মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

Bipul mandal, ২৯ নভেম্বর, ২০২১
এবতেদায়ি শাখা,প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো সুযোগ না পেলে ছাত্র সংকট কাটবেনা! কারণ একটাই, ইবতেদায়িতে ছাত্র না থাকলে উপরের শ্রেণীতে ছাত্র আসবে কোথা থেকে!
মোহাম্মদ মুছা শিক্কক হুলাইন হযরত এয়াছিন আঃ হাঃ আঃ সিনিয়র মাদ্রসা, ২৭ নভেম্বর, ২০২১
চলতি বৎসর দাখিল ৬ষ্ট ও আলিম ১ম বর্ষে ছাএ ও ছাএীদেরকে শতকরা ২০% ও ৪০% হিসাবে প্রায় ২৫ জন ছাএ ছাএীকে উপবৃত্তি প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করার পরএবং সবকিছু যথাযথভাবে হওয়ার পর শুধুমাত্র ২জন ছাএীর উপবৃত্তির টাকা আসে বাদবাকি ২৩জন উপবৃত্তির টাকা থেকে বঞ্চিত হয়,পরে উপবৃত্তির টাকা থেকে বঞ্চিত ছাএ ছাএীদের সংশোধনার্থে নির্ধারিত ওয়েব সাইডে প্রবেশ করলে অনির্বাচিত প্রদর্শিত হয়। এইভাবে যদি মাদ্রাসায় পড়ুয়া ছাএ ছাএীদেরকে অহেতুক ভাবে উপবৃত্তির সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত করা হলে মাদ্রাসায় ভর্তির আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে, ছাএ ছাএীর সংখ্যা স্বল্পতার অন্যতম কারণ হিসাবে বিবেচিত হবে, তদুপরি মাদ্রাসায় এবতেদায়ী শাখায় উপবৃত্তির সুযোগ সুবিধা না থাকা ও ছাএ ছাএী কম হওয়ার অন্যতম কারণ। সুতরাং মাদ্রাসায় ছাএ ছাএী বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধা প্রদানের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
মোহাম্মাদ হাবিবুর রহমান, ২৬ নভেম্বর, ২০২১
কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণের জন্য অধিদপ্তর- অশেষ ধন্যবাদ। মাদ্রাসায় ইবতেদায়ি পর্যায়ে উপবৃত্তি প্রদান করলে ছাত্র-ছাত্রী বৃদ্ধির সহায়ক হবে।আশা করি দৈনিক শিক্ষার মাধ্যমে বিষয়টি অধিদপ্তরের মহা পরিচালক মহোদয় পর্যন্ত দাবীটি জোরালো হবে। মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান অধ্যক্ষ মেহারী ওবায়দিয়া আলিম মাদ্রাসা কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। ০১৮১৮৩১৪৪০৯
Islam uddin, ২৬ নভেম্বর, ২০২১
মাদ্রাসার ইবতেদায়ী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি না থাকায় শিক্ষার্থী ভর্তি হয় না।ফলে কাঙ্খিত শিক্ষার্থী না হ‌ওয়া স্বাভাবিক। মাদ্রাসার ইবতেদায়ী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি নিশ্চিত করলে প্রাইমারির চেয়ে বেশি শিক্ষার্থী হবে।