মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

শাহরীয়ার সজীব, ০৩ আগস্ট , ২০২০
আপনাদের পত্রিকা বিএনপি বিরোধী নাকি? রিপোর্টিং এর সময় সমস্ত ক্ষোভ ঝাড়েন ঐ দলের উপর! সেলিম ভুইয়া তিন মাসে কল্যান ট্রাস্টের টাকা পাওয়ায় মনে হচ্ছে আপনাদের কম পড়ে গেলো?
Md. Harunoor Rasid, ০৩ আগস্ট , ২০২০
Md. Harunoor Rasid (Dhaka) There is no strong law to save the interest of the teachers. If law is made to pay the funds immediately after retirement automatically as such MPO is stopped after getting the age of 60, the teachers can enjoy the money. I think the existing rules has something like SOVONKORER FAKI. Here we expect good and considering look of our Hon'ble Prime Minister. In that case No Salim BHuyawn will get any chance to do any illegal interfere.
Md. Harunoor Rasid, ০৩ আগস্ট , ২০২০
Non government teachers" well fair trust has been established for the well being of teachers who have contributed a lot for an educated and prosperous country. No doubt our government is doing a lot for them. But we notice a ~Sovonkorer Faki" here in paying the well fair fund and retirement fund to the concerned teachers. Why is the rules and regulation so flexible and weak hear? Whose interest lies here ? If a law is made to pay the funds immediately after retirement auto as such the MPO is stopped auto. We can think here some are creating bar to do that. Because there may have their interest. Md Harunoor Rasid Dhaka. 03/08/2020
binoy Krishna bhowmik, ০২ আগস্ট , ২০২০
নেতা বলেই কতা । সব শিক্ষক তো নেতা হয় না আর হতেও চায় না তাই বাকি সব সম্মানিত শিক্ষক মণ্ডলী এদেশে অবহেলিত থাকবে সোনার বাংলাদেশে ।
এনামুল হক, ০১ আগস্ট , ২০২০
সব পড়লাম। আমার কথা হল, তিন মাস পর টাকা পাব কেন। আমার জমানো টাকা, আমাকে অবসরের পরের দিনই দিবে। সমস্যা কি? আমাদের এই ১০%টাকা যদি যেকোন ব্যাংকে DPS বা MDS করে রাখি,তাহলে এর চেয়ে বেশি টাকা পাব এবং যখন মন চায় তখনই উঠাইতে পারব। আর আমি বুঝিনা, অনলাইনে এমপিও শীটে শিক্ষকের নাম ও জন্ম তারিখ সব কিছু আছে তাহলে এত কাগজ জমা দিতে হবে কেন। ১ম ও শেষ আর মাঝের একটা এমপিও কপি হলেই চলে।একজন শিক্ষকের কাগজ নিয়ে ঘুরাঘুরি একটা লজ্জার বিষয়।
হাবিবুর রহমান ,দিনাজপুর, ৩১ জুলাই, ২০২০
আমার জনও পাবেন।
Tabiatkowser, ৩০ জুলাই, ২০২০
উনি নেতা বলে তিন মাসের মধ্যে কল্যাণের টাকা পেয়েছেন পক্ষান্তরে যারা নেতা নন তারা বছরেও পাচ্ছেন না। এ কেমন বিচার। অথচ এই সেই সেলিম ভূঁইয়া যারা শিক্ষক নেতার সংগঠনের নামে কত টাকা লুটপাট করেছে এবং শিক্ষকদের অধিকার নিয়ে চিনিমিনি খেলছে যার কোন ইয়ত্তা নেই।
মো: লোকমান হোসেন তাজপুর মাদরাসা, ৩০ জুলাই, ২০২০
অবসর সুবিধা বোর্ডে যে কর্মকর্তা ও কর্মচারী আছে তারা মনে করে তারতো বয়স শেষ আর সেই মেধা নাই এবং সন্তানেরা এই সম্পর্কে কিছুতো জানে না । তাই অবসর কল্যেনের টাকা টাকা টালবাহানা করতে করতে বে-সরকারী চাকুরীজীবিদের টাকার চিন্তায় মৃত্যুর অনেক আগেই বিছানায় পড়ে মৃত্যুর প্রহর গুনে। এদেশে বেসরকারীদের অবসর টাকার পিছনে না ঘুরে সরকার যদি বলে বে-সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক- কর্মচারীরা চাকরীর জীবনের পাচ বছর পরে পাবে। এই নিশ্চয়তা পেলে কমপক্ষে আরো ২ বছর সুন্দরভাবে জীবন যাপন করতে পারবে । তাই বলে এই নয় তুমি জীবনে কোন অবসরের টাকা পাবে না।
Md. Shahjahan, ৩০ জুলাই, ২০২০
বেসরকারি শিক্ষকগণ এমনতেই অবহেলিত। তাঁদের জমানো টাকা সর্বোচ্চ তিন মাসের মধ্যেই দেয়ার ব্যাবস্থা করা উচিৎ। কোন শিক্ষক যেন অবসর ভাতা ও কল্যানের টাকার জন্য কষ্ট করতে না হয়, আশা করি বর্তমান শিক্ষা বান্ধব সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিবেন। আর বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করনই বৈষম্য দূরকরনের একমাত্র পথ বলে মনে করি।
Md. Abdul Halim, ৩০ জুলাই, ২০২০
হায়রে বেহায়া দায়িত্ববান ঘুষ আর ক্ষমতার দাপট ছাড়া একটু ও চলে না. মুখে বড় বড় বুলি আউড়ায় আর কাজের বেলায় স্বার্থপরতা. সমাজের অসহায় (যাদের ক্ষমতা ও অর্থ বিত্ত নেই) ব্যক্তিদেরকে দেখার কেউ নেই.
মো: সুমন হোসেন, ৩০ জুলাই, ২০২০
উনি যে নেতা