিবদ্ধ হলে এসব জিনিস চেঞ্জ করে দেবে। তাহলে আশা করি সমস্যাগুলো সমাধান হবে।

শেহজাদ আমার ও বুবলীর সন্তান : শাকিব খান - dainik shiksha শেহজাদ আমার ও বুবলীর সন্তান : শাকিব খান ৪০তম বিসিএস : নন-ক্যাডার নিয়োগে নতুন নিয়ম আসছে - dainik shiksha ৪০তম বিসিএস : নন-ক্যাডার নিয়োগে নতুন নিয়ম আসছে ফাঁস ঠেকাতে প্রশ্ন ব্যবস্থাপনা বদলাচ্ছে - dainik shiksha ফাঁস ঠেকাতে প্রশ্ন ব্যবস্থাপনা বদলাচ্ছে মাদরাসা শিক্ষকদের সেপ্টেম্বর মাসের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের সেপ্টেম্বর মাসের এমপিওর চেক ছাড় অনুমোদন ছাড়া কর্মরত ষাটোর্ধ্ব প্রধান শিক্ষকদের দায়িত্ব ছাড়ার নির্দেশ - dainik shiksha অনুমোদন ছাড়া কর্মরত ষাটোর্ধ্ব প্রধান শিক্ষকদের দায়িত্ব ছাড়ার নির্দেশ সভাপতি হতে সন্তানকে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি - dainik shiksha সভাপতি হতে সন্তানকে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি একইদিনে এসএসসি ও এমএড পরীক্ষা : শিক্ষকরা বিপাকে - dainik shiksha একইদিনে এসএসসি ও এমএড পরীক্ষা : শিক্ষকরা বিপাকে স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের সেপ্টেম্বরের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের সেপ্টেম্বরের এমপিওর চেক ছাড় please click here to view dainikshiksha website