মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

MD. ABU HASAN, ০৫ আগস্ট , ২০২০
টাকার হিসাব প্রকাশ করা হউক এবং প্রতিটি শিক্ষক কর্মচারীর মোবাইল নম্বরে প্রতি মাস শেষে কত টাকা হল তার মেসেস চাই
Md Afzal Alam Chowdhury, ০৩ আগস্ট , ২০২০
কমেন্ট বক্স রেখে লাভ কি? কমেন্ট করলে প্রকাশ পায় না।
Md. Abdul Goni, ০৩ আগস্ট , ২০২০
শুধু সেলিম ভুঁইয়া নন। অবসর কল্যান বোর্ড তৈরী হওয়া থেকে আজ পর্যন্ত ঐ পদে যারাই এসেছেন তারা সবাই লুটেপুটে খেয়েছেন এবং এখনো খাচ্ছেন।
Mizanur rahman, ০২ আগস্ট , ২০২০
আল্লাহ এমন একজন হক্কানী ব্যক্তি দান করুন যার মাধ্যমে সম্মানিত শিক্ষকগণ যথাসময়ে নিজ প্রাপ্য পেয়ে যান। আমিন
মলয় বল্লভ, ০২ আগস্ট , ২০২০
সেলিম ভূইয়া ও সেলিম ভূইয়া এটা তুমি কী করলা, শত শত লক্ষ লক্ষ শিক্ষকের জীবন নিয়ে এ তুমি কী করলা। ব্যাটা তথ্যটা যদি ঠিক হয় বিচারটা তোমার কে করবে? মনে করছ বিচার করার কেউ নাই। জবাব তোমায় দিতেই হবে। লেখক সাহেবকে ধন্যবাদ জানিয়ে লেখা শেষ করছি।
Md Afzal Alam Chowdhury, ০২ আগস্ট , ২০২০
শ্রদ্ধেয় লেখক স্যার, ২০০৮ সাল ১২ বছর মানে ১ যুগ আগের কাহিনী! এতো আগের কাহিনী নিয়ে লেখার ইচ্ছে হলো, মনেও রেখেছেন বেশ।কিন্তু বিগত এক যুগের কোন কিছুই জানেন না, বর্তমান সদস্য সচিব ও কর্তারা কোন ধরনের প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক? বর্তমানে কল্যাণ ট্রাষ্টের টাকা কন ব্যাংকে রাখা হচ্ছে, কে কত পার্সেন্ট সুবিধে পাচ্ছেন! এক যুগের কোন তথ্যই নেই! তা-ও আবার ঢাকা শহরের নামকরা প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করছেন! বিশ্বাস হচ্ছে না, ডাল মে কুচ কালা হে।
binoy Krishna bhowmik, ০২ আগস্ট , ২০২০
শুধু কল্যান ট্রাষ্ট নয় বাংলাদেশ এর বিভিন্ন বিদ্যালয়ে এভাবে যুদ্ধ অপরাধী দলের লোক বিভিন্ন কৌশলে চাকরি নিচ্ছে আর বিভিন্ন কৌশলে বিদ্যালয় ও দেশে বিদেশে বিভিন্ন প্রশিক্ষনের সুযোগ সুবিধা ভোগ করছে । বিদ্যালয় টাকা নয় ছয় করছে ।পাশা পাসি তারা সরকারের বিভিন্ন নীতিমালা বাস্তবায়নে বিভিন্ন আজুহাত তৈরি করছে শিক্ষাথী সহ সমাজ ততা রাষ্ট্রের ক্ষতি করছে ।এক বিযয়ের শিক্ষকে অন্য বিষয়ের শিক্ষক দেখাছে টাকার বিনিময়ে আর বিভিন্ন স্বার্থের কারনে ।online from ফিলাফ এর সুযোগে বিজ্ঞানের শিক্ষক কে বলছে টিক কোন বিযয় নাই আর ইংলিশ বিযয়ের শিক্ষক থাকা সত্তেও সমাজ বিজ্ঞান দেখিয়ে নতুন ইংলিশ বিযয়ের শিক্ষক নিয়োগ দিচ্ছে যা NTRC এর নিয়োগ ও ১০-১৫ বছর আগের নিয়োগ এর প্যাঁচ গোছ দেখিয়ে ।এই হল বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যাবস্তা ।দেখার কেউ নেই ।
