মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

পিয়াল সরকার, ০৬ আগস্ট , ২০২১
নিদারুন কষ্টে আছে বাংলাদেশের ননএমপিও শিক্ষক সমাজ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে হয়তো এভাবে মানবেতর জী্বন যাপন করতে হত না। শুধুমাত্র, সংসদীয় স্থায়ীকমিটিতে আলোচনা নয়। আমরা এর বাস্তবায়ন চাই। ধন্যবাদ মাননীয় সংসীয় স্থায়ী কমিটির সকল সদস্য মহোদয়কে।
MD.EDRISH ALI, ০২ আগস্ট , ২০২১
স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সকল প্রতিষ্ঠানকে একযোগে এমপিও ঘোষনা দিতে করজোর অনুরোধ ও জোড় দাবি জানাচ্ছি| যাতে অভিশপ্ত চাকরিপ্রাপ্ত বেকার জীবনটা থেকে মুক্তি পান লক্ষাধিক শিক্ষক ও কর্মচারি! আল্লাহ তুমি এই অসহায়দের আশাটা পূরণ কর! আমিন|
Md. Mainuddin, ২৮ জুলাই, ২০২১
ভালো মানের স্কুলের সরকারীকরণ হবে কিন্তু ভালো মানের মাদরাসার কথা কেন আসছে না? এ দেশে কী ভালো মানের মাদরাসা নেই? আজ অবধি কোন মাদরাসা সরকারীকরণ হচ্ছে এরকম তো শুনা যাচ্ছে না?
Md. Harun-Ar-Rashid, ২৭ জুলাই, ২০২১
আসসালামুআলাইকুম, মাদ্রাসা জাতীয়করনের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।
MD.MAHMUD HASAN, ২৭ জুলাই, ২০২১
এটা তো অনেক ভালো উদ্যোগ। তাই বাস্তবায়ন হওয়ার সম্ভাবনাও কম।
Tabiatkowser, ২৬ জুলাই, ২০২১
তিনি আরও বলেন কিছু শিক্ষক যুগের পর যুগ তাদের পছন্দের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও সদস্যদের নিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর ক্ষতি করছেন। স্কুল ও কলেজ এই দুটো জায়গায় ম্যানেজিং কমিটির এই পদ্ধতি পরিবর্তন করা প্রয়োজন। এমপিওভুক্তির বিষয়টা অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখতে হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ অন্যানা প্রতিষ্ঠান শুধু পৌর এলাকায় না করে একটা সুষম বণ্টনের মাধ্যমে গ্রামাঞ্চলগুলোকেও উন্নত করতে হবে। অন্যথায় গ্রামাঞ্চল থেকে দারিদ্র্য দূর হবে না, কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে না। খুবই গুরুত্বপূর্ণ কথা। এ ধরণের বক্তব্যের জন্য জবাব সাংসদকে কি বলে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করব তা আমার জানা নেই। সাবেক সফল শিক্ষা সচিব জনাব এন আই খানের কথার সাথে সম্পুর্ন মিল খুঁজে পাওয়া যায়। তাই এ ধরণের আশার কথাগুলো শুধু যেন ফাইলবন্ধি না থেকে আলোর মুখ দেখে তার প্রতি জাতি চেয়ে আছে।
Tabiatkowser, ২৬ জুলাই, ২০২১
তিনি বলেন, অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পতাকা উত্তোলন হচ্ছে না। শুধু মাদ্রাসা নয়, কোনো স্কুল, কলেজ যদি এর যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত না করে তাহলে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। শুধু শান্তি দিলে হবে না বরং এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একেবারে বন্ধ করা দরকার। কারন এরা দেশদ্রোহী। এরা দেশের সার্বভৌমত্ব স্বীকার করে না করবেও না।
Tabiatkowser, ২৬ জুলাই, ২০২১
কমিটির অপর সদস্য মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার সর্বোচ্চ মান নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ল্যাবরেটরিগুলোতে আধুনিক যন্ত্রপাতি সরবরাহ করার পাশাপাশি শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের গবেষণা সহায়ক পরিবেশ তৈরি ও প্রশিক্ষণ প্রদানে যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। অনেক মন্ত্রণালয় আছে, বাজেটে যা বরাদ্দ দেওয়া হয় তা খরচ করতে পারে না। কোনো কোনো মন্ত্রণালয় আছে, যা প্রয়োজন তার চেয়ে কম বরাদ্দ পায়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ও যা বরাদ্দ পেয়েছে, তা খরচ করতে পারেনি। এ অবস্থার একমাত্র দায়ী মন্ত্রণালয়ের কতিপয় অসত খারাপ দূর্ণীতি বাজ কর্মকর্তা রাই এজন্য ১০০% দায়ী বলে মনে করি। তাই আগে তাদের সরাতে হবে। অন্যতায় সরকারের উদ্যেশ্য সফল হবে না।
Tabiatkowser, ২৬ জুলাই, ২০২১
সংসদে মানসম্পন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি ও সরকারিকরণ করার বক্তব্য প্রদান করায় সভাপতি জামালপুর-১ আসনের সাংসদ আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে অন্য সদস্যদের ধন্যবাদ জানাই।
Tabiatkowser, ২৬ জুলাই, ২০২১
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেছেন, শেখ হাসিনা কেবিনেট সভায়, জাতীয় অর্থনৈতিক কমিটির নির্বাহী কমিটি (একনেক) সভায় জোর দিয়ে বলেছেন আইএমইডিকে আরও শক্তিশালী করার জন্য। আইএমইডির লোকবলের অভাব থাকায় ঢাকায় বসে ১ হাজার ৮০০ প্রকল্প দেখা সম্ভব নয়। সেখানে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল প্রতিটি বিভাগে একটি করে অফিস খোলার জন্য। যদি উপযুক্ত মানের কর্মকর্তা সেখানে নিয়োগ দেওয়া যায় তাহলে ওই বিভাগের প্রকল্পগুলো তারা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করতে পারবে। প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে সঙ্গে অনুমোদন দিলেন। একটা রেজল্যুশন হলো, তার অর্ডার হলো। এটা নিয়ে যখন কাজ শুরু করা হলো, তখন অনেক বাধা এলো। অর্ডারটি এখনো আছে। সেটা নিয়ে এখনো চেষ্টা করা হচ্ছে কাজ করার জন্য। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে দেশের দুর্নীতি বাজরা সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য এ ধরণের কাজকর্ম করে থাকে। তাই প্রতিটি বিভাগে দায়িত্ব সম্পন্ন লোকদেরকে দায়িত্ব দিতে হবে। প্রয়োজনে এ গুরু দায়িত্ব সেনাবাহিনী আর যাদের আদর্শে কোন ঘাটতি নেই সেই সমস্ত লোকদেরকে এসব দায়িত্বে নিয়োজিত করা দরকার।