মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
করোনার শিক্ষা নিয়ে পাঠ্যক্রম পূণর্বিন্যাস চলছে। আশা করি আমাদের ছোটমনিদের কথা চিন্তা করে ইংরেজিতে সিলেবাস কমিয়ে বাংলা অর্থ অর্থাৎ মিনিং শিক্ষা এবং ইংরেজির ফাউন্ডেশান গ্রামার চালু করবেন। ইংরেজির বাংলা অর্থ না জানলে শিশুটি কি শিখছে ? গ্রামার ছাড়া কোন ছাত্র আমি ভাত খাই আর সে ভাত খাই এর পার্থক্য কোন দিন শিখতে পারবে না, অজ্ঞই থেকে যাবে। আসুন আমরা মাত্রারিতিক্ত না খেয়ে পুষ্টিমান কম ভোজন করি অর্থাৎ বেসিক শিখি জীবনে কাজে লাগবে।
মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
েইংরেজি মিনিং, ট্রান্সলেশন এবং গ্রামার চালু করা হোক। যেখানে বাংলা ভাষা শিক্ষার জন্য ব্যাকরণ দরকার সেখানের ইংরেজি গ্রামার ‍উচ্ছেদ করে ইংরেজি শিক্ষা মানে বে বে করা ।
মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
আগের মন্তব্য গেল কোথায় ?
কার্ত্তিক চন্দ্র চক্রবর্তী।, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
আগামীতে নতুন কারিকুলাম চালু করায়,সরকারকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই। আমার মতে,সৃজনশীল পদ্ধতি উঠিয়ে দেয়ায় অতি উত্তম।কারন,এই পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীরা তেমন কিছুই শিখতে পারেনি।তারা মোটেই লেখাপড়া করে না।পরীক্ষার সময় বানিয়ে বানিয়ে অপ্রাসঙ্গিক উত্তর লেখে।যদিও একটু-আধটু পড়ে,তাও আবার নোট-গাইড দেখে!কাজেই,এই পদ্ধতি বাদ দেয়ায় ভালো। এ্যাসাইনমেন্ট,মূল্যায়ন পদ্ধতি,হাতে-কলমে শিক্ষা ও শিখন শেখানো কার্যক্রমের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সুশিক্ষা ফলপ্রসূ হবে।