Tabiatkowser, ০২ আগস্ট , ২০২০
এইসব নেতা কেতাদের রিমান্ডে নিয়ে কান্ ধরে উঠবস করলে সব তথ্য বেরিয়ে আসবে।
মোঃ আতাউর রহমান মন্ডল, প্রভাষক, বালানগর কামিল মাদরাসা, বাগমারা, রাজশাহী।, ০২ আগস্ট , ২০২০
দেশের সকল বেসরকারী স্কুল, কলেজও মাদরাসার অবসর গ্রহনকারী শিক্ষক কর্মচারীদের অবসর সুবিধাও কল্যান ট্রাস্টের টাকা কাগজপত্র জমা দেওয়ার একমাসের মধ্যে প্রদান করার ব্যবস্থা নেওয়া হোক।
MD.ZAHIDUL ISLAM, ০২ আগস্ট , ২০২০
অবসর ও কল্যাণট্রাস্টে শিক্ষকদের জমানো টাকা কোন ব্যাংকে কত জমা আছে ইত্যাদি বিষয় জানতে চাই। শিক্ষা বিষয়ক দেশের একমাত্র পত্রিকা দৈনিক শিক্ষার কাছে zahid narail
D Md Enayet Hossain, ০২ আগস্ট , ২০২০
ধন্যবাদ মি. হাবিব। সবারই সমান সুযোগ পাওয়া উচিৎ। একটি বিষয় আপনার সাথে মৃদু ভিন্নমত পোষণ করছি। আমি গ্রামের একটি প্রতিষ্ঠানে কাজ করি। গ্রামের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে যোগ্য ও দক্ষ নিবেদিত প্রাণ শিক্ষকের সংখ্যা অতি নগন্য। শিক্ষার সুযোগ সুবিধাও কম। আমার স্কুল ও কলেজ থেকে কিছু শিক্ষার্থী প্রবি বছর জিপিএ ৫ পেয়ে থাকে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পায়। বিখ্যাত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যত সব মেধাবীরা পড়ে। আমার প্রতিষ্ঠানে পড়ে গ্রামের ভাগ্যহত গবির অতি দরিদ্র পরিবারের ছেয়ে মেয়েরা।-----------
Md Afzal Alam Chowdhury, ০২ আগস্ট , ২০২০
শ্রদ্ধেয় লেখক স্যার, ২০০৮ সাল ১২ বছর মানে ১ যুগ আগের কাহিনী! এতো আগের কাহিনী নিয়ে লেখার ইচ্ছে হলো, মনেও রেখেছেন বেশ।কিন্তু বিগত এক যুগের কোন কিছুই জানেন না, বর্তমান সদস্য সচিব ও কর্তারা কোন ধরনের প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক? বর্তমানে কল্যাণ ট্রাষ্টের টাকা কন ব্যাংকে রাখা হচ্ছে, কে কত পার্সেন্ট সুবিধে পাচ্ছেন! এক যুগের কোন তথ্যই নেই! তা-ও আবার ঢাকা শহরের নামকরা প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করছেন! বিশ্বাস হচ্ছে না, ডাল মে কুচ কালা হে।
মোঃ এনামুল হক, ০২ আগস্ট , ২০২০
ভাল বলেছেন
রাজু আহমেদ, ০১ আগস্ট , ২০২০
Ah!
Shirazul islam, ০১ আগস্ট , ২০২০
বেসরকারি শিক্ষকদের টাকা সরকারি টাকা। তা সরকারি ব্যাংকেই রাখা উচিত।