please click here to view dainikshiksha website

শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে যৌন নিপিড়নের অভিযোগ

মোজাফ্ফর রহমান,সাতক্ষীরা প্রতিনিধি | জানুয়ারি ৯, ২০১৬ - ৮:৪২ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

PHOTO-1

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার খাজরা ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদার রহমানের বিরুদ্ধে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী ছাত্রীকে কু প্রস্তাব দেওয়ার ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকমহল। আর ঘটনার পর থেকেই প্রধান শিক্ষক পালাতক রয়েছেন। এ বিষয়ে ছাত্রীটি বাদি হয়ে প্রধান শিক্ষককে অভিযুক্ত করে আশাশুনি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

খাজরা ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বিপ্লব কান্তি দাশ ও সহকারী প্রধান শিক্ষক আকুল কৃষ্ণ বাছাড় জানায়, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ওই এস এস সি পরীক্ষার্থী স্কুলে প্রাইভেট পড়তে আসলে প্রধান শিক্ষক সাইদার রহমান ছাত্রীকে কু প্রস্তাব দেন ও তার রুমের ভিতরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। বিষয়টি ছাত্রীটি সহকারী শিক্ষিকা শরিফা নাসরিন কে জানালে তিনি ম্যানেজিং কমিটি ও সহকারী প্রধান শিক্ষককে অবহিত করেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টায় শাস্তি ও অপসরণের দাবিতে বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করা হয়েছে। মানববন্ধনে খাজরা ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বিপ্লব কান্তি দাশের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন খাজরা ইউপি চেয়ারম্যান এস এম শাহানেওয়াজ ডালিম, যুবলীগ নেতা ও বিদ্যুৎ শাহি সদস্য সাইফুল ইসলাম, সহকারী প্রধান শিক্ষক আকুল কৃষ্ণ বাছাড়, শিক্ষক মশিউর রহমান, মফিজুল ইসলাম, দেবব্রত সানা, শরিফা নাসরিন ও আনারুল ইসলাম প্রমুখ।

PHOTO-2

মানববন্ধনে বিদ্যালয়ের শত শত ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক ও অভিভাবকরা অংশ গ্রহন করেন।

এসময় বক্তরা প্রধান শিক্ষকের দ্রুত শাস্তির দাবি জানান। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সহকারি শিক্ষক জানায়, পূর্বেও একাধিকবার ওই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠে।

আশাশুনি থানার এস আই আব্দুল রশিদ জানায়, অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক সাইদার রহমান মুঠোফোনে বলেন, মেয়েটির সঙ্গে একটি ছেলের সাথে সম্পর্ক রয়েছে। আমি এতে বাঁধা দেওয়ায় হয়রানী করারজন্য আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন